আপডেটঃ
চট্টগ্রামের কর্ণফুলীতে পুনরায় মাল্টি চ্যানেল শ্লিপওয়ে নির্মাণ শুরুআজ চকরিয়া আসছে আইজিপি ড. জাবেদ পাটোয়ারীটেকনাফে ‘ডাকাত আলম’ শীর্ষ ডাকাত নিহতচলে গেলেন ব্রাজিলকে হলুদ জার্সি এনে দেয়া মানুষটিচবির ৫২তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী আজপ্রাথমিক সমাপনী পরীক্ষা শুরু হচ্ছে আজপ্রধানমন্ত্রী’র কাছে ছাত্রলীগ নেতার খোলা চিঠি!কক্সবাজার ও রামুতে বিভিন্ন মাদ্রাসা পরিদর্শনকালে আল্লামা শাহ আহমদ শফী কওমি শিক্ষার গুরুত্ব অনুধাবন করেই সরকার কওমি সনদের স্বীকৃতি দিয়েছেঢাকা টেস্টে বাংলাদেশের বিশাল জয়কক্সবাজার প্রেসক্লাবের সভাপতি মাহবুবর রহমান সম্পাদক আবু তাহের চৌধুরীচকরিয়া পৌরসভা যুবলীগ নেতা মোঃ বেলাল উদ্দিন ফরহাদের মৃত্যুতে রামু উপজেলা যুবলীগের শোকসোলাতানিয়া কেজি এন্ড নুরানী একাডেমীর পি.এস.সি পরীক্ষার্থীদে বিদায় ও সংবর্ধনা অনুষ্ঠান সম্পন্ন‘জনবিচ্ছিন্ন বিএনপি জামাত জ্বালাও পোড়াও এবং মানুষ হত্যার গভীর ষড়যন্ত্রে লিপ্ত রয়েছে’ত্রুটি কাটিয়ে পুরোদমে চট্টগ্রামে গ্যাস সরবরাহকর্ণফুলীতে ‘সাঁকো’ সংগঠনের উদ্যোগে পি.এস.সি পরীক্ষার্থীদের ফ্রি কোচিং সেবা ও বিদায় সংবর্ধনা অনুষ্ঠিত

কর্ণফুলী শাহমীরপুর পুলিশ ফাড়িঁর সাবেক আইসির বিরুদ্ধে গৃহবধু কে ধর্ষণের অভিযোগ

SI-Eyer-Hosen-Sohel.jpg

চট্টগ্রাম ব্যুরো:

নাম তার এসআই এয়ার হোসেন সোহেল। কাজ করতেন চট্টগ্রামের কর্ণফুলী থানাধানী শাহমিরপুর পুলিশ ফাড়িঁর ইনচার্জ হিসেবে। বেশ দাপটে ছিলেন। কর্ণফুলী এলাকার বড়উঠানের অনেক অপরাধী ও ডাকাতের সাথে তার সখ্যতা ছিলো বলে অভিযোগ ছিলো এই আইসির বিরুদ্ধে। মাত্র এক মাস আগে বদলী হলেন। বর্তমানে কর্মরত আছেন নগরীর বায়েজীদ থানার উপ-পরিদর্শক হিসেবে।

 

অভিযোগ উঠেছে এই পুলিশ কর্মকর্তা ইয়াবা দিয়ে চালান ও অস্ত্রের ভয় দেখিয়ে ঢাকা থেকে এক গৃহবধুকে এনে ধর্ষণ করার। ঘটনাটি জানাজানি হওয়ার পর আত্মহত্যার চেষ্টা করে ঐ গৃহবধ‚। চমেক হাসপাতালের চিকিৎসা শেষে বর্তমানে নগরীর মেট্রোপলিটন হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে এই গৃহবধু।

মেট্রোপলিটন হাসপাতালের রেজিষ্ট্রার ডাক্তার মোহাম্মদ নুরুন নবী জানান, গত ২৭ তারিখ চমেক হাসপাতালে চিকিৎসা শেষে বিষ খাওয়া এই রোগী গত ৩০ অক্টোবর আমাদের মেডিকেলে ভর্তি হয়েছে।বর্তমানে তিনি আশংকামুক্ত অবস্থায় আছেন।

র্ধষনের শিকার হওয়া গৃহবধুর স্বামী জানান, পুলিশের পোশাক কারখানায় চাকরি ও শহরে একটি দোকান নিয়ে দেওয়ার আশ্বাস দিয়েছিলেন এই পুলিশ কর্মকর্তা।যা বিশ্বাস করে গত ১৫ আগষ্ট স্ত্রীকে সাথে নিয়ে সদুর ঢাকা থেকে চট্টগ্রামে আসি আমি।

এরপর গত ১৮ আগষ্ট আমার ঘরে ইয়াবা নিয়ে এসে আমাকে ইয়াবা দিয়ে চালান ও মেরে ফেলার ভয় দেখিয়ে আমার স্ত্রীকে র্ধষণ করে এস আই এয়ার হোসেন।এ নিয়ে ডিসি উত্তর বরাবর একটি অভিযোগও করেছি আমি।

মৃত্যুর পথ বেছে নেওয়া পুলিশের হাতে র্ধষনের শিকার গৃহবধ‚ জানান, আমাকে মেরে ফেলার হুমকি ও আমার জামাইকে ইয়াবা দিয়ে ফাঁসানোর ভয় দেখিয়ে সারারাত আটকে রেখে আমাকে ধর্ষণ করে পুলিশের ঐ এস আই।আমাকে জোর করে ইয়াবা সেবন করিয়ে আমার সাথে এ কাজ করেন এয়ার হোসেন।আমি এই পুলিশ নামক জানোয়ারটির বিচার চাই।

এ বিষয়ে অভিযুক্ত পুলিশ সদস্য এস আই এয়ার হোসেনের কাছে জানতে চাইলে তিনি জানান, সরলাতার সুযোগ নিয়ে এই দম্পত্তি আমাকে ব্লাকমেইল করছে। আল­াহর কসম আমি এরকম কিছুই করিনি।

অভিযুক্ত এই পুলিশ কর্মকর্তা বিষয়টি স্বীকার না করলেও এঘটনায় তার জড়িত থাকার বিষয়ে তার বেশ কিছু ঘটনার স্বীকারোক্তি ম‚লক কল রেকর্ড ও তথ্য প্রমান রয়েছে।এমনকি ধর্ষনের শিকার হওয়া গৃহবধুকে মেট্রোপলিটন হসপিটালে ভর্তি ফরমেও স্বাক্ষর ছিল এই পুলিশ কর্মকর্তার, যোগাযোগের জায়গায়ও ছিল তার সরকারি কাজে ব্যবহার করা মোবাইল নম্বরটি। যার একটি কপি আছে আমাদের কাছে।

বিষয়টি নিয়ে নগরীর উত্তর জোনের অতিরিক্ত উপ-পুলিশ কমিশনার মোঃ মিজানুর রহমান জানান, ‘আমাদের কাছে এমন একটি অভিযোগ এসেছে। যার তদন্ত ভার এসেছে আমার উপর। আমরা বিষয়টি খতিয়ে দেখছি। যদি অভিযুক্ত এই পুলিশ সদস্য এমন জঘণ্য কাজ করে থাকে তাহলে তার বিরুদ্ধে আমরা বিভাগীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করবো।’

Top