আপডেটঃ
যে দানে চরম শত্রু থেকে বন্ধু হলেন প্রিয়নবিআসছে শতাব্দীর দীর্ঘতম চন্দ্রগ্রহণ!ঈদে সাত পর্বের নাটকে ঊর্মিলাবাংলাদেশের যে কোনো সংকটে পাশে থাকবে ভারতহৃদয় জেতা ক্রোয়েশিয়া আজ ট্রফিও জিতুক!কক্সবাজার উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের বহুতল অফিস ভবনের নির্মাণ কাজের শুভ উদ্বোধনচট্টগ্রাম পানির ট্যাংক থেকে মা-মেয়ের লাশ উদ্ধারআওয়ামীলীগের প্রার্থী তালিকা প্রায় চূড়ান্ত, ৮৫টি সংসদীয় আসনে আসছে নতুন মুখবহিষ্কৃত এএসআই ইয়াবা সহ ডিবির হাতে গ্রেফতার:চট্টগ্রাম শাহ আমানত মার্কেটে আগুনক্ষমতা চিরস্থায়ী করার পাঁয়তারা করছে সরকার: ফখরুলভিসির বাসভবনে হামলাকারীদের গ্রেফতার করা হচ্ছে, মুক্তিযোদ্ধা কোটা থাকবে: প্রধানমন্ত্রীকার্ডের লেনদেনে আসছে ‘এনএফসি’ প্রযুক্তিফাইনালে ‘ফ্রান্সের বিপক্ষে প্রস্তুত ক্রোয়েশিয়াগ্রামীণ গল্পে প্রসূন

ঢাবিতে আন্দোলনরত ছাত্রীকে মারধর, ছাত্রলীগ নেত্রী বহিস্কার

iffat.jpg

পিবিডি: কোটা সংস্কারের আন্দোলনে যোগ দেওয়ায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) বেগম সুফিয়া কামাল হলের এক ছাত্রীকে মারধর করে রক্তাক্ত করেছে হলটির ছাত্রলীগ সভাপতি ইফফাত জাহান ইশা। আহত অবস্থায় ওই ছাত্রীকে উদ্ধারের পর ঘটনাটি দ্রুত ছড়িয়ে পড়ে ক্যাম্পসে। এ সময় আশে পাশের হল থেকে বেরিয়ে এসে ছাত্ররা সুফিয়া কামাল হলের সামনে জড়ো হয়ে বিক্ষোভ করে। এ ঘটনায় তাৎক্ষণিকভাবে ছাত্রলীগ নেত্রী ইশাকে দল থেকে বহিষ্কার করা হয়। একই সঙ্গে তাকে হল থেকেও বহিস্কার করা হয়েছে।

মঙ্গলবার মধ্যরাতে এ ঘটনা ঘটে। বিষয়টি নিয়ে বিক্ষোভ শুরুর পর পরই তাৎক্ষণিকভাবে ছাত্রলীগ সভাপতি সাইফুর রহমান সোহাগ ও সাধারণ সম্পাদক এস এম জাকির হোসেন স্বাক্ষরিত বিবৃতিতে বলা হয়, ইশাকে দলীয় শৃঙ্খলাভঙ্গের দায়ে বহিস্কার করা হয়েছে।

ওই ঘটনার পর বিশ্ববিদ্যায় কর্তৃপক্ষের এক জরুরী সভায় ইশাকে বিশ্ববিদ্যালয় হল থেকে সাময়িক বহিস্কারের সিদ্ধান্ত নেয়া হয়।
পাশাপাশি এশাকে বেগম সুফিয়া কামাল হল থেকে বহিস্কার করে ঢাবি কর্তৃপক্ষ। প্রক্টর অধ্যাপক গোলাম রাব্বানী এশাকে হল থেকে বহিস্কারের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। এ সময় শিক্ষার্থীদের শান্ত থাকার জন্য তিনি আহবান জানান।

ছাত্রলীগ নেত্রীর মারধরের শিকার আহত ওই ছাত্রীর নাম মুর্শিদা আক্তার। তিনি বিশ্ববিদ্যালয়ের উদ্ভিদবিদ্যা বিভাগের ছাত্রী ও সুফিয়া কামাল হলের আবাসিক শিক্ষার্থী।ঢাকা সরকারি কর্মচারী হাসপাতালে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে।

হলটির আবাসিক ছাত্রীরা জানান, কোটা সংস্কার আন্দোলনের পক্ষে থেকে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে প্রচারণা চালান মুর্শিদা আক্তার। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে ওই হলের ছাত্রলীগ সভাপতি ইফফাত জাহান ইশাসহ বেশ কয়েকজন মঙ্গলবার রাত একটার দিকে মুর্শিদাকে ব্যাপক মারধর করে। এসময় শরীরের বেশ কয়েক জায়গায় জখম হলে মুর্শিদার শরীর থেকে ব্যাপক রক্তক্ষরণ হয়। পরে রাত দেড়টার দিকে তাকে উদ্ধার করে সুফিয়া কামাল হলের পার্শবর্তী ঢাকা সরকারি কর্মচারী হাসপাতালে পাঠনো হয়।

গভীর রাতে হলের নিরাপত্তায় অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। এ প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত সময়ে ছাত্রীরা নিজ নিজ হলের ভেতরে থেকে স্লোগান দিচ্ছিন।

Top