আপডেটঃ
কক্সবাজারে ইপসা’র নিরাপদ অভিবাসন বিষয়ক প্রশিক্ষণ সভা অনুষ্ঠিতমিডিয়ার হাত বেঁধে দিয়েছে সরকার : নজরুলদলে নেই মুশফিক-মোস্তাফিজ, অভিষেক দু’জনেরগোলদিঘীর সৌন্দর্য্য বর্ধন, মাস্টার প্ল্যান ও ইমারত নির্মাণ বিধিমালা- ১৯৯৬ নিয়ে ৮ ও ৯নং ওয়ার্ডের জনসাধারণের সাথে কউকের মতবিনিময় সভা সম্পন্নকর্ণফুলীতে সিপিপি স্বেচ্চাসেবক সম্মাননা-২০১৮ এর জন্য মনোনিত হলেন যারাচট্টগ্রামে গ্ল্যাস্কো কারখানার শ্রমিকদের মহাসড়ক অবরোধকক্সবাজারে ‘শেখ হাসিনার উন্নয়নের গল্প’ প্রচারে ছাত্রনেতা ইশতিয়াকমাঝির কাটা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে দুর্যোগ মোকাবেলা শীর্ষক মতবিনিময় সভায় বিশ্বব্যাংক প্রতিনিধিচট্টগ্রাম কলেজে অস্ত্র হাতে মহড়া:শংকিত সাধারন শিক্ষার্থীরাচট্টগ্রামে এক ওসির বিরুদ্ধে আদালত অবমাননার অভিযোগরামুতে শহীদ লিয়াকত স্মৃতি বৃত্তি পরীক্ষা-২১ সেপ্টেম্বরবিএনপির ১৭৩ প্রার্থী প্রায় চূড়ান্তরামুর গর্জনিয়ায় বজ্রপাতে একই পরিবারের নারীসহ আহত ৫কক্সবাজারে প্রথম নির্মিত হচ্ছে সি,আই কোম্পানি ইন্ডাস্ট্রিজেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে দূর্যোগ ব্যবস্থাপনার জন্য ইওসি স্থাপন

বাংলাদেশে অনেক কাজ করতে চাই : ঋতুপর্ণা

rituporna.jpg

ওয়ান নিউজ বিনোদন ডেক্সঃ কলকাতার সিনেমা ইন্ডাস্ট্রিকে একটা সময়ে প্রসেনজিতের সাথে টিকিয়ে রেখেছিলেন ঋতুপর্ণা সেনগুপ্ত। নব্বই দশকের শেষভাগে ঢালিউডেও কাজ করেছেন তিনি। এমনও হয়েছে প্রতি মাসে কয়েকবার করে এপার-ওপার করতে হয়েছে।

১৯৯৭ সালে ‘স্বামী কেন আসামি’ দিয়ে বাংলাদেশে যাত্রা শুরু করেন। সর্বশেষ নঈম ইমতিয়াজ নেয়ামুলের ‘এক কাপ চা’ সিনেমায় দীর্ঘ ক্যামিওতে দেখা যায়। এতবছর পর আবারো বাংলাদেশের সিনেমায় নিয়মিত হওয়ার আশা ব্যক্ত করলেন ঋতুপর্ণা।

‘বাংলাদেশের সাথে আমার অনেক বছরের সম্পর্ক। প্রত্যেকটা মুহূর্ত আমি মিস করেছি। অনেক বছর পর আমার একটা সিনেমা এখানে মুক্তি পেতে যাচ্ছে। আপনাদের দোয়া, আর্শীবাদ চাই। আমি সত্যি এখানে অনেক কাজ করতে চাই। জানি না এখানে রেস্ট্রিকশন, পারমিশনের বিষয় থাকে। আপনারা আইন সম্পর্কে ভালো বলতে পারবেন। কিন্তু আমি একজন শিল্পী— আমি আমার সীমানার বাইরেও কাজ করতে চাই।’

ঋতুপর্ণা যোগ করেন, ‘বাংলাদেশের চলচ্চিত্র এখন অনেক উন্নত। অনেক বড় বড় জায়গায় যাচ্ছে। অনেক মেধাবীরা আসছে। সারা পৃথিবীতে সিনেমা নিয়ে রেভ্যুলেশন হচ্ছে। লিপু (সামনে বসা প্রযোজক গোলাম কিবরিয়া লিপুর উদ্দেশ্যে) ভাইয়ের একটা সিনেমা করেছিলাম। আমি আবার আপনাদের সহযোগিতা চাই।’

বুধবার নায়ক আলমগীর পরিচালিত ‘একটি সিনেমার গল্প’র গান প্রকাশনা অনুষ্ঠানে এসব কথা বলেন তিনি। আরিফিন শুভ’র বিপরীতে অভিনয় করেছেন তিনি।

‘একটি সিনেমার গল্প’ নিয়ে বেশ উচ্চাশা প্রকাশ করলেন ঋতুপর্ণা। তিনি বলেন, ‘কিছু কিছু সিনেমা মানুষের মনে রেখাপাত করে। কিছু সিনেমাকে মানুষ প্রাণের সিনেমা বলে। এটি সেরকমই একটি সিনেমা।’

‘আলমগীর ভাই অনেক বড় একজন অভিনেতা। তার সাথে এর আগেও আমার অভিনয়ের সুযোগ হয়েছিল। তাকে আমরা যারা ব্যক্তিগতভাবে চিনি-জানি, তারা বলতে পারব উনি কত বড় মাপের মানুষ। যখন উনি বললেন এরকম একটি সিনেমা বানাবেন তখন নিজেকে একজন আশীর্বাদপ্রাপ্ত মনে হয়েছে’—সিনেমাটিতে যুক্ত হওয়ার কারণ হিসেবে বললেন ঋতুপর্ণা।

বেশ সুশৃঙ্খল একটি ইউনিটের সাথে কাজ করলেও কাঠখোট্টা ছিল না কেউই। ‘আলমগীর ভাইয়ের সেন্স অব হিউমার অসাধারণ। তিনি বলতেন, তোমরা আনন্দ করো কিন্তু আমার এটা চাই-ই। এবং তিনি আদায় করে ছাড়তেন।’

সিনেমাটির গানের প্রশংসাও করেন ঋতুপর্ণা। রুনা লায়লার প্রথম সুর করা গানে অভিনয় তার জন্য আশীর্বাদ বললেন।

আরিফিন শুভ’র প্রশংসা করে বলেন, ‘আরিফিন শুভকে আপনারা নতুন রূপে পাবেন। সে অসাধারণ অভিনয় করেছে।’

আলমগীর পরিচালিত পঞ্চম সিনেমা ‘একটি সিনেমার গল্প’। শুক্রবার ৫০টির মতো হলে মুক্তি পেতে যাচ্ছে। প্রযোজনা করছে আইকন এন্টারটেনমেন্ট।

Top