আপডেটঃ
আজ চকরিয়া আসছে আইজিপি ড. জাবেদ পাটোয়ারীটেকনাফে ‘ডাকাত আলম’ শীর্ষ ডাকাত নিহতচলে গেলেন ব্রাজিলকে হলুদ জার্সি এনে দেয়া মানুষটিচবির ৫২তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী আজপ্রাথমিক সমাপনী পরীক্ষা শুরু হচ্ছে আজপ্রধানমন্ত্রী’র কাছে ছাত্রলীগ নেতার খোলা চিঠি!কক্সবাজার ও রামুতে বিভিন্ন মাদ্রাসা পরিদর্শনকালে আল্লামা শাহ আহমদ শফী কওমি শিক্ষার গুরুত্ব অনুধাবন করেই সরকার কওমি সনদের স্বীকৃতি দিয়েছেঢাকা টেস্টে বাংলাদেশের বিশাল জয়কক্সবাজার প্রেসক্লাবের সভাপতি মাহবুবর রহমান সম্পাদক আবু তাহের চৌধুরীচকরিয়া পৌরসভা যুবলীগ নেতা মোঃ বেলাল উদ্দিন ফরহাদের মৃত্যুতে রামু উপজেলা যুবলীগের শোকসোলাতানিয়া কেজি এন্ড নুরানী একাডেমীর পি.এস.সি পরীক্ষার্থীদে বিদায় ও সংবর্ধনা অনুষ্ঠান সম্পন্ন‘জনবিচ্ছিন্ন বিএনপি জামাত জ্বালাও পোড়াও এবং মানুষ হত্যার গভীর ষড়যন্ত্রে লিপ্ত রয়েছে’ত্রুটি কাটিয়ে পুরোদমে চট্টগ্রামে গ্যাস সরবরাহকর্ণফুলীতে ‘সাঁকো’ সংগঠনের উদ্যোগে পি.এস.সি পরীক্ষার্থীদের ফ্রি কোচিং সেবা ও বিদায় সংবর্ধনা অনুষ্ঠিতবিমান বন্দর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের পি.এস. সি পরিক্ষাথীদের বিদায় সংবর্ধনা

অবশেষে সাতকানিয়া থানায় মামলা:

sat.jpg

জে জাহেদ চট্টগ্রামঃ

চট্টগ্রামের সাতকানিয়ায় ইফতার সামগ্রী বিতরণের সময় ভিড়ের মধ্যে পদদলনে নয় নারীর নিহত হওয়ার ঘটনায় অবহেলাজনিত মৃত্যুর অভিযোগে উদ্যোক্তা কেএসআরএমের মালিকের বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে।
মঙ্গলবার সকালে সাতকানিয়া থানায় খাগরিয়া ইউনিয়নের বাসিন্দা নিহত হাসিনা আক্তারের স্বামী মোহাম্মদ ইসলাম বাদি হয়ে মামলাটি করেন।
জানিয়ে সাতকানিয়া থানার ওসি রফিকুল হোসেন বলেন, অবহেলা জনিত মৃত্যুর অভিযোগ এনে দণ্ডবিধির ৩০৪ (ক) ও ৩৪ ধারায় কেএসআরএমের ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) মো. শাহজাহানের নাম উল্লেখ করে ইফতার ও যাকাত সামগ্রী বিতরণ ব্যবস্থাপনার সাথে সম্পৃক্ত অজ্ঞাতনামাদের আসামি করে মামলাটি করা হয়েছে।
প্রসঙ্গত, সোমবার সাতকানিয়ার নলুয়া ইউনিয়নের গাটিয়াডাঙ্গা এলাকায় কেএসআরএম এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক মোহাম্মদ শাহজাহানের পৈত্রিক বাড়ির সামনে একটি মাদ্রাসা মাঠে ইফতার ও জাকাত দেওয়ার আয়োজন করে কেএসআরএম কর্তৃপক্ষ।
সেখানে অতিরিক্ত ভিড়ের কারণে ইফতার নিতে আসা ১০জন নিহত হন। ঘটনার পর পুলিশ ও স্থানীয় জনপ্রতিনিধিরা জানিয়েছেন,অতিরিক্ত ভিড়ের কারণে হিটস্ট্রোকে ১০ জন মারা গেছেন।
এ নিয়ে কেএসআরএম কর্তৃপক্ষ জানায়, ১৪ মে (সোমবার) আমাদের কোম্পানির পক্ষ থেকে প্রতি বছরের মতো গরিব ও দুস্থদের মাঝে ইফতার ও যাকাত সামগ্রী বিতরণের ব্যবস্থা করা হয়। এ উপলক্ষে সকাল ৮টায় কোম্পানির ব্যবস্থাপনা পরিচালকের নিজ গ্রাম সাতকানিয়ার নলুয়া ইউনিয়নের ঘাটিয়াডাঙ্গা গ্রামে সব ধরনের প্রস্তুতি নেওয়া হয়।
এর আগে সার্বিক সহযোগিতা ও পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রাখতে স্থানীয় থানা ও প্রশাসনের কাছে মৌখিকভাবে পুলিশ ফোর্স চাওয়া হয়। ওই সামগ্রী বিতরণের আগে নারী পুলিশসহ মোট ১শ’ জন পুলিশ সদস্য ও নিজস্ব দুইশ’ সিকিউরিটি ও স্বেচ্ছাসেবক উপস্থিত ছিল। এসময় যে কোনও ধরনের অপ্রীতিকর পরিস্থিতি এড়াতে একটি অ্যাম্বুলেন্স ও ৩ জন ডাক্তারও প্রস্তুত রাখা হয়।
ওই সামগ্রী বিতরণ শুরু হলে লোক সংখ্যার চাপ বেড়ে যায়। এসময় হুড়োহুড়ি ও তীব্র গরমে হিটস্ট্রোক ও শ্বাস কষ্টে বেশ ক’জন নারী অসুস্থ হয়ে পড়েন। তাদের দ্রুত উদ্ধার করে চিকিৎসার জন্য স্থানীয় হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার সময় ৯ জন এবং হাসপাতালে ১ জন মারা যান। এই ১০ জন নারীর সবার বয়স চল্লিশোর্ধ্ব।
এ অনাকাঙ্ক্ষিত ঘটনার জন্য আমরা আন্তরিকভাবে দুঃখ প্রকাশ করছি। আমাদের কোম্পানি থেকে নিহতদের প্রত্যেকের পরিবারকে ৩ লাখ টাকা এবং অসুস্থদের সার্বিক চিকিৎসার খরচ বহন করা হবে। এছাড়া নিহতদের পরিবারের চাকরিক্ষম সদস্য থাকলে তাদের চাকরি দেওয়ার ব্যবস্থা করা হবে বলে জানান কেএসআরএম গ্রুপের পরিচালক জনাব শাহরিয়ার জাহান।

Top