আপডেটঃ
ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেলকে বরখাস্ত করছেন ট্রাম্পঈদগাঁহতে আওয়ামীলীগের জনসভাঃ এমপি কমলের লাখ জনতার শোডাউনচট্টগ্রামে জলসা মার্কেটের ছাদে ২ কিশোরী ধর্ষণ, গ্রেপ্তার ৬যশোরের বেনাপোলে সীমান্তে দুই নাইজেরিয়ান নাগরিক আটক“বিএনপি ক্ষমতার লোভে অন্ধ হয়ে গেছে”ঈদগাঁহর জনসভায় রামু থেকে এমপি কমলের নেতৃত্বে যোগ দেবে লক্ষাধিক জনতাসৈকতে অনুষ্ঠিত হলো জাতীয় উন্নয়ন মেলা কনসার্টকর্ণফুলীতে মা সমাবেশশেখ হাসিনার গুডবুক ও দলীয় হাই কমান্ডের তরুণ তালিকায় যারানজিব আমার রাজনৈতিক বাগানের প্রথম ফুটন্ত ফুল- মেয়র মুজিবুর রহমাননাইক্ষ্যংছ‌ড়ি‌তে ডাকাত আনোয়ার বলি ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত‘ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন মুক্তগণমাধ্যমের জন্য বড় বাধা হয়ে দাঁড়াবে’শহীদ জাফর মাল্টিডিসিপ্লিনারী একাডেমিক ভবনের উদ্বোধনসরকারি চাকরিতে কোটা বাতিলে প্রধানমন্ত্রীর অনুমোদনজাতিসংঘ অধিবেশনে যোগ দিতে ঢাকা ছাড়লেন প্রধানমন্ত্রী

চৌফলদন্ডীর সন্তান হিসাবে ইয়াবা নির্মুলে দু একটা কথা আমাকে বলতে হবে

Yaba.jpg

সম্প্রতি ফেইজবুক আইড়িতে ইয়াবা নিয়ে একটি লেখা প্রকাশ করে চৌফলদলন্ডীর md faishal আইড়ি থেকে তা হুবহু প্রকাশ করা হলো ।

