আপডেটঃ
কক্সবাজারে ইপসা’র নিরাপদ অভিবাসন বিষয়ক প্রশিক্ষণ সভা অনুষ্ঠিতমিডিয়ার হাত বেঁধে দিয়েছে সরকার : নজরুলদলে নেই মুশফিক-মোস্তাফিজ, অভিষেক দু’জনেরগোলদিঘীর সৌন্দর্য্য বর্ধন, মাস্টার প্ল্যান ও ইমারত নির্মাণ বিধিমালা- ১৯৯৬ নিয়ে ৮ ও ৯নং ওয়ার্ডের জনসাধারণের সাথে কউকের মতবিনিময় সভা সম্পন্নকর্ণফুলীতে সিপিপি স্বেচ্চাসেবক সম্মাননা-২০১৮ এর জন্য মনোনিত হলেন যারাচট্টগ্রামে গ্ল্যাস্কো কারখানার শ্রমিকদের মহাসড়ক অবরোধকক্সবাজারে ‘শেখ হাসিনার উন্নয়নের গল্প’ প্রচারে ছাত্রনেতা ইশতিয়াকমাঝির কাটা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে দুর্যোগ মোকাবেলা শীর্ষক মতবিনিময় সভায় বিশ্বব্যাংক প্রতিনিধিচট্টগ্রাম কলেজে অস্ত্র হাতে মহড়া:শংকিত সাধারন শিক্ষার্থীরাচট্টগ্রামে এক ওসির বিরুদ্ধে আদালত অবমাননার অভিযোগরামুতে শহীদ লিয়াকত স্মৃতি বৃত্তি পরীক্ষা-২১ সেপ্টেম্বরবিএনপির ১৭৩ প্রার্থী প্রায় চূড়ান্তরামুর গর্জনিয়ায় বজ্রপাতে একই পরিবারের নারীসহ আহত ৫কক্সবাজারে প্রথম নির্মিত হচ্ছে সি,আই কোম্পানি ইন্ডাস্ট্রিজেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে দূর্যোগ ব্যবস্থাপনার জন্য ইওসি স্থাপন

অগ্রগতি হয়েছে- সত্যিই খুব ইতিবাচক : ট্রাম্প

kim-Tramp.jpg

ওয়ান নিউজ ডেক্সঃ উত্তর কোরিয়ার নেতা কিম জং উনের সঙ্গে ঐতিহাসিক বৈঠকে মিলিত হয়ে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প বলেছেন,‘অনেক অগ্রগতি হয়েছে- সত্যিই খুব ইতিবাচক। আমি মনে করি, যেকারো প্রত্যাশার চেয়ে ভালো আলোচনা হয়েছে।’

মঙ্গলবার স্থানীয় সময় ৯টায় (বাংলাদেশ সময় সকাল ৭টায়) সিঙ্গাপুরের গুরুত্বপূর্ণ স্যান্টোসা দ্বীপের হোটেল দ্য ক্যাপেলোতে গুরুত্বপূর্ণ এই বৈঠক শুরু হয়।

সে বৈঠক শেষে দুজনকে হাসিমুখেই বের হতে দেখা গেছে। এটাকে ইতিবাচক সূচনা হিসেবেই দেখা হচ্ছে।

কেমন লাগছে—জানতে চাইলে ডোনাল্ড ট্রাম্প বলেন, তার খুব ভালো লাগছে।

কিম বলেন, ‘এখানে আসাটা সহজ ছিল না। অতীত আমাদের অঙ্গপ্রত্যঙ্গ শৃঙ্খলিত করে রেখেছিল এবং পুরোনো বিদ্বেষ ও অভ্যাস সামনে এগিয়ে চলার পথে প্রতিবন্ধক হয়ে ছিল। তবে আমরা সবকিছু উত্তরণ করতে পেরেছি এবং আজ এখানে এসেছি।’

কিম দোভাষীর মাধ্যমে ট্রাম্পকে বলেন, ‘সারা পৃথিবীর মানুষ এ মুহূর্তে আমাদের দেখছে। পৃথিবীর অনেক মানুষই হয়তো ভাবছে, এটা কল্পকাহিনী, বিজ্ঞান কল্পবাহিনীর চলচ্চিত্র।’

বৈঠকে মধ্যাহ্নভোজের বিরতির সময় ক্যাপেল্লা হোটেলের গার্ডেনে গণমাধ্যমের সঙ্গে কথা বলেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট। এসময় উত্তর কোরিয়ার নেতা কিম জং উনকে ট্রাম্পের পাশে চুপ করে দাঁড়িয়ে থাকতে দেখা যায়।

তবে এর অাগে উত্তর কোরিয়ার এই নেতা ট্রাম্পের সঙ্গে তার বৈঠকের ব্যাপারে বলেন, শান্তির জন্য একটি ভালো সূচনা।

কোরীয় উপদ্বীপের পারমাণবিক অচলাবস্থা নিয়ে আলোচনার পর তারা একটি চুক্তিতে স্বাক্ষর করবেন।

Top