আপডেটঃ
বান্দরবান হবে উন্নয়নের রোল মডেল: প্রধানমন্ত্রীমাহবুব তালুকদারের বক্তব্য ব্যক্তিগত ও অসত্য: সিইসিপ্রধান নির্বাচন কমিশনার ‘মেরুদণ্ডহীন’: চরমোনাই পীরপ্রেসক্লাবের ভোটগ্রহণ শেষ: ফলাফলের অপেক্ষাগুগলের পরিষেবা ব্যবহারে বিভ্রাটব্যারিস্টার মইনুল হোসেন ৬ মাসের জামিনসাহু সেজদার বিধান দেয়ার কারণ কী?ভোটের দিন ৩০ ডিসেম্বর (রোববার) সাধারণ ছুটিনির্বাচনের সুষ্ঠু পরিবেশ না থাকার অভিযোগ ভিত্তিহীন : সিইসিবিএনপি প্রার্থী কাজলের প্রচার কর্মী আজিজুল হককে অতর্কিতভাবে হামলানির্বাচনী ঘটনায় ভূট্টো ও মাবুদ চেয়ারম্যান সহ ৮০ জনকে আসামী করে দু’টি মামলাপার্থে জিতে ভারতের সাথে সিরিজ সমতায় অস্ট্রেলিয়ালাশ হলে নিরাপত্তা নিয়ে কী করব : কনকচাঁপাজামায়াতের ২৫ নেতার প্রার্থিতার রিট ৩ দিনের মধ্যে নিষ্পত্তির নির্দেশসিইসির সঙ্গে আইজিপি-ডিএমপি কমিশনারের বৈঠক

১০৩ মার্কিন ক্ষেপণাস্ত্রের ৭১ টি আকাশেই ধ্বংস করা হয়েছে: রাশিয়া

Syria..jpg

ওয়ান নিউজ ডেক্সঃ সিরিয়ার আকাশ প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা যুক্তরাষ্ট্র এবং তাদের মিত্র যুক্তরাজ্য ও ফ্রান্সের নিক্ষেপ করা ১০৩টি ক্রুজ মিসাইলের ৭১টিই মাঝ আকাশে ধ্বংস করে দেয় বলে দাবি করেছে রাশিয়া।

শনিবার মস্কোয় এক সংবাদ সম্মেলনে লে. জেনারেল সেরগেই রুদস্কয় এমন দাবি করেছেন। খবর: আলজাজিরা।

এই রুশ জেনারেল বলেন, সিরিয়ার কয়েকটি লক্ষ্যবস্তুতে টমাহক ক্রুজ মিসাইলসহ কমপক্ষে ১০৩টি ক্ষেপণাস্ত্র নিক্ষেপ করা হয়েছিল। এর মধ্যে ৭১টিই মাঝ আকাশে ধ্বংস করে দেয় সিরিয়ার আকাশ প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা।

তিনি আরো বলেন, ‘সিরিয়ার আকাশ প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা পুরোপুরি পুনঃস্থাপন করেছে রাশিয়া এবং গত ছয় মাস ধরে এটাকে আরো উন্নত করা হচ্ছে।’

রাশিয়ার প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় জানায়, হামলা প্রতিহত করতে রাশিয়ার তৈরি এস-১২৫, এস-২০০, ২কে১২ কাব অ্যান্ড বাক-সহ ভূমি থেকে আকাশে নিক্ষেপযোগ্য বিভিন্ন ক্ষেপণাস্ত্র মোতায়েন করেছে সিরিয়া।

মার্কিন নেতৃত্বাধীন এই হামলার লক্ষ্যবস্তুগুলোর একটি ছিল রাজধানী দামেস্কের বাইরে অবস্থিত আল-দুমাইর সামরিক বিমানবন্দর। এই বিমানবন্দর লক্ষ্য করে ছোঁড়া ১২টি ক্ষেপণাস্ত্রের সবক’টি মাঝ আকাশে ধ্বংস করা হয়েছে বলেও দাবি করেছে রাশিয়া।

রুদস্কয় আরো জানান, ভূমধ্যসাগরে থাকা কমপক্ষে একটি মার্কিন যুদ্ধজাহাজ এবং মার্কিন বি-১ বোমারু বিমান হামলায় যুক্ত ছিল। একই সঙ্গে টর্নেডো যুদ্ধজাহাজ ব্যবহার করেছে যুক্তরাজ্য।

গত সপ্তাহে বিদ্রোহীদের নিয়ন্ত্রণে থাকা দুমা এলাকায় আসাদ বাহিনীর সন্দেহভাজন রাসায়নিক অস্ত্র হামলার জবাবে শনিবার সিরিয়ায় এই হামলা চালায় যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাজ্য ও ফ্রান্স।

এক বিবৃতিতে পেন্টাগন জানিয়েছে, কমপক্ষে ৫৮টি ক্ষেপণাস্ত্র সিরিয়ার শায়রাত বিমানঘাঁটিতে আঘাত হেনেছে। অভিযানে টমাহক ক্রুজ মিসাইল ব্যবহার করা হয়ে বলে রয়টার্স মার্কিন কর্মকর্তাদের উদ্ধৃতি দিয়ে জানায়।

যুক্তরাজ্যের রয়্যাল এয়ার ফোর্স জানিয়েছে, অভিযানে চারটি টর্নেডো জিআর৪এস যুদ্ধবিমান অংশ নিয়েছিল। অন্যদিকে মিরেজ ও রাফায়েল যুদ্ধবিমান হামলায় অংশ নিয়েছিল বলে জানিয়েছে ফ্রান্স।

ফরাসী কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, তাদের সামরিক বাহিনী সিরিয়ায় কমপক্ষে ১২টি ক্ষেপণাস্ত্র নিক্ষেপ করেছে। এসব ক্ষেপণাস্ত্রের একটিও ধ্বংস করা যায়নি বলে তাদের বিশ্বাস।

Top