আপডেটঃ
চট্টগ্রামে নেবুলাইজার ও ভেজিটেবল কাটার মেশিনে ২ কেজি স্বর্ণ সহ আটক ১সেনাবাহিনীতে অফিসার পদে নিয়োগডিমেরিট পয়েন্টের সাথে জরিমানাও গুনতে হচ্ছে সাকিবকেতাপসের প্রশংসায় সানি লিওনবিনোদনের এক অনবদ্য আয়োজন-গৌহাটি শিলংশীতকালীন গোসলে ৯ ভুল‘দেশের উন্নয়ন অব্যাহত রাখতে নৌকায় ভোট দিন’সব পক্ষের অংশগ্রহণ ছাড়া নির্বাচন কার্যকর হবে নাযশোরের নারাঙ্গালীতে প্রতিপক্ষের হামলায় আ’লীগ কর্মী জখমহঠাৎ শেখ সুজাতের বাসায় রেজা কিবরিয়ামানুষের সাথে কথা বলার দিকনির্দেশনাজাতীয় প্রেসক্লাব নির্বাচনে সভাপতি সাইফুল, সম্পাদক ফরিদাপ্রতিযোগিতা মানে প্রতিহিংসা নয়: সিইসিবর্তমান সরকার ইসলামের সরকারঃ এমপি বদিগণ মানুষের অধিকার আদায় করতে ধানের শীষে ভোট দিন : এড. শামীম আরা স্বপ্না

চট্টগ্রাম সানমার বিপনীতে বখাটেদের হামলা, আটক ৪

Ctg-Sanmar.jpg

জে.জাহেদ,চট্টগ্রাম ব্যুরোঃ
চট্টগ্রামের আধুনিক এয়ার কন্ডিশন সুবিধা সম্বলিত বিপনী কেন্দ্র সানমার ওসান সিটির ৫ম তলায় মারামারির ঘটনা ঘটেছে।
জানা যায়, ব্যবসায়ী রুম্মান আহমেদের মালিকানাধীন হাইড আউট থিম পার্কে বহিরাগতদের হামলায় প্রতিষ্ঠানটির ৪ কর্মী আহত হয়েছে।
বুধবার (২৫ জুলাই) সন্ধ্যা ৬টার দিকে এ ঘটনা ঘটে। হামলাকরীদের মধ্যে ৪ জনকে আটক করেছে পুলিশ।
হাজিরা খাতায় সাক্ষর করা নিয়ে দুই গ্রুপের মধ্যে ফের উত্তেজনা দেখা দেয়।
এ নিয়ে বাকবিতন্ডা এবং পরে তা হাতাহাতিতে রূপ নেয়। এরই মধ্যে এক গ্রুপ ফোন করে বহিরাগত কিছু ছেলেকে ডেকে আনে।
এসেই প্রতিষ্ঠানটিতে ভাংচুর শুরু করে এবং প্রতিপক্ষ গ্রুপের কর্মীদের মারতে থাকে। এসময় তারা পাশের আরো ৫টি দোকানে ভাংচুর চালায়।
ঘটনার সময় মার্কেটে আসা ক্রেতাদের মধ্যে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে এবং তারা দিগ্বিদিক ছোটাছুটি করতে থাকে।
নারী ও শিশুরা এসময় ভয়ে চিৎকার ও কান্না করতে থাকে। ভয়ে অন্যান্য ফ্লোরের বিক্রেতারা তাদের দোকান বন্ধ করে দেয়।
এ বিষয়ে জানতে চাইলে প্রতিষ্ঠানটির সত্ত্বাধিকারী রুম্মান আহমেদ বলেন, কর্মচারীদের দুই গ্রুপের সংঘর্ষে চারজন আহত হয়েছে। তবে এ বিষয়টি অভ্যন্তরীণভাবে মিটমাটের চেষ্টা চলছে। এটি আমার নতুন একটি প্রতিষ্ঠান। তাই এটির সাথে আমার সম্মানের বিষয়টি জড়িত।
সানমার ব্যবসায়ী সমিতির সাধারণ সম্পাদক মো. হাসান বলেন, যে প্রতিষ্ঠানটিতে আজ হামলা হয়েছে সেটি নতুন প্রতিষ্ঠান। হাইড আউট থিম পার্কের কর্মচারীদের অভ্যন্তরীণ কোন্দলের কারণেই এ হামলার ঘটনা ঘটেছে। কর্মচারীদের এক পক্ষ বরিহরাগত সন্ত্রাসীদের ডেকে এনে এ হামলার ঘটনা ঘটিয়েছে।
ব্যবসার সুষ্ঠু পরিবেশ রক্ষার স্বার্থে ভবিষ্যতে যাতে আর এ ধরণের ঘটনা না হয় সেজন্য প্রশাসনকে সজাগ দৃষ্টি রাখার অনুরোধ করছি।
পাঁচলাইশ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মহিউদ্দিন মাহমুদ বলেন, ঘটনাস্থল থেকে ৪ হামলাকারীকে আটক করা হয়েছে। তাদেরকে যাচাই-বাছাই করা হচ্ছে। প্রতিষ্ঠানের মালিক ও ব্যবসায়ী সমিতির নেতৃবৃন্দ নিজেদের মধ্যে বিষয়টি সুরাহা করার চেষ্টা চালাচ্ছে। তবে যদি তারা মামলা করে তাহলে আমরা সে অনুযায়ী ব্যবস্থা নিব।

প্রত্যক্ষদর্শীসূত্রে জানা যায়, কিছুদিন ধরেই প্রতিষ্ঠানটির কর্মচারীদের দুই গ্রুপের মধ্যে নানা বিষয়ে উত্তেজনা ছিল।

Top