চৌফলদন্ডীর সন্তান হিসাবে ইয়াবা নির্মুলে দু একটা কথা আমাকে বলতে হবে। বিষয়টা চৌফলদন্ডী সকল মানুষের জ্ঞাত কিন্তু প্রশাসন ও বিষয় টা নিয়ে কতটুকু সচেতন আমার জানা নেই। বর্তমানে ইয়াবার স্বর্গ রাজ্য হিসাবে টেকনাফের নাম আসলেও অনেকে জানেনা চৌফলদন্ডী ব্রিজের পার্শ্ববর্তী ঘাটটি ইয়াবার ২য় টার্মিনাল হিসাবে ব্যবহ্নত হচ্ছে। এই টার্মিনাল নিয়ে এর আগে হাজার হাজার কোটি টাকার ইয়াবা আটক করা হয়েছিল। আজও অনেকে জেলে আছেন। টেকনাফ রাস্তা চেক পোস্টে সমস্যার কারনে ইয়াবা ব্যবসায়ীরা অতি সহজ নিরাপদ পথ হিসাবে নদী পথে চৌফলদন্ডী এ ঘাটটি ব্যবহ্নত হচ্ছে। ইয়াবা ব্যবসায়ীরা কৌশলে টেকনাফ থেকে নৌ পথে মাছ ধরার নৌকার ভান করে ইয়াবা এনে খুরুস্কুল ওয়াপদার ঝাউ বাগানে মাছ ধরার বোট বিড়িয়ে দিয়ে ঝাউবাগানে নেমে সাধারন মানুষের বেশে কেউ বুঝতে না পারে মত ব্রিজের উপর দিয়ে হেটে চৌফলদন্ডীতে পাচার করে এতে অন্য গ্রুপের লোকেরা বাইক নিয়ে অপেক্ষা করে মাল পৌছার সাথে সাথে বাইক টান দেই। ঈদের আগে প্রতি বছরের ন্যায় কয়েক দিন পর জমজমাট হয়ে উঠবে। প্রশাসন এ বিষয়ে গোয়েন্দার ভিত্তিতে চৌফলদন্ডীতে কারা জড়িত বিষয়টি একটু নজর দিলে সব তথ্য পেতে পারে ইহা খুব একটা কঠিন কাজ নয়। ইয়াবার জন্য তারা আরও একটি ঘাট ব্যবহার করে টেকনাফ থেকে মাল এনে চৌফলদন্ডী ব্রিজের পার্শ্বে দক্ষিন রাখাইন পাড়া নাপ্পি ঘাটের পাশ দিয়ে নৌকা বিড়িয়ে দিয়ে সন্ধ্যাকালীন কিংবা দুপুরবেলা রাস্তায় কেউ আছে কিনা দেখে হুট করে ইয়াবা রাখাইন পাড়ায় পারা পার করে। ঘাট থেকে পাড়ার মধ্যে রাস্তা পারাপার করতে এক মিনিট ও সময় লাগেনা। তাই গোয়েন্দা সংস্থাকে বিষয়টা অতি নজর দারীতে রাখতে হবে। কারা এই ইয়াবার সাথে জড়িত সেটা এলাকার সব মানুষের জানা। ইয়াবা লোকালয়ে পাচার করতে চৌফলদন্ডী ব্রিজের চেয়ে সহজ পথ খুবই কম আছে। টেকনাফ থেকে নৌ পথে সরাসরি চৌফলদন্ডীতে এনে সেখান থেকে পোকখালী দিয়ে ঈদগাহ দিয়ে রাস্তা পথে দেশের বিভিন্ন জায়গায় পাচার হচ্ছে। এই ঘাটটি প্রশাসনের নজরে না আসলে দেশের ইয়াবার পাচার রোধ করা কঠিন হবে। ইতোমধ্যে এলাকায় এ ব্যবসার সাথে জড়িয়ে অনেকে আঙ্গুল পোলে কলাগাছ হয়ে গেছে। ঈদগাহ পোকখালী জালালাবাদ ইসলাম পুর সহ অনেক বড় বড় ইয়াবা চক্র এই পথটি ব্যবহার করছে। তাছাড়া অনেকে এ ব্যবসাকে অতি সহজে বড় লোক হওয়ার পথ হিসাবে গ্রহন করছে। আজকে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বক্তব্য ইয়াবার বিরুদ্ধে যুদ্ধ ঘোষনা করেছেন তাই বিষয়টা জরুরী মনে করেছি। অন্যতায় চৌফলদন্ডীর মত ইয়াবা টার্মিনাল গুলো বন্ধ না করলে দেশে ইয়াবা নির্মুল কখনও সম্ভব হবেনা। তাছাড়া প্রশাসন যদি মনে করেন ইয়াবা নির্মুলে কোন কমিঠি গঠন করবেন এতে আমি ব্যাক্তিগত ভাবে পাশে থাকব …
ইয়াবা প্রচারের রাস্তাঃ
১। খুরুস্কুল ঝাউবাগানের নদীর চর দিয়ে নেমে।
২। ব্রিজের নিছে পুরাতন ফেরি ঘাট দিয়ে।
৩। চৌফলদন্ডী ওয়াপদার নাপ্পি ঘাট দিয়ে।

আমি জানি এই বিষয়টা নিয়ে অনেক বড় বড় ইয়াবা সেন্ডিকেট আমার উপর ক্ষিপ্ত হবেন। আমি জম্মের সময় ভুলে মৃত্যুর লাইসেন্স নিয়ে চলে এসেছি তাই একটু সাহস করলাম। দোয়া করবেন…

Top