আপডেটঃ
ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেলকে বরখাস্ত করছেন ট্রাম্পঈদগাঁহতে আওয়ামীলীগের জনসভাঃ এমপি কমলের লাখ জনতার শোডাউনচট্টগ্রামে জলসা মার্কেটের ছাদে ২ কিশোরী ধর্ষণ, গ্রেপ্তার ৬যশোরের বেনাপোলে সীমান্তে দুই নাইজেরিয়ান নাগরিক আটক“বিএনপি ক্ষমতার লোভে অন্ধ হয়ে গেছে”ঈদগাঁহর জনসভায় রামু থেকে এমপি কমলের নেতৃত্বে যোগ দেবে লক্ষাধিক জনতাসৈকতে অনুষ্ঠিত হলো জাতীয় উন্নয়ন মেলা কনসার্টকর্ণফুলীতে মা সমাবেশশেখ হাসিনার গুডবুক ও দলীয় হাই কমান্ডের তরুণ তালিকায় যারানজিব আমার রাজনৈতিক বাগানের প্রথম ফুটন্ত ফুল- মেয়র মুজিবুর রহমাননাইক্ষ্যংছ‌ড়ি‌তে ডাকাত আনোয়ার বলি ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত‘ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন মুক্তগণমাধ্যমের জন্য বড় বাধা হয়ে দাঁড়াবে’শহীদ জাফর মাল্টিডিসিপ্লিনারী একাডেমিক ভবনের উদ্বোধনসরকারি চাকরিতে কোটা বাতিলে প্রধানমন্ত্রীর অনুমোদনজাতিসংঘ অধিবেশনে যোগ দিতে ঢাকা ছাড়লেন প্রধানমন্ত্রী

১০৩ মার্কিন ক্ষেপণাস্ত্রের ৭১ টি আকাশেই ধ্বংস করা হয়েছে: রাশিয়া

Syria..jpg

ওয়ান নিউজ ডেক্সঃ সিরিয়ার আকাশ প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা যুক্তরাষ্ট্র এবং তাদের মিত্র যুক্তরাজ্য ও ফ্রান্সের নিক্ষেপ করা ১০৩টি ক্রুজ মিসাইলের ৭১টিই মাঝ আকাশে ধ্বংস করে দেয় বলে দাবি করেছে রাশিয়া।

শনিবার মস্কোয় এক সংবাদ সম্মেলনে লে. জেনারেল সেরগেই রুদস্কয় এমন দাবি করেছেন। খবর: আলজাজিরা।

এই রুশ জেনারেল বলেন, সিরিয়ার কয়েকটি লক্ষ্যবস্তুতে টমাহক ক্রুজ মিসাইলসহ কমপক্ষে ১০৩টি ক্ষেপণাস্ত্র নিক্ষেপ করা হয়েছিল। এর মধ্যে ৭১টিই মাঝ আকাশে ধ্বংস করে দেয় সিরিয়ার আকাশ প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা।

তিনি আরো বলেন, ‘সিরিয়ার আকাশ প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা পুরোপুরি পুনঃস্থাপন করেছে রাশিয়া এবং গত ছয় মাস ধরে এটাকে আরো উন্নত করা হচ্ছে।’

রাশিয়ার প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় জানায়, হামলা প্রতিহত করতে রাশিয়ার তৈরি এস-১২৫, এস-২০০, ২কে১২ কাব অ্যান্ড বাক-সহ ভূমি থেকে আকাশে নিক্ষেপযোগ্য বিভিন্ন ক্ষেপণাস্ত্র মোতায়েন করেছে সিরিয়া।

মার্কিন নেতৃত্বাধীন এই হামলার লক্ষ্যবস্তুগুলোর একটি ছিল রাজধানী দামেস্কের বাইরে অবস্থিত আল-দুমাইর সামরিক বিমানবন্দর। এই বিমানবন্দর লক্ষ্য করে ছোঁড়া ১২টি ক্ষেপণাস্ত্রের সবক’টি মাঝ আকাশে ধ্বংস করা হয়েছে বলেও দাবি করেছে রাশিয়া।

রুদস্কয় আরো জানান, ভূমধ্যসাগরে থাকা কমপক্ষে একটি মার্কিন যুদ্ধজাহাজ এবং মার্কিন বি-১ বোমারু বিমান হামলায় যুক্ত ছিল। একই সঙ্গে টর্নেডো যুদ্ধজাহাজ ব্যবহার করেছে যুক্তরাজ্য।

গত সপ্তাহে বিদ্রোহীদের নিয়ন্ত্রণে থাকা দুমা এলাকায় আসাদ বাহিনীর সন্দেহভাজন রাসায়নিক অস্ত্র হামলার জবাবে শনিবার সিরিয়ায় এই হামলা চালায় যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাজ্য ও ফ্রান্স।

এক বিবৃতিতে পেন্টাগন জানিয়েছে, কমপক্ষে ৫৮টি ক্ষেপণাস্ত্র সিরিয়ার শায়রাত বিমানঘাঁটিতে আঘাত হেনেছে। অভিযানে টমাহক ক্রুজ মিসাইল ব্যবহার করা হয়ে বলে রয়টার্স মার্কিন কর্মকর্তাদের উদ্ধৃতি দিয়ে জানায়।

যুক্তরাজ্যের রয়্যাল এয়ার ফোর্স জানিয়েছে, অভিযানে চারটি টর্নেডো জিআর৪এস যুদ্ধবিমান অংশ নিয়েছিল। অন্যদিকে মিরেজ ও রাফায়েল যুদ্ধবিমান হামলায় অংশ নিয়েছিল বলে জানিয়েছে ফ্রান্স।

ফরাসী কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, তাদের সামরিক বাহিনী সিরিয়ায় কমপক্ষে ১২টি ক্ষেপণাস্ত্র নিক্ষেপ করেছে। এসব ক্ষেপণাস্ত্রের একটিও ধ্বংস করা যায়নি বলে তাদের বিশ্বাস।

Top