টাইগারদের টি-২০ সিরিজ শুরু আজ

ওয়ান নিউজ ক্রীড়া ডেক্সঃ প্রত্যাশার বেলুনটা অনেক ফোলানো ছিল। কিন্তু ওয়ানডে সিরিজে সে বেলুনটি ফুটো হয়ে গেল। এবার আরেকটি নতুন সিরিজ। নতুন মাঠ, নতুন বছর আর নতুন সিরিজ। তবে লক্ষ্য একই। আর সেটা হলো জয়। কিন্তু সে জয় ধরা দেবে কিনা সেটাই সবচাইতে বড় প্রশ্ন হয়ে দেখা দিয়েছে।

 

এরই মধ্যে তিন ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজে স্বাগতিক নিউজিল্যান্ডের কাছে হোয়াইটওয়াশ হয়েছে টাইগাররা। অথচ ওয়ানডে সিরিজে জয়ের স্বপ্ন ছিল মাশরাফিদের। কিন্তু সেটা হয়নি দলের ব্যাটসম্যান আর বোলারদের ব্যর্থতায়। এমন হতশ্রী ক্রিকেট অনেকদিন খেলেনি বাংলাদেশ। তবে এবার যেহেতু ভিন্ন প্রেক্ষাপট আর ভিন্ন সিরিজ, তাই বাংলাদেশের ক্রিকেটারার চাইছে এবার নতুন করে শুরু করতে।

 

আজ স্বাগতিকদের বিপক্ষে টি-২০ সিরিজ শুরু করতে যাচ্ছে বাংলাদেশ ক্রিকেট দল। তাই নতুন বছরে ভিন্ন ফরম্যাট দিয়ে আবারো নতুনভাবে শুরুর লক্ষ্য টাইগারদের। নেপিয়ারের নতুন টি-২০ ভেন্যু ম্যাকলিন পার্কে বাংলাদেশ সময় বেলা ১২টায় শুরু হবে তিন ম্যাচ সিরিজের প্রথম টি-২০ ম্যাচটি।

 

নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে তিন ওয়ানডেতেই ভালো অবস্থায় থেকেও পরাজয় এড়াতে পারেনি বাংলাদেশ। আর সিরিজে এমন পরাজয়ের জন্য দায়টা বেশিই ছিল মিডল ও লোয়ার-অর্ডার ব্যাটসম্যানদের ছন্নছাড়া ব্যাটিং। ফলে ওয়ানডে সিরিজে হোয়াইট ওয়াশের লজ্জাটাও মুখে মাখতে হয় টাইগারদের। বছরের শেষটা লজ্জা দিয়ে হলেও, বছরের শুরুটা হাসিমুখেই করতে চায় বাংলাদেশ। নতুন বছরের প্রথম আন্তর্জাতিক ম্যাচ জিতে নতুনভাবে বছরটাকে স্বাগত জানাতে চায় টাইগাররা।

 

কিন্তু কতটা পারবে মাশরাফির দল সেটাই দেখার অপেক্ষা। কারণ ওয়ানডে সিরিজে হোয়াইট ওয়াশ হওয়ার পর সংগত কারণেই দলটি মানসিক দিক থেকে বেশ চাপের মধ্যে রয়েছে। যদিও দলের অধিনায়ক মাশরাফি বলেছেন তারা শুরুটা নতুন করে করতে চান। প্রথম টি-২০ ম্যাচে অনেকটা ওয়ানডে ফরম্যাটের দলটিই খেলবে। তারপরও বাংলাদেশ অধিনায়ক মাশরাফি বিন মর্তুজা আশা করছেন, ওয়ানডে সিরিজের ভুলগুলো টি-২০ ফরম্যাটে হবে না। পুরনো সমস্যাগুলোকে শুধরে নিয়ে ব্যাটিং-এ আরও ভালো পারফরমেন্স করবে বাংলাদেশ।

 

