আপডেটঃ
কর্ণফুলীতে কাজী ব্যবসা রমরমা, বিভ্রান্তিতে জনগণ২০২১ সালে চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফির পরিবর্তে টি-টুয়েন্টি বিশ্বকাপভারতের পক্ষে কথা বলার অধিকার কে দিয়েছে: কাদেরকে ফখরুলবিদেশি শক্তি কাউকে ক্ষমতায় বসাতে পারে না : ওবায়দুল কাদেরবাল্যবিবাহ ও মাদক যুব সমাজ ধ্বংসের একটি উন্নয়নশীল দেশের বড় অশনি সংকেত -সহকারী পুলিশ সুপার মতিউলতারেকের কাছে পাসপোর্ট নেই, দেশে ফিরতে লাগবে ট্রাভেল পাসপ্রধানমন্ত্রী সিডনির পথে ব্যাংকক পৌঁছেছেনমে মাসে ১৫তম শিক্ষক নিবন্ধনের বিজ্ঞপ্তিচট্টগ্রামের সীতাকুন্ডে যাত্রীর সর্বস্ব লুটে নিয়েছে বাসের চালক, আটক ৮মাতার বাড়ীর ইয়াবা কায়সারের বহুতল ভবন সহ সম্পদের পাহাড়চট্টগ্রামে চাকায় পিষ্ট হয়ে কলেজছাত্রী নিহত‘চট্টগ্রামগামী চলন্ত ট্রেনে তারা নাচছিল, লাশ দুটি এর ছাদেই ছিল’চট্টগ্রাম দক্ষিণ জেলায় ছাত্রলীগের নেতৃত্বে বোরহান ও তাহের এর সাফল্যের ৬ মাসশার্শায় সড়ক গুলিতে দাপিয়ে বেড়াচ্ছে ট্রাক্টর : মরছে নিরহ মানুষ পকেট ভারি করছে প্রভাবশালী ও প্রশাসনের অসাধু ব্যক্তিরাট্রেনের ছাদে ভ্রমণ,২ শিশুর মৃত্যু

চিকিৎসক ও কর্মকর্তাদের বর্ষবরণ ও পারিবারিক মিলনমেলা

301.jpg

নিজস্ব প্রতিবেদক:

কক্সবাজার সদর উপজেলার নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ নোমান হোসেন প্রিন্স বলেছেন, চিকিৎসক ও স্বাস্থ্য বিভাগের সাথে জড়িত কর্মকর্তাদের মানবতার কল্যাণে নিজেকে বিলিয়ে দিতে হবে। দুস্থ-অসহায়-গরীব মানুষের মুখে হাসি ফুটাতে হবে। চিকিৎসা সেবার পাশাপাশি মানবতার কল্যাণে সেবার মানসিকতা গড়তে হবে। বাংলাদেশ এখন বিশ্বের সাথে তাল মিলিয়ে এগিয়ে যাচ্ছে। স্বাস্থ্য খাতসহ সকল ক্ষেত্রে অনেক বেশী উন্নয়ন হয়েছে। সরকার আন্তরিকভাবে জনগনের জন্য কাজ করে যাচ্ছে। তাই সরকারের সকল মহতি উদ্যোগ বাস্তবায়নে চিকিৎসক ও স্বাস্থ্য বিভাগের কর্মকর্তাদের ভূমিকা অতুলনীয়। তিনি ১৪ এপ্রিল ১লা বৈশাখ ১৪২৫ বঙ্গাব্দ সদর উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তার কার্যালয়, ও কক্সবাজার বক্ষব্যাধি ক্লিনিক আয়োজিত বর্ষ বরণ ও পারিবারিক মিলনমেলায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে উপরোক্ত কথা বলেন।

উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. রফিক-উস-ছালেহীন এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সমগ্র অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন জেলা স্বাস্থ্য তত্বাবধায়ক সিরাজুল ইসলাম সবুজ। সার্বিক সহযোগিতায় ছিলেন ওই কার্যালয়ের মেডিকেল অফিসার ডা. জাহিদুল মোস্তফা, ক্যাশিয়ার হাবিবুর রহমান, প্রধান সহকারী মো: আলী, অফিস সহকারী মো: গিয়াস উদ্দিন, স্বাস্থ্য পরিদর্শক (ইনচার্জ) জমিরুল হক, স্বাস্থ্য পরিদর্শক বিকাশ চন্দ্র দে, সহকারী স্বাস্থ্য পরিদর্শক বিজয় কুমার ভট্টচার্য, ভারপ্রাপ্ত স্টোর কিপার আমিনুল্লাহ শাহ, এমটি (ইপিআই) বাবুল আক্তার, সিএইচসিপি হামিদ হাসান, স্বাস্থ্য সহকারী দেলোয়ার হোছাইন এবং টিএলসিএ মিসবাহ উদ্দিন। অনুষ্ঠানে আমন্ত্রিত অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন কক্সবাজার সদর হাসপাতালের কার্ডিওলজিস্ট ডা. লুৎফুন্নাহার, কক্সবাজার মেডিকেল কলেজের মাইক্রোবায়োলজির প্রভাষক ডা. সোনিয়া আফরোজ, ডা. রুপস পাল, ডা. তৃণা সাহা, ডা. গোলাম মোস্তফা নাদিম, সদর হাসপাতালর আরএমও ডা. আলী আহসান, সার্জারি কনসালটেন্ট ডা. সারোয়ার, সিভিল সার্জন অফিসের প্রধান সহকারী রফিকুল ইসলাম ও হিসাব রক্ষক জনাব আব্দুল মান্নান প্রমুখ। এর আগে বর্ণাঢ্য মঙ্গল শোভাযাত্রা বের করা হয়। পরে নিজস্ব শিল্পীদের নিয়ে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান, মধ্যাহ্ন ভোজ ও আকর্ষনীয় র‍্যাফেল ড্র এর মাধ্যমে অনুষ্ঠানের সমাপ্তি হয়।

Top