আপডেটঃ
২৫ ঘন্টা পর ২ শিক্ষার্থীর লাশ উদ্ধারকক্সবাজার পৌরসভার নৌকার মাঝি মুজিব চেয়ারম্যানগুরুতর অসুস্থ পর্নো অভিনেত্রী সানি লিওনব্রাজিল জিতল ২-০ গোলে‘নির্বাচনে জয়ী হতে গিয়ে যেন দলের বদনাম না হয়’সৌদি নারীরা রোববার থেকে গাড়ি চালাবেনবাস ডোবায় পড়ে নিহত ৩, আহত ৫জনকে চমেকে ভর্তিগণধর্ষণের ঘটনায় খাগড়াছড়িতে মানববন্ধনতিন সিটিতে নৌকার মাঝি হলেন লিটন, সাদিক ও কামরানইনজুরি টাইমের গোলে ব্রাজিলের জয়প্রথমার্ধে কোস্টারিকার বিপক্ষে ০-০ হট ফেবারিট ব্রাজিলনাইজেরিয়ার বিপক্ষে নামার আগেই সাম্পাওলির বিদায়?বিএনপির সঙ্গে প্রেম করার কোনো সুযোগ নেই-কাদেরনাইজেরিয়া-আইসল্যান্ড ম্যাচে ভাগ্য ঝুলছে আর্জেন্টিনারব্রাজিলের ফিরে আসার ম্যাচ, নাকি…?

মহাসচিবকে ধরেও গ্রেফতার এড়াতে পারলেন না ছাত্রদল নেতা রাজ

BNP-Raz.jpg

ওয়ান নিউজঃ বিএনপির চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে দলটির অবস্থান কর্মসূচি ভণ্ডুল করে দিয়েছে পুলিশ। পূর্বঘোষণা অনুযায়ী বৃহস্পতিবার ঢাকাসহ সারাদেশে অবস্থান কর্মসূচি পালন করার কথা ছিল বিএনপির। এরই অংশ হিসেবে সকাল থেকে জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে জড়ো হন দলটির নেতাকর্মীরা। তবে বিএনপিকে অবস্থান কর্মসূচি পালন করতে দেয়নি পুলিশ। দুপুর পৌনে ১২টার দিকে লাঠিচার্জ করে দলটির নেতাকর্মীদের ছত্রভঙ্গ করে দেয়া হয়। এসময় মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরকে দুই হাত দিয়ে জড়িয়ে ধরেও গ্রেফতার এড়াতে পারলেন না ছাত্রদল উত্তরের সভাপতি মিজানুর রহমান রাজ।

সূত্রে জানা যায়, কর্মসূচি শুরুর পর বক্তব্য দেন বিএনপির কেন্দ্রীয় নেতারা। এক পর্যায়ে বেলা ১১টা ৪৫ মিনিটে কেন্দ্রীয় নেতাদের সামনে থেকে মিজানুর রহমান রাজসহ আরও দুইজনকে গ্রেপ্তার করে সাদা পোশাকে অবস্থান নেয়া পুলিশ। গ্রেপ্তারের সময় দলটির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর ঘটনাস্থলে ছিলেন। পরে পুলিশের বাধায় অবস্থান কর্মসূচি বন্ধ হয়ে যায়।

বিএনপির প্রচার সম্পাদক শহীদউদ্দিন চৌধুরী অ্যানি এ তথ্য নিশ্চিত করে বলেন, ‘পুলিশি বাধার মুখে আমাদের এ অবস্থান কর্মসূচি ভণ্ডুল হয়ে গেছে। আমরা এর তীব্র প্রতিবাদ জানাচ্ছি।’

অবস্থান কর্মসূচিতে অংশ নিতে জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে উপস্থিত হয়েছিলেন- বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, স্থায়ী কমিটির সদস্য আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী, ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদ, ভাইস চেয়ারম্যান আবদুল আউয়াল মিন্টু, চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা জয়নুল আবদিন ফারুক, সাংগঠনিক সম্পাদক রুহুল কুদ্দুস তালুকদার দুলু, প্রচার সম্পাদক শহীদ উদ্দীন চৌধুরী এ্যানি, মহিলা দলের সভানেত্রী আফরোজা আব্বাস, ছাত্রদলের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মামুনুর রশিদ মামুনসহ অন্যরা।

গত মঙ্গলবার নয়াপল্টনে সংবাদ সম্মেলন করে প্রেসক্লাবের সামনে এই কর্মসূচি পালনের কথা জানান বিএনপির জ্যেষ্ঠ যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী। যদিও এর আগে নয়াপল্টনে দলীয় কার্যালয়ের সামনে কর্মসূচি পালনের কথা জানিয়েছিলেন তিনি। পরে স্থান পরিবর্তন করে প্রেসক্লাবের সামনে করার কথা জানানো হয়। আজ সেখানেও কর্মসূচি পালন করতে পারলেন না বিএনপির নেতাকর্মীরা।

এর আগে, গত ২২ ফেব্রুয়ারি সমাবেশের কর্মসূচি পালন করতে না পেরে ২৪ ফেব্রুয়ারি কালো পতাকা প্রদর্শন কর্মসূচি ঘোষণা করে দলটি। কিন্তু পুলিশি বাধায় তাদের কর্মসূচি পণ্ড হয়ে যায়। আটক হন দলের অনেক নেতাকর্মী। অন্যদিকে মঙ্গলবার মানববন্ধন কর্মসূচি থেকে যাওয়ার পথে স্বেচ্ছাসেবক দলের সভাপতি শফিউল বারী বাবুকে আটক করে গোয়েন্দা পুলিশ।

গত ৮ ফেব্রুয়ারি জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট মামলায় বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার সাজার প্রতিবাদে চার দফার কর্মসূচি পালন করা হয়। এদিকে ১২ মার্চ আবারও ঢাকায় সমাবেশের ঘোষণা দিয়েছে বিএনপি। এবার তারা সমাবেশের অনুমতির বিষয়েও আশাবাদী। জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট মামলায় পাঁচ বছরের সাজাপ্রাপ্ত হয়ে খালেদা জিয়া কারাগারে যাওয়ার পর এটি বিএনপির পঞ্চম দফা কর্মসূচি।

উল্লেখ্য, গত ৮ ফেব্রুয়ারি বৃহস্পতিবার দুপুরে পুরান ঢাকার বকশীবাজারে স্থাপিত বিশেষ জজ আদালতের বিচারক ড. মো. আখতারুজ্জামান জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট মামলায় রায় ঘোষণা করেন। রায়ে বিএনপির চেয়ারপারসন ও সাবেক প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়াকে পাঁচ বছর এবং সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমান, মাগুরার সাবেক সংসদ সদস্য (এমপি) কাজী সালিমুল হক কামাল, ব্যবসায়ী শরফুদ্দিন আহমেদ, প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের সাবেক সচিব কামাল উদ্দিন সিদ্দিকী ও প্রয়াত রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমানের ভাগ্নে মমিনুর রহমানকে ১০ বছর করে কারাদণ্ডাদেশ এবং দুই কোটি ১০ লাখ টাকা জরিমানা করা হয়। ৮ ফেব্রুয়ারি রায় ঘোষণার পর থেকেই পুরান ঢাকার কেন্দ্রীয় কারাগারে আছেন বিএনপির চেয়ারপারসন ও সাবেক প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়া।প্রায় একমাস ধরে কারাগারে তিনি।

Top