যশোরের পল্লীতে ছাত্রলীগ কার্যালয় থেকে রামদা সহ একজন আটক

ইয়ানুর রহমান : যশোরের অভয়নগর উপজেলার নওয়াপাড়া পৌর ছাত্রলীগের কার্যালয় থেকে তিনটি রামদা উদ্ধার ও একজনকে আটক করেছে পুলিশ। মঙ্গলবার দুপুরে অভয়নগর থানার পুলিশ গোপন সংবাদ পেয়ে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স সংলগ্ন ওই কার্যালয়ে অভিযান চালায়।

 

পুলিশ ও এলাকাবাসী সূত্রে জানা গেছে, মঙ্গলবার দুপুরে পুলিশ ছাত্রলীগ কার্যালয়ের টেবিলের নিচে থেকে তিনটি রামদা উদ্ধার করে। এ সময় পুলিশ একতারপুর গ্রামের মন্ডলপাড়ার বাটুল কুমার মন্ডলের ছেলে পৌর ছাত্রলীগ নেতা মিলন কুমার মন্ডলকে (২০) আটক করে।

 

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, পুলিশের উপস্থিতি আঁচ করতে পেরে বুইকারা গ্রামের ইমান আলীর ছেলে পৌর ছাত্রলীগের সভাপতি কামরুজ্জামান মিলন কৌশলে পালিয়ে যায়।

 

এ ব্যাপারে অভয়নগর থানার ওসি আনিসুর রহমান জানান, তিনটি রামদা উদ্ধার ও একজনকে আটক করা হয়েছে। তদন্ত করে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। এ ব্যাপারে সভাপতি কামরুজ্জামান মিলনের মোবাইল ফোনে যোগাযোগ করা হলে তার মোবাইল ফোন বন্ধ পাওয়া যায়।

 

এলাকাবাসীর অভিযোগ- কয়েক মাস আগে নওয়াপাড়া পৌর ছাত্রলীগের কমিটি গঠন করে জেলা ছাত্রলীগ। যে কমিটি বিতর্কিত। যার মধ্যে বিএনপি ও জামায়াত পরিবারের অনেকে রয়েছে। এই কমিটি গঠনের পর থেকে সভাপতি মিলনের নেতৃত্বে ২০ থেকে ৩০ জন সন্ত্রাসী প্রতিদিন হাসপাতাল এলাকায় সাধারণ মানুষের উপর অত্যাচার ও চাঁদাবাজি করে আসছে। এদের অত্যাচারে এলাকার সাধারণ মানুষ ও স্কুল-কলেজ পড়ুয়া শিক্ষার্থীরা চরম আতঙ্কে চলাচল করে আসছে। সোমবার রাতে সভাপতি মিলন ও তার বাহিনী অত্র এলাকার দুটি বাড়িতে হামলা চালায়।

Comments are closed.