সুইজারল্যান্ডের উদ্দেশে প্রধানমন্ত্রী

ওয়ান নিউজ ডেক্সঃ দাভোসে বিশ্ব অর্থনৈতিক ফোরামের (ডব্লিউইএফ) বার্ষিক সভায় অংশ নিতে পাঁচ দিনের সফরে সুইজারল্যান্ডের উদ্দেশে রওয়ানা হয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

রোববার (১৫ জানুয়ারি) রাত পৌনে ১০টায় প্রধানমন্ত্রীর ঢাকা ছাড়ার কথা থাকলেও কিছুটা বিলম্বে ১০টা ৪২ মিনিটে ঢাকার হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর থেকে ইতিহাদ এয়ারওয়েজের ইওয়াই-২৫৩ ফ্লাইটে জুরিখের উদ্দেশে রওয়ানা হন তিনি।

ফ্লাইটটি রাত ১টা ১৫ মিনিটে আবুধাবিতে অবতরণের পর সেখানে যাত্রাবিরতি শেষে ইতিহাদের আরেকটি ফ্লাইটে (ইওয়াই-০৭৩) রাত ২টা ৩৫ মিনিটে সুইজারল্যান্ডের জুরিখ আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের উদ্দেশে যাত্রা করবেন প্রধানমন্ত্রী। তিনি সেখানে পৌঁছাবেন পরদিন সোমবার (১৬ জানুয়ারি) ভোর ৬টা ৪৫ মিনিটে।

প্রধানমন্ত্রীকে বিদায় জানান অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত, বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ, সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।

বিমানবন্দরে প্রধানমন্ত্রীকে অভ্যর্থনা জানাবেন জেনেভায় বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত ও জাতিসংঘ কার্যালয়ের স্থায়ী প্রতিনিধি শামীম আহসানসহ সুইজারল্যান্ড সরকারের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা।

বিমানবন্দর থেকে প্রধানমন্ত্রী উঠবেন তার সফরকালীন আবাসস্থল সিলব্রেট্টা পার্ক হোটেলে। এখান থেকেই পাঁচ দিনব্যাপী সফরের কর্মসূচিগুলোতে অংশ নেবেন তিনি।

সুইজারল্যান্ডে পৌঁছানোর পরদিন ১৭ জানুয়ারি সকাল ৯টা ২০ মিনিটে প্রধানমন্ত্রী কংগ্রেস সেন্টারে যাবেন। সেখানে তার সঙ্গে ডব্লিউইএফ’র নির্বাহী চেয়ারম্যান ক্লস স্কভের সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষা‍ৎ হওয়ার কথা। সোয়া ১১টার দিকে ডব্লিউইএফ’র উদ্বোধনী প্লেনারিতে অংশ নেবেন প্রধানমন্ত্রী। ২টার দিকে তিনি অংশ নেবেন ‘শ্যাপিং এ নিউ ওয়াটার ইকোনমি’ শীর্ষক কর্মশালায়। সোয়া ৩টার পর প্রধানমন্ত্রী ফিরে যাবেন তার আবাসস্থল সিলব্রেট্টা পার্ক হোটেলে। বিকেলে সোয়া ৫টার দিকে তিনি আবারও কংগ্রেস সেন্টারে আসবেন। এখানে সাড়ে ৫টার দিকে তিনি ‘হ্যার্নেসিং রিজিওনাল কোঅপারেশন ইন সাউথ এশিয়া’ শীর্ষক মতবিনিময় পর্বে অংশ নেবেন। পৌনে ৭টার দিকে প্রধানমন্ত্রী ফিরে যাবেন সফরকালীন আবাসস্থলে।

১৮ জানুয়ারি সকাল ১০টার কিছু পর আবাসস্থল থেকে প্রধানমন্ত্রী কংগ্রেস সেন্টারে আসবেন। এখানে সাড়ে ১০টার দিকে তিনি অংশ নেবেন ‘ওয়ার্ল্ড আন্ডারওয়াটার’ শীর্ষক আলোচনায়। এ দিন বিকেল ৬টায় শেখ হাসিনা কংগ্রেস সেন্টারেই অংশ নেবেন ‘লিডিং দ্য ফ্লাইট অ্যাগেইনস্ট ক্লাইমেট চেঞ্জ’ শীর্ষক প্লেনারি সেশনে।

১৯ জানুয়ারি বিকেলে প্রধানমন্ত্রী যাবেন শেরাটন হোটেল ওল্ডহাসে। সেখানে তিনি অংশ নেবেন ‘ডিজিটাল লিডার্স পলিসি মিটিং অন জবস’ শীর্ষক গভর্নরস পর্বে। রাতে শেখ হাসিনা কংগ্রেস সেন্টারে গিয়ে অংশ নেবেন ‘গ্লোবাল গোলস: দ্য রোড টু ২০৩০’ শীর্ষক অনুষ্ঠানে। সেদিন এখানে অতিথিদের জন্য আয়োজিত নৈশভোজেও অংশ নেবেন প্রধানমন্ত্রী।

২০ জানুয়ারি স্থানীয় সময় ১টা ৩৫ মিনিটে প্রধানমন্ত্রী জুরিখ আর্ন্তজাতিক বিমানবন্দর থেকে এমিরেটস এয়ারলাইন্সের ইকে-০৮৮ ফ্লাইটে সুইজারল্যান্ড ছেড়ে দুবাইয়ের উদ্দেশ্যে রওনা হবেন। স্থানীয় সময় রাত পৌনে ১২টার দিকে দুবাই আর্ন্তজাতিক বিমানবন্দরে পৌঁছাবেন তিনি। সেখানে যাত্রাবিরতির পর ২১ জানুয়ারি ভোর ৪টায় এমিরেটস এয়ারলাইন্সের ইকে-৫৮২ ফ্লাইটে ঢাকার উদ্দেশে রওনা হবেন প্রধানমন্ত্রী। বাংলাদেশ সময় সোয়া ১০টায় শাহজালাল বিমানবন্দরে পৌঁছানোর কথা রয়েছে তার।

সফরকালে বিভিন্ন রাষ্ট্র ও সরকারের প্রতিনিধিদের সঙ্গে দ্বিপাক্ষিক বৈঠকের কথা রয়েছে প্রধানমন্ত্রীর।

Comments are closed.