হোয়াইটওয়াশের মুখে বাংলাদেশ

ওয়ান নিউজ ক্রীড়া ডেক্সঃ প্রথম দুই ম্যাচে টানা হেরে সিরিজ আগেই হাতছাড়া। হোয়াইটওয়াশের লজ্জা এড়ানোর ম্যাচে পুঁজি মাত্র ২৩৬। এমন মাঝারি মানের সংগ্রহ নিয়েও নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে দারুণ কিছুর ইঙ্গিত দিয়েছিলেন বাংলাদেশের বোলাররা। তবে কিউই দাপটের সামনে বেশ যাচ্ছেতাই অবস্থা টাইগারদের। ফলে প্রায় তিন বছর পর ওয়ানডেতে হোয়াইটওয়াশের লজ্জার মুখে পড়তে যাচ্ছে মাশরাফি বিন মুর্তজার দল।

নেলসনের স্যাক্সটন ওভালে আগে ব্যাটিংয়ে নেমে নির্ধারিত ৫০ ওভারে ৯ উইকেট হারিয়ে ২৩৬ রান সংগ্রহ করে বাংলাদেশ। জবাবে ব্যাটিংয়ে নেমে শুরুতেই উইকেট হারানোর পর দারুণভাবে ঘুরে দাঁড়ায় নিউজিল্যান্ড। নেইল ব্রম ও কেন উইলিয়ামসনের দুর্দান্ত জুটিতে সহজ জয়ের পথেই হাঁটছে কিউইরা।

এই রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত ৩২ ওভার শেষে নিউজিল্যান্ডের সংগ্রহ ১ উইকেটে ১৭৭ রান। উইকেটে রয়েছেন নেইল ব্রম ৮১ ও কেন উইলিয়ামসন ৭৮ রান নিয়ে ব্যাট করছেন। টম ল্যাথাম ৪ রান করে আউট হয়েছেন। অন্যদিকে মার্টিন গাপটিল ৬ রান করে ‘আহত অবসর’ হয়ে মাঠ ছাড়েন।

জয়ের জন্য ২৩৭ রানের লক্ষ্যে ব্যাটিংয়ে নেমে দ্বিতীয় ওভারেই উইকেট হারায় নিউজিল্যান্ডের। মুস্তাফিজের ওভারের পঞ্চম বলে লেগ বিফোরের ফাঁদে পড়ে সাজঘরের পথ ধরেন স্বাগতিক ওপেনার টম ল্যাথাম। মাশরাফির করা তৃতীয় ওভারের চতুর্থ বলে বাউন্ডারি মারার পর হ্যামস্ট্রিংয়ের চোটে পড়ে মাঠ ছাড়ে গাপটিল।

পরের ওভারে বাংলাদেশকে হতাশ করেন ইমরুল। মুস্তাফিজের করা চতুর্থ ওভারের পঞ্চম বলে স্লিপে ক্যাচ তুলে দিয়েছিলেন ব্রম। তবে সেটি তালুবন্দী করতে পারেননি ইমরুল। জীবন পেয়ে উইলিয়ামসনকে নিয়ে নিউজিল্যান্ডকে জয়ের দিকে নিয়ে যাচ্ছেন গত ম্যাচের সেঞ্চুরিয়ান ব্রম। এই দুজনের জুটিতে বাংলাদেশের কাছ থেকে ম্যাচ অনেকটাই ছিনিয়ে নিয়েছে স্বাগতিকরা।

এর আগে টস জিতে ব্যাটিংয়ে নেমে দারুণ শুরুর পর মাঝপথে বড় ধস নামায় বড় সংগ্রহের স্বপ্ন চূর্ণ হয় বাংলাদেশের। নেলসনের স্যাক্সটন ওভালে বাংলাদেশ সময় শনিবার ভোরে শুরু হওয়া ম্যাচে তামিম ও ইমরুল সেঞ্চুরি জুটি গড়ে বাংলাদেশকে মজবুত ভিতে এনে দেন। তবে ১০২ থেকে ১৭৯- এই ৭৭ রানের ব্যবধানে একে একে সাত ব্যাটসম্যান সাজঘরে ফেরায় ২০০ রানের আগেই গুটিয়ে যাওয়ার শঙ্কার মুখে পড়ে টাইগাররা। কিন্তু শেষ দিকে মাশরাফি ও নুরুল হাসান সোহানের দায়িত্বশীল ব্যাটিংয়ের সুবাদে নির্ধারিত ৫০ ওভারে ৯ উইকেট হারিয়ে ২৩৬ রানের সম্মানজনক সংগ্রহ গড়তে সক্ষম হয় সফরকারীরা।

বাংলাদেশের হয়ে তামিম সর্বোচ্চ ৫৯ রান করেন। ইমরুলের ব্যাট থেকে আসে ৪৪ রান। মাশরাফি ১৮ বলে ১৪ ও নুরুল করেন ৩৯ বলে ৪৪ রান। মাহমুদউল্লাহ (৩), সাকিব আল হাসান (১৮), সাব্বির রহমান (১৯) ও মোসাদ্দেক হোসেন (১১)- সবাই ব্যাট হাতে ব্যর্থতার পরিচয় দিয়েছেন।

দলের বিপদের মুখে অষ্টম উইকেটে মাশরাফিকে নিয়ে ৩৩ রানের জুটি গড়ার পর নুরুল আউট হওয়ার আগে নবম উইকেটে তাসকিনকে নিয়ে গড়েন ২৩ রানের জুটি। আর তাতেই ২৩৬ রানের সম্মানজনক সংগ্রহ পায় বাংলাদেশ।

নিউজিল্যান্ডের হয়ে দুটি উইকেট নেন ম্যাট হেনরি ও মিচেল স্যান্টনার। টিম সাউদি, জিতান প্যাটেল, জেমস নিশাম ও কেন উইলিয়ামসন একটি করে উইকেট নেন।

প্রসঙ্গত, প্রথম ম্যাচে বাংলাদেশকে ৭৭ রানে পরাজিত করে এগিয়ে যায় নিউজিল্যান্ড। এরপর দ্বিতীয় ম্যাচে ৬৭ রানের জয় দিয়ে সিরিজ পকেটে পুরে কিউইরা। ওয়ানডে সিরিজের পর বাংলাদেশ ও নিউজিল্যান্ড তিন ম্যাচের টি-টুয়েন্টি এবং দুই ম্যাচের টেস্ট সিরিজে মুখোমুখি হবে।

Comments are closed.