আপডেটঃ
কর্ণফুলীতে কাজী ব্যবসা রমরমা, বিভ্রান্তিতে জনগণ২০২১ সালে চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফির পরিবর্তে টি-টুয়েন্টি বিশ্বকাপভারতের পক্ষে কথা বলার অধিকার কে দিয়েছে: কাদেরকে ফখরুলবিদেশি শক্তি কাউকে ক্ষমতায় বসাতে পারে না : ওবায়দুল কাদেরবাল্যবিবাহ ও মাদক যুব সমাজ ধ্বংসের একটি উন্নয়নশীল দেশের বড় অশনি সংকেত -সহকারী পুলিশ সুপার মতিউলতারেকের কাছে পাসপোর্ট নেই, দেশে ফিরতে লাগবে ট্রাভেল পাসপ্রধানমন্ত্রী সিডনির পথে ব্যাংকক পৌঁছেছেনমে মাসে ১৫তম শিক্ষক নিবন্ধনের বিজ্ঞপ্তিচট্টগ্রামের সীতাকুন্ডে যাত্রীর সর্বস্ব লুটে নিয়েছে বাসের চালক, আটক ৮মাতার বাড়ীর ইয়াবা কায়সারের বহুতল ভবন সহ সম্পদের পাহাড়চট্টগ্রামে চাকায় পিষ্ট হয়ে কলেজছাত্রী নিহত‘চট্টগ্রামগামী চলন্ত ট্রেনে তারা নাচছিল, লাশ দুটি এর ছাদেই ছিল’চট্টগ্রাম দক্ষিণ জেলায় ছাত্রলীগের নেতৃত্বে বোরহান ও তাহের এর সাফল্যের ৬ মাসশার্শায় সড়ক গুলিতে দাপিয়ে বেড়াচ্ছে ট্রাক্টর : মরছে নিরহ মানুষ পকেট ভারি করছে প্রভাবশালী ও প্রশাসনের অসাধু ব্যক্তিরাট্রেনের ছাদে ভ্রমণ,২ শিশুর মৃত্যু

বাংলাদেশে অনেক কাজ করতে চাই : ঋতুপর্ণা

rituporna.jpg

ওয়ান নিউজ বিনোদন ডেক্সঃ কলকাতার সিনেমা ইন্ডাস্ট্রিকে একটা সময়ে প্রসেনজিতের সাথে টিকিয়ে রেখেছিলেন ঋতুপর্ণা সেনগুপ্ত। নব্বই দশকের শেষভাগে ঢালিউডেও কাজ করেছেন তিনি। এমনও হয়েছে প্রতি মাসে কয়েকবার করে এপার-ওপার করতে হয়েছে।

১৯৯৭ সালে ‘স্বামী কেন আসামি’ দিয়ে বাংলাদেশে যাত্রা শুরু করেন। সর্বশেষ নঈম ইমতিয়াজ নেয়ামুলের ‘এক কাপ চা’ সিনেমায় দীর্ঘ ক্যামিওতে দেখা যায়। এতবছর পর আবারো বাংলাদেশের সিনেমায় নিয়মিত হওয়ার আশা ব্যক্ত করলেন ঋতুপর্ণা।

‘বাংলাদেশের সাথে আমার অনেক বছরের সম্পর্ক। প্রত্যেকটা মুহূর্ত আমি মিস করেছি। অনেক বছর পর আমার একটা সিনেমা এখানে মুক্তি পেতে যাচ্ছে। আপনাদের দোয়া, আর্শীবাদ চাই। আমি সত্যি এখানে অনেক কাজ করতে চাই। জানি না এখানে রেস্ট্রিকশন, পারমিশনের বিষয় থাকে। আপনারা আইন সম্পর্কে ভালো বলতে পারবেন। কিন্তু আমি একজন শিল্পী— আমি আমার সীমানার বাইরেও কাজ করতে চাই।’

ঋতুপর্ণা যোগ করেন, ‘বাংলাদেশের চলচ্চিত্র এখন অনেক উন্নত। অনেক বড় বড় জায়গায় যাচ্ছে। অনেক মেধাবীরা আসছে। সারা পৃথিবীতে সিনেমা নিয়ে রেভ্যুলেশন হচ্ছে। লিপু (সামনে বসা প্রযোজক গোলাম কিবরিয়া লিপুর উদ্দেশ্যে) ভাইয়ের একটা সিনেমা করেছিলাম। আমি আবার আপনাদের সহযোগিতা চাই।’

বুধবার নায়ক আলমগীর পরিচালিত ‘একটি সিনেমার গল্প’র গান প্রকাশনা অনুষ্ঠানে এসব কথা বলেন তিনি। আরিফিন শুভ’র বিপরীতে অভিনয় করেছেন তিনি।

‘একটি সিনেমার গল্প’ নিয়ে বেশ উচ্চাশা প্রকাশ করলেন ঋতুপর্ণা। তিনি বলেন, ‘কিছু কিছু সিনেমা মানুষের মনে রেখাপাত করে। কিছু সিনেমাকে মানুষ প্রাণের সিনেমা বলে। এটি সেরকমই একটি সিনেমা।’

‘আলমগীর ভাই অনেক বড় একজন অভিনেতা। তার সাথে এর আগেও আমার অভিনয়ের সুযোগ হয়েছিল। তাকে আমরা যারা ব্যক্তিগতভাবে চিনি-জানি, তারা বলতে পারব উনি কত বড় মাপের মানুষ। যখন উনি বললেন এরকম একটি সিনেমা বানাবেন তখন নিজেকে একজন আশীর্বাদপ্রাপ্ত মনে হয়েছে’—সিনেমাটিতে যুক্ত হওয়ার কারণ হিসেবে বললেন ঋতুপর্ণা।

বেশ সুশৃঙ্খল একটি ইউনিটের সাথে কাজ করলেও কাঠখোট্টা ছিল না কেউই। ‘আলমগীর ভাইয়ের সেন্স অব হিউমার অসাধারণ। তিনি বলতেন, তোমরা আনন্দ করো কিন্তু আমার এটা চাই-ই। এবং তিনি আদায় করে ছাড়তেন।’

সিনেমাটির গানের প্রশংসাও করেন ঋতুপর্ণা। রুনা লায়লার প্রথম সুর করা গানে অভিনয় তার জন্য আশীর্বাদ বললেন।

আরিফিন শুভ’র প্রশংসা করে বলেন, ‘আরিফিন শুভকে আপনারা নতুন রূপে পাবেন। সে অসাধারণ অভিনয় করেছে।’

আলমগীর পরিচালিত পঞ্চম সিনেমা ‘একটি সিনেমার গল্প’। শুক্রবার ৫০টির মতো হলে মুক্তি পেতে যাচ্ছে। প্রযোজনা করছে আইকন এন্টারটেনমেন্ট।

Top