আপডেটঃ
হাইকোর্টে হাজির হয়ে নিঃশর্ত ক্ষমা চেয়েছেন কক্সবাজারের ডিসি-এসপিউখিয়ার কলেজছাত্রী হত্যাকারী সন্ত্রাসী কবিরের গুলিবিদ্ধ লাশ উদ্ধারমাওলানা আনোয়ারের জানাজা ও দাফন সম্পন্ন‘থ্যাঙ্ক ইউ পিএম’ বিজ্ঞাপনের বিষয়ে অভিযোগ পেলে খতিয়ে দেখা হবে: ইসি সচিবনির্বাচন পিছিয়েছেন। আর নয়। একদিনও নয়, একঘণ্টাও নয়।নৌকার পক্ষে কাজ করার নির্দেশ, বিদ্রোহী হলে স্থায়ী বহিষ্কার: শেখ হাসিনাজয়ের পথ এগিয়ে রাখল স্পিনাররানির্বাচন বানচালের চক্রান্তে বিএনপি : কাদেরনির্বাচন কমিশনের সঙ্গে বৈঠকে আ’লীগভোটগ্রহণ পেছানোর দাবি বিবেচনার আশ্বাস দিয়েছে ইসি: ড. কামালবেনাপোল সীমান্তে ১২ টি স্বর্ণের বার সহ পাচারকারী আটকচট্টগ্রামে মাঠে ২৭ ম্যাজিস্ট্রেটযশোরের শার্শায় বিদেশী পিস্তল সহ আটক-১বেনাপোলে ইয়াবাসহ নারী আটকঅবশেষে পুরস্কার ঘোষিত আসামি গ্রেফতার

হজের প্রস্তুতি গ্রহণে আবশ্যক করণীয় ও বর্জনীয়

Haj.jpg

ওয়ান নিউজ ডেক্সঃ বিশ্ব মুসলিম উম্মাহর মহাসম্মিলন স্থল পূণ্যভূমি মক্কা। প্রতি বছর জিলহজ মাসের ৯ তারিখ আরাফার ময়দানে অনুষ্ঠিত হয় এ মহাসম্মিলন। বৈধ অর্থের মালিকগণের ওপর এ মহাসম্মিলন স্থলে উপস্থিত হওয়া ফরজ। জাবালে রহমতের পাদদেশে ঐতিহাসিক আরাফাতের ময়দানে এ মহাসম্মিলন অনুষ্ঠিত হয়।

বিশ্ব মুসলিম আল্লাহর দরবারর হাজিরা জানাতে এক সুরে গেয়ে ওঠবে হজের তালবিয়া। যেখানে রয়েছে মাওলার গুণগান; শান ও মান। মুসলিম উম্মাহ এক সুরে উচ্চ আওয়াজে জানা দেবে-

‘লাব্বাইক আল্লাহুম্মা লাব্বাইক;
লাব্বাইকা লা শারিকা লাকা লাব্বাইক;
ইন্নাল হামদা ওয়ান নি’মাতা লাকা ওয়াল মুলক;
লা শারিকা লাক।’

হজের এ মহা পবিত্র কর্ম সম্পাদনে রওয়ানা হওয়ার আগে হজ পালনকারীদের শারীরিক ও মানসিক বিশেষ কিছু প্রস্তুতি গ্রহণ করা আবশ্যক। আবার এমন কিছু অভ্যাস রয়েছে যেগুলো পরিত্যাগ করাও জরুরি।

আল্লাহ তাআলা কর্তৃক ফরজ করা ইবাদত হজ সম্পাদনের আগে সে বিষয়গুলোর প্রতি দেশে থেকেই প্রস্তুতি গ্রহণ ও গুরুত্ব দেয়া জরুরি তা তুলে ধরা হলো-

হজে যাওয়ার আগে যে প্রস্তুতি জরুরি

> হজের যাবতীয় খরচাদি বৈধ অর্থের উৎস থেকে করা।
> হজের যাবতীয় সরঞ্জামাদি কেনা-কাটা সম্পন্ন করা।
> পাসপোট, টাকা-পয়সা ও জরুরি কাপজপত্র রাখার ব্যাগ এবং বেল্ট সংগ্রহ করা।
> আত্মীয়-স্বজন, পাড়া-প্রতিবেশীদের কাছে দায়-দাবি মুক্ত হওয়া জরুরি।
> ওসিয়ত থাকলে তা সম্পাদন করা।
> অবশ্যই ঋণ পরিশোধ করা।
> হজের আগেই দুনিয়ার কাজ-কারবার থেকে পেরশানিমুক্ত হওয়া।
> ইবাদত-বন্দেগির মন-মানসিকতা তৈরির অভ্যাগ গড়ে তোলা
> হজের নিয়ম-কানুনগুলো ভালোভাবে জেনে নেয়া।
> কুরআন তেলাওয়াত সহিহ না হলে, তা গুরুত্বসহকারে শিখে নেয়া।
> সব ধরনের ইচ্ছা, লোভ-লালসা ত্যাগ করা।
> সব ধরনের খারাপ কাজ হতে বিরত নেওয়া।
> বিলাসিতা, পদমর্যাদা, গর্ব ও অহংকার ত্যাগ করা।
> ইবাদত ও কবর জেয়ারতের প্রতিটি মুহূর্তে তাড়াহুড়া না করে ও বিনয়ী হওয়া।
> দুনিয়ার সব ধরনের অন্যায় কাজ থেকে নিজেকে বিরত রাখা।

মনে রাখতে হবে

হজ মুসলিম উম্মাহর জন্য আল্লাহ তাআলার এক মহানির্দশন। এ ইবাদত পালনে যেমন অর্থের প্রয়োজন তেমনি প্রয়োজন মানসিক ও শারীরিক সক্ষমতা।

বিশেষ করে –

হজের তালবিয়া সহিহ করে শিখে নেয়ার পাশাপাশি গুরুত্বপূর্ণ দোয়াগুলোও শিখে নেয়া।

সর্বোপরি নিজেকে হজের জন্য এভাবে তৈরি করা যে-

‘হজ পালনে দুনিয়ার জীবনের শেষ সফর। তাই মৃত্যুর প্রস্তুতি নিয়েই বাইতুল্লায় যাত্রার প্রস্তুতি গ্রহণ করা।’

আল্লাহ তাআলা মুসলিম উম্মাহকে শারীরিক, মানসিক ও আত্মিক প্রস্তুতি গ্রহণ করার তাওফিক দান করুন। আমিন।

Top