সিরিজের প্রথম ম্যাচের স্কোয়াড শুভাগত হোম ও তাইজুল ইসলামকে অন্তর্ভুক্ত করেছে বাংলাদেশ। এছাড়া স্কোয়াডে আছেন অফ-ফর্মে থাকা ওপেনার সৌম্য সরকার। গেল এক বছর ধরে নিজেকে খুঁজে বেড়াচ্ছেন সৌম্য। গত মাসে শেষ হওয়া বাংলাদেশ প্রিমিয়ার ক্রিকেট লীগেও রানের দেখা পাননি তিনি। তবে বিপিএলে ভালো পারফরমেন্স করলেও, নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে তিন ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজে সুযোগ হয়নি পেসার রুবেল হোসেনের। কিন্তু প্রথম টি-২০ ম্যাচের স্কোয়াডে আছেন রুবেল।

 

ওয়ানডে সিরিজে হেরে বাংলাদেশ যদি থাকে ব্যাকফুটে তাহলে প্রতিপক্ষ নিউজিল্যান্ড রয়েছে একেবারেই ফ্রন্টফুটে। কারণ ওয়ানডে সিরিজের তিনটি ম্যাচেই জিতে বেশ ফুরফুরে মেজাজে টি-টোয়েন্টি সিরিজে খেলতে নামবে উইলিয়ামসনের দল। আর দল হিসেবেও নিউজিল্যান্ড অনেক বেশি শক্তিশালী। এই সিরিজের জন্য দলে প্রথমবারের মত সুযোগ পেয়েছেন মারমুখী ব্যাটসম্যান টম ব্রুস। টি-২০ ফরম্যাটের যার স্ট্রাইক রেট ১৫৬। কোরি এন্ডারসন ও কলিন মুনরোর সাথে মিডল-অর্ডারে দায়িত্ব পালন করবেন ব্রুস। তাদের সাথে ব্যাট হাতে ঝড় তুলোর অপেক্ষায় আছেন বেন ওয়েলার ও নিল ব্রুম। প্রথম দিকে ঘোষিত টি-২০ স্কোয়াডে না থাকলেও, মার্টিন গাপটিলের ইনজুরি দলে সুযোগ করে দিয়েছেন নিল ব্রুমের। বাংলাদেশের বিপক্ষে ওয়ানডে সিরিজে যার স্কোর ছিলো- ২২, ১০৯ ও ৯৭। তাই টি-২০ সিরিজে ব্রুমের দিকে তাকিয়ে থাকবে নিউজিল্যান্ড।

 

অপরদিকে বাংলাদেশ তাকিয়ে থাকবে দলের সেরা অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসানের দিকে। তিন ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজে ৮৪ রান ও ৫ উইকেট নেন সাকিব। তবে টি-২০ সিরিজে ভালো করার ব্যাপারে আশাবাদী সাকিব। তিনি জানান ভালো খেলার সামর্থ্য আমাদের আছে। শুরু থেকেই ভালো ক্রিকেট খেলতে হবে। সবাই সবার কাজটা ভালোভাবে করতে পারলেই আমরা জিততে পারবো। নিউজিল্যান্ডের নতুন এই ভেন্যুতে টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটে আজ মুখোমুখি হচ্ছে দু’দল। এ ম্যাচটি দুদলের মধ্যকার পঞ্চম ম্যাচ। আগের চারবারই ম্যাচ জয়ের স্বাদ পেয়েছে কিউইরা। ২০১০ সালে হ্যামিল্টনে মুখোমুখি প্রথম টি-২০ ম্যাচে ১০ উইকেটে এবং পরের তিনটিতে যথাক্রমে ৫৯, ১৫, ৭৫ রানে জয় পায় নিউজিল্যান্ড। সর্বশেষ গেল বছর মার্চে টি-২০ বিশ্বকাপে সুপার টেনের ম্যাচে জয় পেয়েছিলো কিউইরা। কাজেই আজ পরিসংখ্যানকে মিথ্যা প্রমাণ করতে হবে মাশরাফিদের। আজ জয় দিয়েই শুরু করতে হবে টাইগারদের।

Comments are closed.