আপডেটঃ
হাইকোর্টে জামিন পেলেন চকরিয়া উপজেলা চেয়ারম্যান জাফর আলমইতালিতে ব্যস্ততম সেতু ধসে বহু হতাহতের শঙ্কাঘরেই তৈরি করুন রঙিন স্যান্ডউইচনির্বাচন বানচালের ষড়যন্ত্র করছে বিএনপি : কাদেরঅবশেষে জুটি বাঁধছেন দীপিকা-সালমানকক্সবাজার সাংবাদিক ইউনিয়নের জাতীয় শোক দিবসের আলোচনা সভা৩১ জনের দলেও জায়গা হলো না নাসির-তাসকিনেররাতে আসছে গোলাম সারওয়ারের মরদেহঢাবিতে ভর্তি আবেদনের সময় দুই দিন বাড়লোচট্টগ্রামে পুলিশকে ফাঁকি দিয়ে আসামির পলায়নশার্শার নাভারনে বই সামনে রেখেই হোমিওপ্যাথিক মেডিকেল পরীক্ষা প্রদানের সংবাদ প্রকাশ হওয়ায় তোলপাড় : তদন্ত কমিটি গঠনযশোরের নাভারনে এক কিশোরের ঝুলন্ত লাশ উদ্ধারযশোরের নওয়াপাড়ায় ডক্টরস্ ক্লিনিকে রোগীর পেটে গজ রেখে সেলাইরাজারকুলের সাবেক মেম্বার মুক্তিযোদ্ধা বিন্টু মোহন বড়ুয়া পরকালে – এমপি কমলসহ বিভিন্ন মহলের শোক প্রকাশচট্টগ্রামে আসল দুদকের হাতে নকল দুদক কর্মকর্তা গ্রেফতার

চিকিৎসক ও কর্মকর্তাদের বর্ষবরণ ও পারিবারিক মিলনমেলা

301.jpg

নিজস্ব প্রতিবেদক:

কক্সবাজার সদর উপজেলার নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ নোমান হোসেন প্রিন্স বলেছেন, চিকিৎসক ও স্বাস্থ্য বিভাগের সাথে জড়িত কর্মকর্তাদের মানবতার কল্যাণে নিজেকে বিলিয়ে দিতে হবে। দুস্থ-অসহায়-গরীব মানুষের মুখে হাসি ফুটাতে হবে। চিকিৎসা সেবার পাশাপাশি মানবতার কল্যাণে সেবার মানসিকতা গড়তে হবে। বাংলাদেশ এখন বিশ্বের সাথে তাল মিলিয়ে এগিয়ে যাচ্ছে। স্বাস্থ্য খাতসহ সকল ক্ষেত্রে অনেক বেশী উন্নয়ন হয়েছে। সরকার আন্তরিকভাবে জনগনের জন্য কাজ করে যাচ্ছে। তাই সরকারের সকল মহতি উদ্যোগ বাস্তবায়নে চিকিৎসক ও স্বাস্থ্য বিভাগের কর্মকর্তাদের ভূমিকা অতুলনীয়। তিনি ১৪ এপ্রিল ১লা বৈশাখ ১৪২৫ বঙ্গাব্দ সদর উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তার কার্যালয়, ও কক্সবাজার বক্ষব্যাধি ক্লিনিক আয়োজিত বর্ষ বরণ ও পারিবারিক মিলনমেলায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে উপরোক্ত কথা বলেন।

উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. রফিক-উস-ছালেহীন এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সমগ্র অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন জেলা স্বাস্থ্য তত্বাবধায়ক সিরাজুল ইসলাম সবুজ। সার্বিক সহযোগিতায় ছিলেন ওই কার্যালয়ের মেডিকেল অফিসার ডা. জাহিদুল মোস্তফা, ক্যাশিয়ার হাবিবুর রহমান, প্রধান সহকারী মো: আলী, অফিস সহকারী মো: গিয়াস উদ্দিন, স্বাস্থ্য পরিদর্শক (ইনচার্জ) জমিরুল হক, স্বাস্থ্য পরিদর্শক বিকাশ চন্দ্র দে, সহকারী স্বাস্থ্য পরিদর্শক বিজয় কুমার ভট্টচার্য, ভারপ্রাপ্ত স্টোর কিপার আমিনুল্লাহ শাহ, এমটি (ইপিআই) বাবুল আক্তার, সিএইচসিপি হামিদ হাসান, স্বাস্থ্য সহকারী দেলোয়ার হোছাইন এবং টিএলসিএ মিসবাহ উদ্দিন। অনুষ্ঠানে আমন্ত্রিত অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন কক্সবাজার সদর হাসপাতালের কার্ডিওলজিস্ট ডা. লুৎফুন্নাহার, কক্সবাজার মেডিকেল কলেজের মাইক্রোবায়োলজির প্রভাষক ডা. সোনিয়া আফরোজ, ডা. রুপস পাল, ডা. তৃণা সাহা, ডা. গোলাম মোস্তফা নাদিম, সদর হাসপাতালর আরএমও ডা. আলী আহসান, সার্জারি কনসালটেন্ট ডা. সারোয়ার, সিভিল সার্জন অফিসের প্রধান সহকারী রফিকুল ইসলাম ও হিসাব রক্ষক জনাব আব্দুল মান্নান প্রমুখ। এর আগে বর্ণাঢ্য মঙ্গল শোভাযাত্রা বের করা হয়। পরে নিজস্ব শিল্পীদের নিয়ে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান, মধ্যাহ্ন ভোজ ও আকর্ষনীয় র‍্যাফেল ড্র এর মাধ্যমে অনুষ্ঠানের সমাপ্তি হয়।

Top