ঝিনাইদহের ঐতিহ্য গরুর গাড়ির দৌড় প্রতিযোগিতা

ঝিনাইদহ প্রতিনিধিঃ

আধুনিকতার এই যুগে অনেকটা হারিয়েই যেতে বসেছে গ্রাম বাংলার ঐতিহ্য-গরুর গাড়ি। দিন দিন কমে যাচ্ছে এর ব্যবহার। এই হারিয়ে যাওয়া ঐতিহ্যকে ধরে রাখতে, নতুন বছরে নতুন প্রজন্মকে জানান দিতে ও গ্রাম বাংলার মানুষকে খানিকটা আনন্দ দিতে বৃহস্পতিবার বিকালে ঝিনাইদহ সদর উপজেলার বেতাই গ্রামে অনুষ্ঠিত হলো গরুর গাড়ির দৌড় প্রতি যোগিতা।

 

কয়েক হাজার দর্শক মাঠে উপস্থিত থেকে উপভোগ করেন গরুর গাড়ির দৌড়।বিলুপ্ত প্রায় গরুর গাড়ির দৌড় প্রতিযোগিতাকে কেন্দ্র করে সেখানে সৃষ্টি হয় উৎসবের আমেজ। আর রোমাঞ্চকর এই প্রতিযোগিতা ঘিরে আনন্দ মেলা ছিলো বাড়তি আকর্ষণ।

 

ঝিনাইদহ, যশোর, চুয়াডাঙ্গা জেলা থেকে ১৬টি গরুর গাড়ি এই প্রতিযোগিতায় অংশ গ্রহন করে। বৃহস্পতিবার সকাল থেকে শুরু হয়ে এই খেলা, চলে সন্ধ্যা পর্যন্ত। খেলা শুরুর আগ থেকেই হাজার হাজর দর্শক মাঠে জড়ো হয়।

 

দূর-দূরান্ত থেকে আগত নারী, পুরষ, মহিলা ও শিশু উপভোগ করেন গ্রাম বাংলার এই ঐতিহ্যবাহী গরুর গাড়ির দৌড় প্রতিযোগিতা। খেলা শেষে বিজয়ীদের মাঝে পুরস্কার বিতরণ করা হয়। খেলায় প্রথম স্থান অধিকার করেন যশোর জেলার দহরপুর গ্রামের রিয়াজ উদ্দিন।

 

পুরস্কার হিসেবে তার হাতে তুলে দেয়া হয় ২১ ইঞ্চি রঙ্গিন টেলিভিশন। দ্বিতীয় স্থান অধিকার করেন ঝিনাইদহ সদর উপজেলার দুর্গাপুর গ্রামের আমিরুল ইসলাম। তাকে দেওয়া হয়েছে ১৬ ইঞ্চি রঙিন টেলিভিশন ও তৃতীয় স্থান অধিকার করেছেন ঝিনাইদহ বেতাই গ্রামের জামির হোসেন। তাকে একটি মোবাইল ফোন উপহার দেওয়া হয়।

 

পুরস্কার বিতরণ অনুষ্ঠানে আয়োজক গান্না ইউনিয়নের চেয়ারম্যান নাসির উদ্দিন মালিতার সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি ছিলেন ঝিনাইদহ জেলা পরিষদের নব-নির্বাচিত চেয়ারম্যান কনক কান্তি দাস, বিশেষ অতিথি ছিলেন সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) হরেন্দ্রনাথ সরকার।

 

দর্শকরা জানান, অনেক দূর-দূরান্ত থেকে তারা এসেছেন, এমন একটি আয়োজনে তারা সবাই খুশি। গ্রামীন এ খেলাটি প্রতি বছর আয়োজনের দাবিও জানান তারা। গত ৪ বছর ধরে নিয়মিত আয়োজন করা হচ্ছে এই দৌড় প্রতিযোগিতা। আয়োজকদের পক্ষ থেকেও প্রতি বছর এমন আয়োজনের ব্যাপারে প্রত্যয় ব্যক্ত করা হয়।

Comments are closed.