আপডেটঃ
কক্সবাজারে ইপসা’র নিরাপদ অভিবাসন বিষয়ক প্রশিক্ষণ সভা অনুষ্ঠিতমিডিয়ার হাত বেঁধে দিয়েছে সরকার : নজরুলদলে নেই মুশফিক-মোস্তাফিজ, অভিষেক দু’জনেরগোলদিঘীর সৌন্দর্য্য বর্ধন, মাস্টার প্ল্যান ও ইমারত নির্মাণ বিধিমালা- ১৯৯৬ নিয়ে ৮ ও ৯নং ওয়ার্ডের জনসাধারণের সাথে কউকের মতবিনিময় সভা সম্পন্নকর্ণফুলীতে সিপিপি স্বেচ্চাসেবক সম্মাননা-২০১৮ এর জন্য মনোনিত হলেন যারাচট্টগ্রামে গ্ল্যাস্কো কারখানার শ্রমিকদের মহাসড়ক অবরোধকক্সবাজারে ‘শেখ হাসিনার উন্নয়নের গল্প’ প্রচারে ছাত্রনেতা ইশতিয়াকমাঝির কাটা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে দুর্যোগ মোকাবেলা শীর্ষক মতবিনিময় সভায় বিশ্বব্যাংক প্রতিনিধিচট্টগ্রাম কলেজে অস্ত্র হাতে মহড়া:শংকিত সাধারন শিক্ষার্থীরাচট্টগ্রামে এক ওসির বিরুদ্ধে আদালত অবমাননার অভিযোগরামুতে শহীদ লিয়াকত স্মৃতি বৃত্তি পরীক্ষা-২১ সেপ্টেম্বরবিএনপির ১৭৩ প্রার্থী প্রায় চূড়ান্তরামুর গর্জনিয়ায় বজ্রপাতে একই পরিবারের নারীসহ আহত ৫কক্সবাজারে প্রথম নির্মিত হচ্ছে সি,আই কোম্পানি ইন্ডাস্ট্রিজেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে দূর্যোগ ব্যবস্থাপনার জন্য ইওসি স্থাপন

কেন খালেদার সাজা বাড়ানো হবে না: হাইকোর্ট

Khaleda-zia-1.jpg

ওয়ান নিউজ ডেক্সঃ জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার সাজা কেন বাড়ানো হবে না তা জানতে চেয়ে রুল দিয়েছেন হাইকোর্ট। বুধবার বিচারপতি এম ইনায়েতুর রহিম ও বিচারপতি সহিদুল করিমের যুগ্ম-বেঞ্চ এই রুল দেন।
সাজা বাড়াতে দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) করা আবেদনের ওপর প্রাথমিক শুনানি নিয়ে রাষ্ট্রপক্ষ ও খালেদা জিয়াকে একমাসের মধ্যে রুলের জবাব দেয়ার নির্দেশ দিয়েছেন হাইকোর্ট।

এই মামলায় খালেদা জিয়ার করা আপিলের সঙ্গে রুলের শুনানি একসঙ্গে হবে বলেও সিদ্ধান্ত দিয়েছেন আদালত।

দুদকের আইনজীবী খুরশীদ আলম খান আদালত থেকে বের হয়ে জানান, মামলার প্রধান আসামি খালেদা জিয়াকে সহযোগী আসামিদের তুলনায় অপর্যাপ্ত সাজা দেয়ায় সাজা বাড়ানোর আবেদন করেছে দুদক। এই আবেদনের প্রাথমিক শুনানি নিয়ে আজ রুল দিয়েছেন আদালত।

একই বেঞ্চে খালাস এবং জামিন চেয়ে খালেদা জিয়াও আবেদন করেছেন। খালেদা জিয়ার আবেদনের শুনানি করে আদালত চার মাসের জামিন এবং এসময়ের মধ্যে এই মামলার পেপারবুক প্রস্তুতের নির্দেশ দিয়েছে হাইকোর্টের সংশ্লিষ্ট শাখাকে। অবশ্য পরে আপিল বিভাগ জামিন স্থগিত করে।

প্রসঙ্গত, গত ৮ ফেব্রুয়ারি বিচারিক আদালত খালেদা জিয়াকে পাঁচ বছরের কারাদণ্ড দেন। আর মামলার অপর আসামিদের ১০ বছর করে কারাদণ্ড দেন আদালত। রায়ের পর থেকে কারাগারে আছেন খালেদা জিয়া।

Top