করোনা বিস্তার রোধে শহর থেকে গ্রামে ইউএনও অভিযান, ২৫হাজার ৩শত টাকা অর্থদন্ড প্রদান

Chakaria-21.jpg

এম.মনছুর আলম,চকরিয়া :

কক্সবাজারের চকরিয়া বিভিন্ন জায়গায় করোনা ভাইরাসের সংক্রমন প্রতিরোধে শহর থেকে গ্রাম পর্যায়ে সামাজিক দূরত্ব নিশ্চিতকরণ ও রমজানে বাজার মনিটরিংয়ের জন্য মোবাইল কোর্টের মাধ্যমে অভিযান পরিচালনা করা হয়। এ সময় জনগনকে সচেতন করার পাশাপাশি মার্কেটে আকস্মিক ভাবে হাজির হন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) সৈয়দ সামসুল তাবরীজ। সরকারি নির্দেশ অমান্য করে মার্কেটের ভেতরে দোকান খুলে মালামাল বিক্রি করার দায়ে ও বিভিন্ন অপরাধে আইন অমান্যকারীদের বিরুদ্ধে ৯টি মামলায় ২৫ হাজার ৩শত টাকা অর্থদন্ড প্রদান করেন ভ্রাম্যমান আদালতের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট।

সোমবার (১৮মে) সন্ধ্যা ৭টা থেকে রাত ১১টা পর্যন্ত উপজেলার বিভিন্ন এলাকায় উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সৈয়দ সামসুল তাবরীজ অভিযান পরিচালনা করে এ অর্থদন্ড প্রদান করেন।

অভিযানের নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট সৈয়দ সামসুল তাবরীজ বলেন , করোনা ভাইরাস প্রাদুর্ভাব ঠেকাতে ও সুরক্ষা নিশ্চিতে শহর থেকে গ্রামীণ জনপদের উপজেলার প্রত্যেকটি এলাকায় জনসচেতনতা বৃদ্ধি, সামাজিক দুরত্ব বজায় রাখা, বাজার মনিটরিং কার্যক্রমের অংশ বিশেষ উপজেলার বিভিন্ন ইউনিয়ন ও চকরিয়া পৌর সভার বিভিন্ন মার্কেট এলাকায় মোবাইল কোর্টের অভিযান পরিচালনা করা হয়।

তিনি আরও বলেন, করোনা ভাইরাস সংক্রমন প্রতিরোধে সরকারের নির্দেশ না মেনে সামাজিক দুরত্ব বজায় না রাখায় অভিযান পরিচালনা করে সামাজিক দুরত্ব বজায় রাখতে গণজমায়েত ও আড্ডা ছত্রভঙ্গ করা হয়। সরকারি নির্দেশনা অমান্য করে দোকান খোলা রাখায় ঢেমুশিয়া ইউনিয়নের ঢেমুশিয়া বাজার, পশ্চিম বড় ভেওলা ইউনিয়নের দরবেশকাটা বাজার, শাহারবিল ইউনিয়নের রামপুর বাজার, চকরিয়া পৌরসভার করাইয়াঘোনা, কাহারিয়া ঘোনা ও মগবাজার এলাকায় অভিযান পরিচালনা করা হয়েছে।

এসময় সরকারি নির্দেশনা অমান্য করায় বিভিন্ন অপরাধে আইন অমান্যকারীদের বিরুদ্ধে ৯টি মামলায় ২৫হাজার ৩শত টাকা অর্থদন্ড প্রদান ও ২ টি দোকান সিলগালা করা হয়। দেশের চলমান কোভিড-১৯ করোনা পরিস্থিতিতে উপজেলা প্রশাসনের ভ্রাম্যমান আদালতের নিয়মিত এ অভিযান অব্যহত থাকবে বলেও তিনি জানান।