আপডেটঃ
২৫ ঘন্টা পর ২ শিক্ষার্থীর লাশ উদ্ধারকক্সবাজার পৌরসভার নৌকার মাঝি মুজিব চেয়ারম্যানগুরুতর অসুস্থ পর্নো অভিনেত্রী সানি লিওনব্রাজিল জিতল ২-০ গোলে‘নির্বাচনে জয়ী হতে গিয়ে যেন দলের বদনাম না হয়’সৌদি নারীরা রোববার থেকে গাড়ি চালাবেনবাস ডোবায় পড়ে নিহত ৩, আহত ৫জনকে চমেকে ভর্তিগণধর্ষণের ঘটনায় খাগড়াছড়িতে মানববন্ধনতিন সিটিতে নৌকার মাঝি হলেন লিটন, সাদিক ও কামরানইনজুরি টাইমের গোলে ব্রাজিলের জয়প্রথমার্ধে কোস্টারিকার বিপক্ষে ০-০ হট ফেবারিট ব্রাজিলনাইজেরিয়ার বিপক্ষে নামার আগেই সাম্পাওলির বিদায়?বিএনপির সঙ্গে প্রেম করার কোনো সুযোগ নেই-কাদেরনাইজেরিয়া-আইসল্যান্ড ম্যাচে ভাগ্য ঝুলছে আর্জেন্টিনারব্রাজিলের ফিরে আসার ম্যাচ, নাকি…?

শিশুদের কাছেও শেখার আছে মা-বাবার

Child-Mother.jpg

ওয়ান নিউজ ডেক্সঃ শিশুদের প্রথম শিক্ষক হচ্ছে তার মা-বাবা।  তাদের কাছ থেকে সব কিছু শেখে শিশুরা।  আধুনিক প্রযুক্তির এই যুগে ইন্টারনেটের বদৌলতে এখনকার সময়ের শিশুরা আরও বেশি আপডেট।  তবে শুধু শিশুরাই যে বাবা-মায়ের কাছ থেকে শেখে এমনটি নয়, বরং মা-বাবারও তাদের কাছে কিছু শেখার আছে।  কারণ শেখার কোনো বয়স নেই।  সন্তানদের কাছ থেকে কী শিক্ষা নেবেন তা জানিয়ে দিচ্ছে টাইমস অব ইন্ডিয়া- 

অন্যকে সম্মান করতে শেখায়শিশুরা কথা না শুনলে মা-বাবা অকারণে চিৎকার চেঁচামেচি করেন।  এটা ঠিক নয়।  আপনি যখন রেগে যান তখন আপনার সন্তান কিন্তু আপনার উপর রাগে না।  বরং শান্তভাবে সে আপনার কথার জবাব দেয়।  আসলে সে আপনাকে সম্মান করে বলেই এমনটি করে থাকে।  তাই শিশুদের কাছ থেকে মা-বাবা এ শিক্ষাটা নিতেই পারেন।  আপনার মানসিক অবস্থা যাই থাকুক না কেন সন্তানের সঙ্গে নম্রভাবে কথা বলুন।

ভারসাম্য বজায় রেখে চলাছোট থেকে বড় হওয়ার সময় শিশুদের নানা চ্যালেঞ্জ মোকাবেলা করতে হয়।  কাজেই তাদের কাছ থেকে ভারসাম্য বজায় রেখে চলার কৌশলটা মা-বাবা শিখে নিতেই পারেন। পেশাগত কিংবা পারিবারিক জীবনে তারা অনেক সংকটে পড়তে পারেন।  জীবনে যতই উত্থান-পতন আসুক না কেন সবসময় নিজের ইতিবাচক মনোভাব বজায় রাখুন।  তাহলে যে কোন কঠিন পরিস্থিতি সহজেই মোকাবেলা করতে পারবেন।

সুখ আপনার হাতেশিশুরা সবসময় হাসে।  আর সন্তানের সেই হাসিমাখা মুখ দেখে প্রত্যেক মা-বাবা সুখী বোধ করেন।  সবসময় হাসিখুশি থাকার এই শিক্ষাটাও আপনি সন্তানের কাছ থেকে নিতে পারেন।

বর্তমানকে উপভোগ করুনশিশুরা স্কুলে গেলে প্রত্যেক মা-বাবাই তাদের লেখাপড়া, স্বাস্থ্য এবং ক্যারিয়ার নিয়ে চিন্তায় থাকেন।  সবসময় এমন চিন্তা করাও ঠিক নয়।  কারণ সারাক্ষণ মানসিক চাপে থাকলে আপনি স্বাস্থ্যগত সমস্যায় পড়তে পারেন।  তাই নিজের বর্তমান সময়টা আরও উপভোগ্য করে তুলুন।

নিজেকে নিয়ন্ত্রণ করার শিক্ষাশিশুরা সবসময় চকলেট, আইসক্রিম, চিপস খেতে পছন্দ করে।  কিন্তু অনেক শিশু আছে যারা বন্ধুদের সঙ্গে থাকলেও স্বাস্থ্যক্ষতির আশঙ্কায় বারবার এসব খাবার খাওয়া থেকে নিজেকে বিরত রাখে।  ছোট বয়স থেকেই নিজেকে নিয়ন্ত্রণ করার এই শিক্ষাটাও কিন্তু প্রত্যেক মা-বাবা কিন্তু শিশুদের কাছ থেকে নিতে পারেন।

Top