টেকনাফের আনসার ক্যাম্প থেকে লুট হওয়া ৫টি আগ্নেয়াস্ত্রসহ ১০টি আগ্নেয়াস্ত্র উদ্ধার

নেজাম উদ্দিন, সিনিয়র স্টাফ রিপোর্টারঃ  নয়াপাড়ায় আনসার ক্যাম্পের অস্ত্র লুটের ঘটনার অন্যতম হোতা রোহিঙ্গা জঙ্গি খাইরুল আমিন, মাষ্টার আবুল কালাম আজাদ ও হাসান আহম্মদকে কক্সবাজারস্থ র‌্যাব ৭ এর সদস্যরা গোপন সংবাদের ভিত্তিতে ৩জনকে আটকের পর তাদের দেয়া তথ্য মতে অভিযান চালিয়ে, ২০১৬ সালের ১৩ মে টেকনাফের আনসার ক্যাম্প থেকে লুট হওয়া পাঁচটি আগ্নেয়াস্ত্রসহ ১০টি আগ্নেয়াস্ত্র ও ১৮৯ রাউন্ড গুলি উদ্ধার করেছে র‌্যাব সদস্যরা। সোমবার রাত থেকে এক দীর্ঘ অভিযানে র‌্যাবের সদস্যরা এসব অস্ত্র উদ্ধার ও দু’ হোতাকে গ্রেফতার করতে সক্ষম হন। অভিযানে অংশ নেয় র‌্যাবের ডিজি বেনজির আহমদ ও আনসারের ডিজি মিজানুর রহমান।
গ্রেফতারকৃতরা হলেন, মিয়ানমারের রোহিঙ্গা নাগরিক খাইরুল আমিন ও মাস্টার আবুল কালাম আজাদ। মঙ্গলবার রাত ৯টার দিকে উখিয়ার কুতুপালং থেকে তাদের গ্রেফতার করা হয়।
মঙ্গলবার নাইক্ষ্যংছড়িতে এক সংবাদ ব্রিফিংয়ে র‌্যাব জানান, উখিয়ার কুতুপালং এলাকা থেকে সোমবার রাতে দু’টি অস্ত্র ও গুলিসহ গ্রেফতার দুই রোহিঙ্গা সন্ত্রাসীকে নিয়ে নাইক্ষ্যংছড়ির গহীন পাহাড়ে অভিযান চালান র‌্যাব সদস্যরা। মঙ্গলবার (১০ জানুয়ারি) ভোর রাতে এ অভিযান চালানো হয়। এ সময় টেকনাফের আনসার ক্যাম্প থেকে লুট হওয়া পাঁচটি অস্ত্রসহ মোট ১০টি অস্ত্র ও ১৮৯ রাউন্ড গুলি উদ্ধার করে র‌্যাব ও আনসার বাহিনীর সদস্যরা। মঙ্গলবার দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে নাঈক্ষ্যংছড়ির তুমব্রু এলাকার গহীন অরণ্য থেকে এসব অস্ত্র ও গুলি উদ্ধার করা হয়।
অভিযানে র‌্যাবের ডিজি বেনজির আহমেদ ও আনসারের ডিজি মিজানুর রহমানসহ বিপুল সংখ্যক র‌্যাব, পুলিশ, সাংবাদিক ও আনসার সদস্য উপস্থিত ছিলেন।
পরে ঘটনাস্থলেই প্রেস ব্রিফিং করেন বেনজির আহমেদ ও মিজানুর রহমান। তারা বলেন, পাহাড়ি অঞ্চলের গভীর অরন্যের সম্ভাব্য দুটি পাহাড় ঘিরে রেখেছে র‌্যাব ও আনসার বাহিনীর সদস্যরা। সেখানে আরও দুদিন অভিযান অব্যাহত থাকবে।
তারা আরও জানান, আনসার ক্যাম্পে হামলা ও অস্ত্র লুটের ঘটনায় অভিযান চালিয়ে অস্ত্রসহ এ পর্যন্ত তিনজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে।
উল্লেখ্য, গত বছরের ১৩ মে টেকনাফের নয়াপাড়া রোহিঙ্গা শরণার্থী ক্যাম্পে নিরাপত্তার দায়িত্বে থাকা আনসার ব্যারাকে সশস্ত্র হামলা চালায় একদল অজ্ঞাত দুর্বৃত্ত। এ সময় হামলাকারীদের গুলিতে নিহত হন ব্যারাকের দায়িত্বরত আনসার কমান্ডার। হামলাকারীরা লুট করে নিয়ে যায় ১১টি আগ্নেয়াস্ত্র ও ৬৭০ রাউন্ড গুলি।

Comments are closed.