পেঁয়াজ পাতার স্বাস্থ্য উপকারিতা

ওয়ান নিউজ ডেক্সঃ  সহজলভ্য পেঁয়াজ পাতার মধ্যে আছে অনেক স্বাস্থ্য উপকারিতা। এটি সাধারণত শীতকালীন সময়ে পাওয়া যায়। এটিকে স্প্রিং অনিওন বা সবুজ পেঁয়াজও বলা হয়।

এটি ভিটামিন সি, ভিটামিন বি১২ ও থায়ামিন সমৃদ্ধ। কোয়ারসেটিন নামক ফ্ল্যাভনয়েডের উৎস এই পেঁয়াজ পাতা।

এটি স্বাস্থ্যের ক্ষেত্রে কি ধরণের উপকার করে থাকে চলুন সে সম্পর্কে জেনে নেই—

হৃদ রোগের ঝুঁকি কমায়

পেঁয়াজ পাতার ভিটামিন সি কোলেস্টেরল ও রক্ত চাপের উচ্চ মাত্রাকে কমাতে সাহায্য করে যা হৃদ রোগের ঝুঁকি কমায়। এছাড়া পেঁয়াজ পাতার সালফার করোনারি হার্ট ডিজিজের ঝুঁকি কমায়।

ঠাণ্ডা প্রতিকারে

অ্যান্টি ভাইরাল ও অ্যান্টি ব্যাকটেরিয়াল উপাদান থাকায় পেঁয়াজ পাতা সাধারণ ঠাণ্ডা, ফ্লু ও ভাইরাল ইনফেকশনের ঘরোয়া প্রতিকার হিসেবে ব্যবহৃত হয়ে আসছে।

ক্যান্সারের ঝুঁকিতে

সবুজ পেঁয়াজের সালফার যাতে অ্যালাইল সালফাইড থাকে তা কোলন ক্যান্সারের ঝুঁকি কমায়। সবুজ পেঁয়াজে ক্যান্সার রোধী উপাদান ফ্লেভনয়েড থাকে।

রুচি বৃদ্ধিতে

সবুজ পেঁয়াজ গ্যাস্ট্রো ইন্টেস্টাইনাল সমস্যা প্রশমনে উপকারী ভূমিকা রাখে। ডায়রিয়া এবং পাকস্থলীর জটিলতার ক্ষেত্রে শক্তিশালী প্রাকৃতিক প্রতিকার হচ্ছে স্প্রিং অনিওন। এটি রুচি বৃদ্ধিতে সাহায্য করে এবং পেঁয়াজ পাতার উচ্চ মাত্রার ফাইবার হজম সহায়ক।

রক্ত জমাট বাঁধতে সহায়তা

পেঁয়াজ পাতার খনিজ উপাদান সালফার ছত্রাকের বৃদ্ধিকে প্রতিহত করে এবং ভিটামিনকে রক্ত জমাট বাঁধতে সহায়তা করে। এছাড়াও শরীরে ভিটামিন বি১ এর শোষণের মাধ্যমে চাপ ও ক্লান্তি কমায়। শরীরের কলার প্রদাহ ও ক্ষতি থেকে রক্ষা করে পেঁয়াজ পাতার ভিটামিন সি।

Comments are closed.