গর্জনিয়ার নিম্ন আয়ের মানুষের ঘরে নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিসপত্র পৌছে দিলেন রামু উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা প্রণয় চাকমা

received_549676355983214.jpeg

সহ বার্তা সম্পাদকঃ-

গতকাল রাতে গর্জনিয়ার বিভিন্ন গ্রামে নিম্ন আয়ের মানুষের প্রায় অর্ধশতাধিক ঘরে যাওয়ার সুযোগ হয়েছিল।নিম্ন আয়ের মানুষের ঘরে ঘরে খাদ্যাভাব প্রকট আকার ধারণ করেছে।আমি সার্বিক চিত্র লিখনির মাধ্যমে সরকারের প্রশাসন ও বিত্তশালীদের এগিয়ে আসার আহবান জানিয়েছিলাম।
তাৎক্ষণিক রামু উপজেলা প্রশাসনের সর্বোচ্চ নীতিনির্ধারণী মানবতার ফেরিওয়ালা হিসাবে খ্যাত রামু উপজেলা নির্বাহী অফিসার প্রণয় চাকমা মহোদয় নিজস্ব ফেইসবুক আইডি থেকে আজ গর্জনিয়ায় নিম্ন আয়ের মানুষের ঘরে ঘরে চাল ও নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিসপত্র পৌছে দেওয়ার ঘোষনা দেন।
যেমন ঘোষনা তেমন কাজ Uno Ramu স্বয়ং আজ ২ এপ্রিল সকাল থেকে গর্জনিয়ার গ্রামে গ্রামে গিয়ে নিম্ন আয়ের মানুষ গুলোর ঘরে গিয়ে চাল, তেল, নগদ টাকা সহ বিভিন্ন নিত্য প্রয়োজনীয় দ্রব্য সামগ্রী পৌছে দেন।পাশাপাশি মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর অগ্রাধিকার ” যার জমি আছে ঘর নেই” প্রকল্পের দু,টি ঘর দুই টি বাস্তুহারা, ছিন্ন মুল, অসহায় ব্যক্তি কে বরাদ্দ দেওয়ার ঘোষনা দেন এবং নতুন এই দুই টি ঘরের সম্ভাব্য স্হান পরিদর্শন করেন এবং উভয় পরিবারের লোকজনের সাথে কৌশল বিনিময় করেন।উল্লেখ্য, অতীতে গর্জনিয়ায় বরাদ্দ পাওয়া অধিকাংশ ঘরে অনিয়ম ও দুর্নীতির অভিযোগ রয়েছে।এই প্রথমবারের মতো স্বয়ং রামু উপজেলা নির্বাহী অফিসার সরেজমিন পরিদর্শন কালে অনুসন্ধান করে অত্যন্ত স্বচ্ছ প্রক্রিয়ায় মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর উপহার এসব ঘর বরাদ্দ দিচ্ছেন। এতে সরকারের প্রতি সাধারণ মানুষের আস্হা দিন দিন বাড়ছে।
উল্লেখ করা যেতে পারে, আজ UNO RAMU মহোদয়ের গর্জনিয়ায় সরকারি ত্রান বিতরণের সময় দায়িত্ব জ্ঞানহীন অনেক অতিথি পাখির দেখা মিলেছে।