শাওয়ালের ৬ রোজা রাখার ইসলামের নির্দেশনা কী?

shawal.jpg

ওয়ান নিউজ ডেক্সঃ বছরজুড়ে রোজার সাওয়াব লাভের মর্যাদাপূর্ণ মাস শাওয়াল। ঈদের এ মাসে ৬ রোজা পালন করলেই সারা বছর রোজার সাওয়াব নিশ্চিত হয়। কিন্তু এ রোজা কি এক টানা রাখতে হবে? নাকি বিরতি দিয়ে মাসের যে কোনো দিন এ রোজা পালন করতে পারবে? অনেকেরই জানার আগ্রহ যে, এ ব্যাপারে ইসলামের নির্দেশনা কী?

শাওয়াল মাসের এ রোজা ফরজ কিংবা ওয়াজিব নয়। ঈদ সংঘটিত হওয়ার পর এ মাসে ৬টি রোজা রাখলে বছরজুড়ে রোজা রাখার সাওয়াব অর্জিত হয়। তবে এ রোজা ঈদের পর একসঙ্গে রাখতে হবে মর্মে ইসলামে এমন কোনো নির্দেশনা নেই। আবার বিরতি দিয়ে রাখা যাবে না এমন কোনো বিধি নিষেধও জারি করেনি ইসলাম।

অভিজ্ঞ মুফতি ও ইসলামিক স্কলারদের মতে-

‘শাওয়াল মাসের এ রোজাগুলো ধারাবাহিকভাবে একত্রে রাখা যায়, আবার বিরতি দিয়েও রাখা যায়। তবে এ মাসের রোজাগুলো যেভাবেই রাখা হোক না কেন তা যেমন আদায় হয়ে যাবে। আবার যেভাবেই তা রাখা হোক তাতে হাদিসে ঘোষিত নির্ধারিত সাওয়াব এবং ফজিলতও যথাযথভাবে অর্জিত হবে।’

যারা ফজিলতপূর্ণ এ রোজাগুলো এখনও রাখেননি, কিংবা যারা মনে করেন যে, একসঙ্গে ধারাবাহিকভাবে রোজা না রাখলে কোনো সাওয়াব হবে না কিংবা ফজিলত পাওয়া যাবে না। তারা বাকি দিনগুলোতে শাওয়ালের রোজা রেখে হাদিসে ঘোষিত ফজিলত লাভে ধন্য হোন। বছরজুড়ে রোজা রাখার সাওয়াব লাভে ধন্য হোন।

কেননা প্রিয় নবি সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম শাওয়াল মাসের ৬ রোজার ফজিলত তুলে ধরে একাধিক হাদিস বর্ণনা করেন

– হজরত আবু আইয়ুব আনসারি রাদিয়াল্লাহু আনহু বর্ণনা করেন রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম বলেছেন, ‘যে ব্যক্তি রমজান মাসের রোজা রাখলো এবং শাওয়াল মাসে ৬টি রোজা রাখলো, এটি (শাওয়ালের ৬ রোজা) তার জন্য সারা বছর রোজা রাখার সমতুল্য।’ (মুসলিম)

যারা এখনও শাওয়ালের রোজা রাখেননি, তাদের জন্য শাওয়ালের ফজিলতপূর্ণ ৬ রোজা রাখার সুযোগ এখনও রয়েছে। দেরি না করে শাওয়াল মাসের বাকি দিনগুলোতে ফজিলতপূর্ণ এ রোজাগুলো একত্রে কিংবা বিরতি দিয়ে রেখে বছরজুড়ে রোজার সাওয়াব লাভের সৌভাগ্যবান হওয়া জরুরি।

আল্লাহ তাআলা মুসলিম উম্মাহকে শাওয়ালের ৬ রোজা একত্রে কিংবা বিরতি দিয়ে আদায় করার তাওফিক দান করুন। হাদিসে ঘোষিত ফজিলত ও মর্যাদা লাভের তাওফিক দান করুন। আমিন।