ঝিনাইদহে এবার সাংবাদিকের মায়ের গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা ! রহস্য কি ?

ঝিনাইদহ প্রতিনিধিঃ

ঝিনাইদহ জেলায় ওমর আলী সোহাগ নামে এক সাংবাদিকের মা লুতফন নেছা (৫০) নামের এক নারী গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছে বলে জানা গেছে। জানা গেছে নিহত লুতফুন নেছা ঝিনাইদহ সদর উপজেলার গান্না গ্রামের মৃত ওসমান আলী মন্ডলের স্ত্রী।

 

ঘটনার কারন হিসাবে জানা গেছে, তার এক ছেলে ওমর আলী সোহাগ নামে ঝিনাইদহের বহুল প্রচারিত আঞ্চলীক ‘দৈনিক বীর দর্পণ’ পত্রিকায় সাংবাদিকতা করতেন। কয়েক মাস আগে ২৫ সে নভেম্বর ২০১৬ তারিখে বাজার থেকে ১০২ পিছ ইয়াবা সহ গ্রেফতার করে ডি বি পুলিশ। তারপর তাকে আদালতে প্রেরন করা হয়। যদিও সোহাগের পরিবারের পক্ষ থেকে দাবি করা হয় যে পুলিশ মিথ্যা ও ষড়যন্ত্র করে ইয়াবা দিয়ে তাকে কোর্টে চালান করা হয়েছে।

 

সোহাগের বড় ভাই তাজুদ্দিন জানান মা তার ভাই সোহাগের মিথ্যা ষড়যন্ত্র মূলক মামলায় আদালতে পাঠান অপমান সহ্য করতে না পেরে আত্মহত্যা করেছে। ঘটনা ক্রমে আজ ঢাকা হাইকোর্ট থেকে ওমর আলী সোহাগ জামিন লাভ করেছে বলে পারিবারিক সুত্রে জানা গেছে।

Comments are closed.