ঝিনাইদহে এবার চাঁদাবাজী যখন সাপ দেখিয়ে আতঙ্কে শহরবাসী

ঝিনাইদহ প্রতিনিধিঃ

ঝিনাইদহ শহরে বেদে স¤প্রদায়ের মেয়েরা সাপ দেখিয়ে আতংক সৃষ্টি করে টাকা আদায় করছে। এ নিয়ে পথচারীরা উটকো ঝামেলায় পড়েছে। গত এক মাস ধরে শহর দাপিয়ে বেড়াচ্ছে বেদে স¤প্রদায়ের ১০/১২ জন নারী। এরা সবাই বার‌্য বিয়ের শিকার। জীবন ধারণের জন্য তারা ভিক্ষা বৃত্তিতে নেমেছে। তবে তাদের ভিক্ষা আদায়ের কৌশল ভিন্ন এবং আতংকজনক।

 

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, সকাল হলেই তারা দল বেধে শহরের বিভিন্ন স্থানে পথচারীদের উপর হামলে পড়ছে। বিশেষ করে কলেজ ভার্সিটি ও গ্রাম থেকে আসা শহরে আসা মানুষগুলো তারা টার্গেট করে টাকা আদায় করছে। টাকা দিতে অস্বীকার করলে সাপের ভয় দেখানো হচ্ছে।

 

সাওন নামে কেসি কলেজের এক ছাত্র জানান, কার কাছ থেকে পঞ্চাশ টাকা নিয়ে আর ফেরৎ দেয় নি। ১০/১২ জন নারী সবাই তাকে ঘিরে ধরে টাকা আদায় করে। সোনিয়া নামে এক কলেজ পুড়য়া মেয়ে জানালেন বাড়ি থেকে কিছু কেনা কাটার জন্য তিনি টাকা নিয়ে এসেছিলেন, কিন্তু বেদে স¤প্রদায়ের মেয়েরা তার কাছ তেকে অনেকটা জোর করে কেড়ে নিয়েছে।

 

নুর আলী নামে এক ব্যক্তি জানান, তার কাছ থেকে টাকা আদায়ারে জন্য অনেক খানি দাবড় খেয়েছেন তিনি। পথে ঘাটে এ সব বেদের মেয়েদের দেখলে ছেলে মেয়েরো আড়ে আবডালে সরে যাচ্ছে। তবে কোন প্রতিকার নেই।

 

নোংরা কাপড় পড়া আর বেশির ভাগ গর্ভবতি এ সব বেদের মেয়েরা ঝিনাইদহ শহরে আতংকের সৃষ্টি করলেও কেও তাদের প্রতিরোধ করছে না। তারা অপ্রতিরোধ্য ভাবে শহর চষে বেড়াচ্ছে। তাদের কাছ থেকে কেও ভদ্র আচরণ পাচ্ছে না বলেও অনেকের অভিযোগ।

Comments are closed.