সিদ্ধিরগঞ্জ থানার ওসিকে প্রত্যাহারের দাবি আইভীর

ওয়ান নিউজঃ নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশন নিবর্বাচনে সিদ্ধিরগঞ্জ থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সরাফত উল্লাহর প্রত্যাহার দাবি করেছেন আওয়ামী লীগের প্রার্থী ডা. সেলিনা হায়াৎ আইভী।

ডা. আইভী বলেন, সিদ্ধিরগঞ্জ থানার ওসির বিগত দিনের কর্মকাণ্ড লক্ষ করলে মনে হয়, ওনার জন্য নেতাকর্মীদের সমস্যা সৃষ্টি হতে পারে। তাই সিদ্ধিরগঞ্জের ওসির পরিবর্তন চাই। এটা ওই এলাকার আওয়ামী লীগের নেতাকর্মী ও জনগণের দাবি।

এ ছাড়া আওয়ামী লীগের এ প্রার্থী আরও অভিযোগ করে বলেন, ওই ওসি সেখানে বিতর্কিত ভূমিকা পালন করছেন।

রোববার সকাল সাড়ে ৯টা থেকে দুপুর পর্যন্ত শহরের ১১, ১২ ও ১৩ নং ওয়ার্ডে গণসংযোগকালে এসব অভিযোগ করেন ডা. সেলিনা হায়াৎ আইভী।

ডা. আভী আরও বলেন, সর্বত্র নৌকার গণজোয়ার সৃষ্টি হয়েছে। আমি যেখানেই যাচ্ছি সেখানেই প্রচুর সাড়া পাচ্ছি। আমি মনে করি উন্নয়নের ধারাবাহিকতার জন্যই নারায়ণগঞ্জের মানুষ নৌকা প্রতীকে ভোট দেবে। নৌকার গণজোয়ার তৈরি হয়েছে। ১০০ ভাগ নিশ্চিত নৌকা জয়ী হবে।

সেলিনা হায়াৎ আইভী বলেন, আমি প্রথম থেকেই নির্বাচন কমিশনকে বলে আসছি, সরকারি দলের প্রার্থী হিসেবে কোনো প্রকার সুযোগ সুবিধা নিতে চাই না। কোন পক্ষপাতিত্ব চাই না। সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচন চাই। আর সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচন হলে নৌকা জয়ী হবে।

নারায়ণগঞ্জের ফলাফল অ্যামেরিকার ট্রাম্প ও হিলারির নির্বাচনের মতো হবে কিনা এমন প্রশ্নের জবাবে ডা. আইভী বলেন, এটা বাংলাদেশ। আর বাংলাদেশের মধ্যে নারায়ণগঞ্জ। তবে জনগণ যে রায় দেবে, আমি তা মেনে নেবো।

শামীম ওসমানের অবস্থান সম্পর্কে আইভী বলেন, ওনি (শামীম ওসমান) চাইলেও আইনের বাধার কারণে ওনি আসতে পারবেন না। তবে সকল নেতাকর্মী শুরু থেকে আমার পাশে ছিলেন এখনও আছেন। তারা প্রতিটি এলাকায় দায়িত্ব নিয়ে কাজ করছেন।

অদৃশ্য তৃতীয় শক্তি ষড়যন্ত্র করছে কিনা এমন প্রশ্নের জবাবে আইভী বলেন, তৃতীয়, ৪র্থ, ৫ম যতপক্ষ আলোচনা হোক না কেন, ইসি ও আইন-শৃঙ্খলা বাহিনী শক্ত থাকলে কোন পক্ষের কিছু করার থাকবে না।

Comments are closed.