আপডেটঃ
রোহিঙ্গা ক্যাম্পে নিষিদ্ধ ৪১ এনজিওওয়াইফাইয়ের গতি বাড়ানোর জাদুকরি ৪ উপায়কক্সবাজার থানার ওসির কক্ষে ভুয়া মেজর, অত:পর শ্রীঘরে…এবারও হজের খুতবায় নতুন খতিবফাইনালে হেরে গেল বাংলাদেশের মেয়েরানির্বাচনে সংবিধানের বাইরে যাওয়ার সুযোগ নেই : কাদেরযারা নাগরিক স্বাধীনতা কেড়ে নেয় তারা আগ্রাসী শক্তিফেসবুক-টুইটারে প্রধানমন্ত্রীর ব্যক্তিগত কোনো আইডি নেইজাতিসংঘের সাবেক মহাসচিব কফি আনান আর নেইচট্টগ্রাম ফয়স’লেকে নৃশংস খুনের ঘটনায় পুলিশের সংবাদ সম্মেলন– সাবেক স্বামীকে খুন করতে চীন দেশ হতে বাংলাদেশ আগমণ ডাঃ রুকসানারউখিয়া-টেকনাফবাসী রোহিঙ্গাদের জন্য যে উদারতা দেখিয়েছে তা মাদকের বদনামে ধুলিস্যাৎ করা যাবেনাঃ বাহাদুরমাস্টার্স ফাইনালে কক্সবাজার সিটি কলেজের পাশের হার ৮৭%মির্জা ফখরুলের বক্তব্য ‘রাষ্ট্রদ্রোহিতা’র সামিল: কাদেরঈদ যাত্রা: শিডিউলে নেই ট্রেন, ঠিক সময়ে মিলছে বাসঈদ: মশলার জোগাড়, দেরি নয় আর

বাবার কবরে শায়িত তাজিন আহমেদ

tazin.jpg

ওয়ান নিউজ বিনোদন ডেক্সঃ বনানী কবরস্থানে বাবা কামাল উদ্দিন আহমেদের কবরে শায়িত হলেন তাজিন আহমেদ। বুধবার বাদ জোহর গুলশান আজাদ মসজিদে জানাজা শেষে বনানী কবরস্থানে এ অভিনেত্রীর দাফন সম্পন্ন হয়েছে।

তাজিন আহমেদের শেষযাত্রায় উপস্থিত ছিলেন রামেন্দ্র মজুমদার, অভিনয় শিল্পী সংঘের সভাপতি শহিদুল ইসলাম সাচ্চু, সাধারণ সম্পাদক আহসান হাবিব নাসিম, অভিনেতা সিদ্দিকুর রহমান, পরিচালক বদরুল আলম সৌদ, এসএ হক অলিক প্রমুখ।

এছাড়া তাজিনকে দেখতে আসেন অভিনেত্রী আফরোজা বাবু, রোকেয়া প্রাচী, সুবর্ণা মুস্তাফা, বিপাশা হায়াত, সুইটি, বিজরী বরকতুল্লাহ, বাঁধন, নওশীন, সোনিয়া, উর্মিলা, নির্মাতা চয়নিকা চৌধুরী প্রমুখ।

এর আগে বুধবার সকাল ৮টার দিকে তাজিনের মরদেহ তার মা দিলারা জলিকে দেখাতে নেয়া হয় কাশিমপুর মহিলা কেন্দ্রীয় কারাগারে। একটি মামলায় গত দুই বছর ধরে কারাগারে রয়েছেন দিলারা জলি।  এরপর সাড়ে ১০টার দিকে উত্তরার আনন্দ বাড়ি শুটিং স্পটে রাখা হয় তাজিন আহমেদের মরদেহ। সেখানে সহকর্মীদের অনেকে শ্রদ্ধা জানাতে আসেন তাকে।

মঙ্গলবার দুপুরে তাজিনের হার্ট অ্যাটাক হয়। বিকেল সাড়ে ৪টার দিকে উত্তরার রিজেন্ট হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মারা যান।

পরে সন্ধ্যায় উত্তরার ৭ নম্বর সেক্টরের একটি মসজিদে গোসল শেষে মরদেহ উত্তরার রিজেন্ট হাসপাতালে রাখা হয়। সেখান থেকে রাত ১০টায় কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতালের হিমঘরে নেওয়া হয়।

১৯৭৫ সালের ৩০ জুলাই নোয়াখালীতে জন্মগ্রহণ করেন তাজিন আহমেদ। তিনি বেড়ে উঠেছেন পাবনা জেলায়। ঢাকার ইডেন কলেজ থেকে পড়াশোনা শেষ করেছেন এ অভিনেত্রী। অভিনয়ে আসার আগে কাজ করেন সংবাদমাধ্যম ও ব্যাংকে।

১৯৯৬ সালে মা দিলারা জলি রচিত ও শেখ নিয়ামত আলী পরিচালিত ‘শেষ দেখা শেষ নয়’ নাটকে অভিনয়ের মধ্য দিয়ে তাজিন আহমেদের অভিনয় শুরু। এর আগে ১৯৯১ সালে বিটিভিতে প্রচারিত ‘চেতনা’ নামের অনুষ্ঠান উপস্থাপনা করেন।

১৯৯৭ সালে থিয়েটার আরামবাগে যোগ দেন। এরপর নাট্যজন থিয়েটারের হয়ে বেশ কিছু নাটকে অভিনয় করেন। পরবর্তী সময়ে আরণ্যক নাট্যদলের ‘ময়ূর সিংহাসন’ নাটকে অভিনয় করেন। এটি তার অভিনীত সর্বশেষ মঞ্চনাটক। তার সর্বশেষ অভিনীত টিভি নাটক ‘বিদেশি পাড়া’।

সম্প্রতি রাজনীতিতে যোগ দিয়েছিলেন তাজিন। ববি হাজ্জাজের বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী গণতান্ত্রিক আন্দোলনের (এনডিএম) সঙ্গে যুক্ত ছিলেন তিনি। দলটির কেন্দ্রীয় কমিটির বিভাগীয় সম্পাদক (সাংস্কৃতিক) পদে দায়িত্ব পালন করেছেন তাজিন।

Top