আপডেটঃ
যে দানে চরম শত্রু থেকে বন্ধু হলেন প্রিয়নবিআসছে শতাব্দীর দীর্ঘতম চন্দ্রগ্রহণ!ঈদে সাত পর্বের নাটকে ঊর্মিলাবাংলাদেশের যে কোনো সংকটে পাশে থাকবে ভারতহৃদয় জেতা ক্রোয়েশিয়া আজ ট্রফিও জিতুক!কক্সবাজার উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের বহুতল অফিস ভবনের নির্মাণ কাজের শুভ উদ্বোধনচট্টগ্রাম পানির ট্যাংক থেকে মা-মেয়ের লাশ উদ্ধারআওয়ামীলীগের প্রার্থী তালিকা প্রায় চূড়ান্ত, ৮৫টি সংসদীয় আসনে আসছে নতুন মুখবহিষ্কৃত এএসআই ইয়াবা সহ ডিবির হাতে গ্রেফতার:চট্টগ্রাম শাহ আমানত মার্কেটে আগুনক্ষমতা চিরস্থায়ী করার পাঁয়তারা করছে সরকার: ফখরুলভিসির বাসভবনে হামলাকারীদের গ্রেফতার করা হচ্ছে, মুক্তিযোদ্ধা কোটা থাকবে: প্রধানমন্ত্রীকার্ডের লেনদেনে আসছে ‘এনএফসি’ প্রযুক্তিফাইনালে ‘ফ্রান্সের বিপক্ষে প্রস্তুত ক্রোয়েশিয়াগ্রামীণ গল্পে প্রসূন

জলকেলিতে মেতে উঠেছে মারমা তরুণ-তরুণীরা  ফাইতংয়ে সাংগ্রাইং পোয়ে ও জলকেলি উৎসব অনুষ্টিত

received_876932255828958.jpeg

 

এম.মনছুর আলম,চকরিয়া:

কক্সবাজারের চকরিয়ায় উপজেলার সীমান্তবর্তী লামার ফাইতং ইউনিয়নস্থ হেডম্যান পাড়ায় জলকেলিতে মেতে উঠেছে মারমা সম্প্রদায়ের হাজারো তরুণ-তরুণীরা।চলছে সাংগ্রাই উৎসব।শনিবার থেকে মারমাদের সাংগ্রাইং এ উৎসব শুরু হয়েছে।বর্ণিল এ উৎসবকে ঘিরে মেতে উঠেছে মারমা জনগোষ্ঠি।১৭এপ্রিল(মঙ্গলবার) বিকাল ৩টার দিকে লামার ফাইতং ইউনিয়নের হেডম্যান পাড়া আয়োজনে প্রাথমিক বিদ্যালয়ের মাঠে জলকেলি (পানি উৎসব) আনুষ্টানিক ভাবে উদ্বোধনের মধ্যদিয়ে অনুষ্ঠিত হয়।এতে শতশত তরুণ-তরুণী একে অপরকে পানি ছিটিয়ে নিজেরা শুদ্ধ করে নেয়।

কনসার্টের তালে তালে নেচে-গেয়ে উল্লাস করছে মারমা সম্প্রদায়ের হাজারো লোকজন।অনুষ্টান উদযাপন কমিটির আহবায়ক ও ফাইতং ইউনিয়ন যুবলীগের সভাপতি থোয়াইংসানু মারমা সভাপতিত্বে অনুষ্টানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে জল ছিটিয়ে অনুষ্টানের শুভ উদ্বোধন করেন,বান্দরবান পার্বত্য জেলা পরিষদের সদস্য ও লামা উপজেলা আওয়ামীলীগের যুগ্ন সম্পাদক মো:মোস্তফা জামাল।এতে উদ্বোধক ছিলেন,ফাইতং ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান জালাল আহমদ কোম্পানি।অনুষ্টানে বিশেষ অতিথি ছিলেন,ফাইতং ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি হেলাল উদ্দিন,সাধারণ সম্পাদক মো: ওমর ফারুক,চকরিয়া প্রেস ক্লাবের সাবেক সিনিয়র সহ-সভাপতি ও দৈনিক ইত্তেফাক পত্রিকার প্রতিনিধি এম এইচ আরমান চৌধুরী,প্রেস ক্লাবের নির্বাহী সদস্য ও দৈনিক সাঙ্গু পত্রিকার প্রতিনিধি এম মনছুর আলম,ফাইতং ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সভাপতি সাদ্দাম হোসেন জয়,সাধারণ সম্পাদক শরিফুল ইসলাম সৌরভসহ স্থানীয় জনপ্রতিনিধি, সামাজিক সাংস্কৃতিক সংগঠনের বিভিন্ন ব্যাক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন।উল্লেখ্য যে,মারমা সম্প্রদায়ের সাংগ্রাইং পোয়ে এ অনুষ্টানের আকর্ষনীয় ও ঐতিহ্যবাহী দিক হচ্ছে, জলকেলি বা জলোৎসব।পুরাতন বর্ষকে বিদায় আর নতুন বর্ষকে বরণ করার এ উৎসবকে মারমা সম্প্রদায় প্রধান সামাজিক উৎসব হিসেবে বহুবছর ধরে পালন করে আসছে। মারমা তরুণ-তরুণীরা একে অপরের গায়ে পানি নিক্ষেপ করে উল্লাস প্রকাশের মাধ্যমে তাদের ভাবের আদান-প্রদান করে।মার্মা জনগোষ্ঠীর বিশ্বাস এই পানি উৎসবের মধ্য দিয়ে অতীতের সকল দু:খ-গ্লানি ও পাপ ধুয়ে-মুছে যাবে।সে সাথেই মারমা তরুণ-তরুণীরা একে অপরকে পানি ছিটিয়ে সম্পর্কের সেতু বন্ধন তৈরি করে বেছে নেবে তাদের জীবন সঙ্গীকে।এ উৎসব উপলক্ষে আশ-পাশের শত শত পাহাড়ি নারী-পুরুষ এবং বিভিন্ন দর্শনার্থী ভিড় জমায় জলকেলি উৎসব দেখতে।

Top