আপডেটঃ
যে দানে চরম শত্রু থেকে বন্ধু হলেন প্রিয়নবিআসছে শতাব্দীর দীর্ঘতম চন্দ্রগ্রহণ!ঈদে সাত পর্বের নাটকে ঊর্মিলাবাংলাদেশের যে কোনো সংকটে পাশে থাকবে ভারতহৃদয় জেতা ক্রোয়েশিয়া আজ ট্রফিও জিতুক!কক্সবাজার উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের বহুতল অফিস ভবনের নির্মাণ কাজের শুভ উদ্বোধনচট্টগ্রাম পানির ট্যাংক থেকে মা-মেয়ের লাশ উদ্ধারআওয়ামীলীগের প্রার্থী তালিকা প্রায় চূড়ান্ত, ৮৫টি সংসদীয় আসনে আসছে নতুন মুখবহিষ্কৃত এএসআই ইয়াবা সহ ডিবির হাতে গ্রেফতার:চট্টগ্রাম শাহ আমানত মার্কেটে আগুনক্ষমতা চিরস্থায়ী করার পাঁয়তারা করছে সরকার: ফখরুলভিসির বাসভবনে হামলাকারীদের গ্রেফতার করা হচ্ছে, মুক্তিযোদ্ধা কোটা থাকবে: প্রধানমন্ত্রীকার্ডের লেনদেনে আসছে ‘এনএফসি’ প্রযুক্তিফাইনালে ‘ফ্রান্সের বিপক্ষে প্রস্তুত ক্রোয়েশিয়াগ্রামীণ গল্পে প্রসূন

প্রধানমন্ত্রীকে মাদার অব এডুকেশন উপাধি দিল শিক্ষার্থীরা

Kota.jpg

ওয়ান নিউজ ডেক্সঃ কোটাপ্রথা বাতিলের ঘোষণা দেওয়ায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে মাদার অব এডুকেশন উপাধি দিয়েছেন কোটা সংস্কার দাবিতে আন্দোলনরত শিক্ষার্থীরা। আজ বৃহস্পতিবার ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) ছাত্র শিক্ষক কেন্দ্রের সামনে রাজু ভাস্কর্যের পাদদেশে সংবাদ সম্মেলন করে তারা এ উপাধি দেন। আন্দোলনের প্রেক্ষিতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বুধবার কোটা পদ্ধতিই বাতিল করার ঘোষণা দেওয়ার পর নিজেদের অবস্থান জানাতে আজ বৃহস্পতিবার সকাল পর্যন্ত সময় নেন শিক্ষার্থীরা। এরপর এ সংবাদ সম্মেলন ডাকা হয়েছে।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের রাজু ভাস্কর্যের সামনে এক সংবাদ সম্মেলনে আন্দোলনের নেতারা এই ঘোষণা দেন। নেতারা জানান, আন্দোলন প্রত্যাহার বা বাতিল নয়, প্রধানমন্ত্রীর ঘোষণা অনুযায়ী কোটা ব্যবস্থা বাতিলের প্রজ্ঞাপন জারি পর্যন্ত আন্দোলন স্থগিত ঘোষণা করছেন তারা। একইসঙ্গে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য ড. মো. আখতারুজ্জামানের বাসভবনে হামলা ও ভাঙচুরসহ বিশ্ববিদ্যালয় এলাকায় সহিংসতার ঘটনায় দায়ের করা সব মামলা প্রত্যাহার ও আন্দোলনের সময় দেশের বিভিন্ন জায়গায় আট শিক্ষার্থীদের মুক্তি দেওয়ার দাবি জানিয়েছেন।

আন্দোলনকারীদের প্ল্যাটফর্ম  ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদের যুগ্ম আহ্বায়ক মো. উজ্জ্বল মিয়া আজ বৃহস্পতিবার সকালে বলেন, প্রধানমন্ত্রীর সিদ্ধান্তের প্রতি আস্থা রেখে আমরা আমাদের আন্দোলন প্রত্যাহার করে নিচ্ছি। আমরা বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনকে শুধু একটাই অনুরোধ করব, কোনো মামলা দিয়ে আমাদের সাধারণ আন্দোলনকারীদের যেন হয়রানি করা না হয়।

গত কয়েক দিন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের রাজু ভাস্কর্যের সামনে যেখানে অবস্থান নিয়ে বিক্ষোভ দেখিয়ে আসছিলেন আন্দোলনকারীরা, সেখান থেকেই কিছুক্ষণের মধ্যে আন্দোলন প্রত্যাহারের আনুষ্ঠানিক ঘোষণা দেওয়া হবে বলে জানান উজ্জ্বল। তিনি বলেন, পরে আমরা আনন্দ মিছিল করব। প্রধানমন্ত্রীর জন্য ফুল নিয়ে যাব। আর ধানমণ্ডি ৩২ নম্বরে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা নিবেদন করব।

Top