আপডেটঃ
কর্ণফুলীতে কাজী ব্যবসা রমরমা, বিভ্রান্তিতে জনগণ২০২১ সালে চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফির পরিবর্তে টি-টুয়েন্টি বিশ্বকাপভারতের পক্ষে কথা বলার অধিকার কে দিয়েছে: কাদেরকে ফখরুলবিদেশি শক্তি কাউকে ক্ষমতায় বসাতে পারে না : ওবায়দুল কাদেরবাল্যবিবাহ ও মাদক যুব সমাজ ধ্বংসের একটি উন্নয়নশীল দেশের বড় অশনি সংকেত -সহকারী পুলিশ সুপার মতিউলতারেকের কাছে পাসপোর্ট নেই, দেশে ফিরতে লাগবে ট্রাভেল পাসপ্রধানমন্ত্রী সিডনির পথে ব্যাংকক পৌঁছেছেনমে মাসে ১৫তম শিক্ষক নিবন্ধনের বিজ্ঞপ্তিচট্টগ্রামের সীতাকুন্ডে যাত্রীর সর্বস্ব লুটে নিয়েছে বাসের চালক, আটক ৮মাতার বাড়ীর ইয়াবা কায়সারের বহুতল ভবন সহ সম্পদের পাহাড়চট্টগ্রামে চাকায় পিষ্ট হয়ে কলেজছাত্রী নিহত‘চট্টগ্রামগামী চলন্ত ট্রেনে তারা নাচছিল, লাশ দুটি এর ছাদেই ছিল’চট্টগ্রাম দক্ষিণ জেলায় ছাত্রলীগের নেতৃত্বে বোরহান ও তাহের এর সাফল্যের ৬ মাসশার্শায় সড়ক গুলিতে দাপিয়ে বেড়াচ্ছে ট্রাক্টর : মরছে নিরহ মানুষ পকেট ভারি করছে প্রভাবশালী ও প্রশাসনের অসাধু ব্যক্তিরাট্রেনের ছাদে ভ্রমণ,২ শিশুর মৃত্যু

সিরিয়ায় ফের হামলা হলে গোটা বিশ্বে ‘বিশৃঙ্খলা’ দেখা দিবে: পুতিন

Putin.jpg

ওয়ান নিউজ ডেক্সঃ রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন পশ্চিমা বিশ্বকে সতর্ক করে বলেছেন, সিরিয়ায় আরেকটি হামলা হলে গোটা বিশ্বে ‘বিশৃঙ্খলা’ দেখা দিবে। রবিবার তিনি এসব কথা বলেন। তবে কি তৃতীয় বিশ্বযুদ্ধ দরজায় কড়া নাড়ছে? সরাসরি না বললেও রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনের নতুন হুঁশিয়ারি থেকে কিন্তু এমন আশঙ্কাই প্রবল হচ্ছে।

পশ্চিমাদের এই হামলা সিরিয়ায় সাত বছর ধরে চলে আসা সংঘাতের রাজনৈতিক সমাধানের সম্ভাবনা নষ্ট হয়ে গেছে বলে পুতিন ও ইরানের প্রেসিডেন্ট হাসান রুহানি একমত হন। দুই নেতা টেলিফোনে আলাপ করেন। এদিকে ওয়াশিংটন নতুন করে অর্থনৈতিক অবরোধ আরোপে রাশিয়ার উপর ক্রমাগত চাপ দিয়ে যাচ্ছে।

প্রসঙ্গত, ৭ এপ্রিল দুমায় রাসায়নিক অস্ত্র প্রয়োগ করে নিজের দেশেরই সাধারণ মানুষজনকে হত্যার অভিযোগ রয়েছে সিরিয়ার বাশার আল আসাদের প্রশাসনের বিরুদ্ধে। আসাদ যতই সে অভিযোগ অস্বীকার করুন না কেন, মানতে রাজি নয় হোয়াইট হাউস। রাশিয়ার উপর চাপ বাড়িয়ে মার্কিন প্রশাসনের দাবি, আসাদকে সাহায্য করছেন রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন।

শোনা যাচ্ছে, এ জন্য রাশিয়ার উপর নিষেধাজ্ঞা জারির কথাও বিবেচনা করছে মার্কিন প্রশাসন। যদিও মার্কিন নিষেধাজ্ঞার আশঙ্কাকে খুব একটা গুরুত্ব দিচ্ছে না মস্কো। জানা গিয়েছে নিষেধাজ্ঞার মুখে পড়লে পাল্টা ব্যবস্থা হিসেবে বেশ কয়েকটা মার্কিন পণ্যের আমদানি বন্ধ করে দিতে পারে পুতিন প্রশাসন।

Top