আপডেটঃ
চট্টগ্রাম বোর্ডে এইচএসসি পরীক্ষায় মেয়েরা এগিয়েচট্টগ্রাম বোর্ডে এইচএসসির পাসের হার ৬২ দশমিক ৭৩ শতাংশকর্ণফুলী আওয়ামীলীগ,সাংগঠনিক দুর্বলতায় ভোগছেযে দানে চরম শত্রু থেকে বন্ধু হলেন প্রিয়নবিআসছে শতাব্দীর দীর্ঘতম চন্দ্রগ্রহণ!ঈদে সাত পর্বের নাটকে ঊর্মিলাবাংলাদেশের যে কোনো সংকটে পাশে থাকবে ভারতহৃদয় জেতা ক্রোয়েশিয়া আজ ট্রফিও জিতুক!কক্সবাজার উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের বহুতল অফিস ভবনের নির্মাণ কাজের শুভ উদ্বোধনচট্টগ্রাম পানির ট্যাংক থেকে মা-মেয়ের লাশ উদ্ধারআওয়ামীলীগের প্রার্থী তালিকা প্রায় চূড়ান্ত, ৮৫টি সংসদীয় আসনে আসছে নতুন মুখবহিষ্কৃত এএসআই ইয়াবা সহ ডিবির হাতে গ্রেফতার:চট্টগ্রাম শাহ আমানত মার্কেটে আগুনক্ষমতা চিরস্থায়ী করার পাঁয়তারা করছে সরকার: ফখরুলভিসির বাসভবনে হামলাকারীদের গ্রেফতার করা হচ্ছে, মুক্তিযোদ্ধা কোটা থাকবে: প্রধানমন্ত্রী

ভারতে যাওয়ার চেষ্টার সময় দর্শনায় আটক ৫ রোহিঙ্গা

1-1.jpg

বাংলাদেশি পাসপোর্ট নিয়ে ভারতে যাওয়ার সময় পাঁচ রোহিঙ্গা যুবককে আটক করেছে ইমিগ্রেশন পুলিশ। আজ শুক্রবার চুয়াডাঙ্গার দর্শনা চেকপোস্টে তাঁরা আটক হন। দুপুরে তাঁদের দামুড়হুদা মডেল থানায় নেওয়া হয়।

পাসপোর্টে দেওয়া তথ্য অনুযায়ী, আটক পাঁচজন হলেন ফেনীর দাগনভূঞার সমসপুরের মো. হারুনের ছেলে হারেস (২২), মুন্সিগঞ্জের টঙ্গিবাড়ীর আড়িয়াল এলাকার নুরুল ইসলামের ছেলে মো. আমিন (২৪), মো. জালালের দুই ছেলে মো. আইয়াজ (২৫) ও মো. সাদেক (২৩) এবং চুয়াডাঙ্গার দর্শনা কৃষ্ণপুরের নুর ইসলামের ছেলে শাকের (২২)।

তবে পুলিশের জিজ্ঞাসাবাদে আটক যুবকেরা জানান, তাঁদের প্রত্যেকের বাড়ি মিয়ানমারের মংডু এলাকায়। নয় মাস আগে তাঁদের পরিবার টেকনাফের কুতুপালং, কালুখালী, টেংখালী ও জামতলি শরণার্থীশিবিরে আশ্রয় নিয়েছিল। পরে দালালের মাধ্যমে তাঁরা পাসপোর্ট তৈরি করেছিলেন। ভারতে বেড়ানোর জন্য যাচ্ছিলেন।

দর্শনা ইমিগ্রেশন পুলিশের উপপরিদর্শক (এসআই) আবদুল আলিম প্রথম আলোকে বলেন, সকাল সাড়ে আটটার দিকে ওই পাঁচজন ইমিগ্রেশন ডেস্কের সামনে এলে তাঁদের চেহারা দেখে সন্দেহ হয়। এঁদের একজনের পাসপোর্টে ঠিকানা দর্শনার কৃষ্ণপুর উল্লেখ থাকায় ওই এলাকার চেয়ারম্যান ও ইউপি সদস্যের নাম জানতে চাওয়া হয়। কিন্তু কোনো উত্তর দিতে পারেননি। একপর্যায়ে তাঁরা নিজেদের রোহিঙ্গা হিসেবে পরিচয় স্বীকার করেন। এরপর ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের পরামর্শে পাঁচজনকে দামুড়হুদা মডেল থানায় নেওয়া হয়।

দামুড়হুদা মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সুকুমার বিশ্বাস বলেন, ‘আটক যুবকদের বিষয়ে বিস্তারিত খোঁজ নেওয়া ও তাঁদের দেওয়া তথ্য যাচাই-বাছাই করা হচ্ছে। আজ রাতে অথবা কাল শনিবার সকালে একটি মামলা করা হবে। মামলার আগ পর্যন্ত পাঁচজনকেই পুলিশি হেফাজতে রাখা হবে।’

Top