ঝিনাইদহের মহেশপুরে ছিনতাই যখন দিনদুপুরে

ঝিনাইদহ প্রতিনিধিঃ

সোনালী ব্যাংক থেকে আড়াই লাখ টাকা তুলে একটি কাপরের ব্যাগের মধ্যে করে নিয়ে বাইসাইকেল যোগে বাড়ী যাচ্ছিলেন ঝিনাইদহের মহেশপুর উপজেলার নস্তি গ্রামের সুরুজ মিয়া (৫৫)। পথে মধ্যে বাজারের পুরাতন সোনালী ব্যাংকের সামনে পৌছালে তার সাইলেকটির চাকায় দড়ি জরিয়ে যায়।

 

এ সময় অজ্ঞাত নামা ৪ ব্যাক্তি তার সাইকেল ঠিক করে দেওয়ার নামে কাপরের ব্যাগ থাকা টাকার ব্যাগটি কৌশলে কেটে আড়াই লাখ টাকা নিয়ে চম্পট দেয়। এ ঘটনাটি ঘটেছে বুধবার দুপুর ১টা ২২মিনিটের দিকে মহেশপুর শহরের পুরাতন সোনালী ব্যাংকের সামনে।

 

সুরুজ মিয়া জানান, দুপুর ১টার দিকে মহেশপুর সোনালী ব্যাংক থেকে জমি ক্রয়ের জন্য আড়াই লাখ টাকা উত্তোলন করে। পরে একটি কাপরের ব্যাগের মধ্যে করে নিয়ে বাইসাইকেল যোগে বাড়ী যাচ্ছিলেন। তিনি আরো জানান, সাইলেকটির চাকায় দড়ি জরিয়ে যাওয়ায় অপরিচিত ৪জন আমার সাইকেলটি ঠিক করে দেওয়ার নামে কাপরের ব্যাগ থাকা টাকার ব্যাগটি কেটে আড়াই লাখ টাকা নিয়ে গেছে।

 

মহেশপুর থানার সেকেন্ড অফিসার এস,আই ফরিদুল ইসলাম জানান, দুপুরে টাকার একটি ব্যাগ কেটে আড়াই লাখ টাকা নিয়ে যাওয়ার খবরটি শুনেছি। তবে এখনও কেউ কোন অভিযোগ করতে আসেনি। এদিকে শহরের সিসি ক্যামেরায় টাকা চুরি করে পালানোর দৃশ্য দেখা গেলেও চোরদের ছবি চেনা যাচ্ছেনা। তবে পুলিশ টাকা উদ্ধারে সিসি ক্যামেরার ফুটেজ নিয়ে মাঠে নেমেছে।

Comments are closed.