আপডেটঃ
কক্সবাজারের  হাফেজ ইয়াসিন আরাফাত সংবর্ধিতরোহিঙ্গারা আগের মতোই নৃশংসতার ঝুঁকিতে : ইউরোপীয় পার্লামেন্টউখিয়ার রোহিঙ্গা ক্যাম্পে ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় সম্পাদক এসএম জাকির হোসাইন এর ঔষুধ বিতরণ:স্বার্থপর নিষ্ঠুর সমাজের উৎপাদন ধর্ষকউন্নয়নের প্রতীক নৌকাকে জয়ী করতে ঐক্যবদ্ধ হোন- সাফিয়া খাতুনঅনার্স ৪র্থ বর্ষের ফল প্রকাশসোমবারই চালু হচ্ছে ফোর-জিসমুদ্র সৈকতের বীচ কর্মী শহিদুল্লা রানার চাদাঁবাজিতে অতিষ্ঠ সাধারন হকাররা।নেগেটিভ চরিত্রেও বাজিমাত করেছেন এই নায়করা!নতুন আইনে সৌদিতে বেকার হবেন কয়েক লাখ শ্রমিকশ্রীলঙ্কার সিরিজ জয়, না টাইগারদের ঘুরে দাঁড়ানো?বেগম জিয়ার মুক্তি ছাড়া নির্বাচনে যাবে না বিএনপিসাতকানিয়ায় নদী ভাঙন প্রতিরোধ বাঁধ ধসে যাওয়ার আশঙ্কাশার্শায় ধর্মসভায় উস্কানিমুলক বক্তব্য দেয়ায় মাওলানা আল গালিব গ্রেফতারকারাবন্দিদের মাঝে আইনগত সহায়তা বৃদ্ধি বিষয়ক সভা

খুটাখালীর পীর হাফেজ মাওলানা আবদুল হাই হুজুর আর নেই

FB_IMG_1516586780843.jpg

 

সৈয়দ আলম, কক্সবাজার

চকরিয়ার খুটাখালীর পীর ও প্রখ্যাত আলেমেদ্বীন হাফেজ মাওলানা আবদুল হাই ২২ জানুয়ারি রাত ২টা ৪০ মিনিটে আলীকদম সরকারি স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ইন্তেকাল করেছেন (ইন্নালিল্লাহি ওয়াইন্না ইলাইহি রাজেউন)। মৃত্যুকালে তাঁর বয়স হয়েছিল ৮০ বছর। উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের কর্তব্যরত ডাক্তার উপ-সহকারি মেডিকেল অফিসার মো. আমিনুল ইসলাম তাঁর মৃত্যু নিশ্চিত করেছেন।

 

রবিবার দিবাগত রাত সোয়া একটার সময় তাঁকে হাসপাতালে আনা হয়। এ সময় তিনি তীব্র শ্বাসকষ্টে ভূগছিলেন বলে কর্তব্যরত ডাক্তার ও উপস্থিত শুভকাঙ্খীরা জানান।

রবিবার (২১ জানুয়ারি) আলীকদম বাজার ব্যবসায়ীদের উদ্যোগে অনুষ্ঠিত সীরাতুন্নবী সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম মাহফিলের দ্বিতীয় অধিবেশনে তাঁর সভাপতিত্ব করা কথা ছিলো।

বাজার ব্যবসায়ী সমিতির সভাপতি নাছির উদ্দিন সওদাগর জানান, ‘হুজুর আমার বাসায় রবিবার বিকেল থেকে অবস্থান করছিলেন। রাতে মাহফিলে তাঁর সভাপতিত্ব করার কথা ছিলো। কিন্তু হুজুর অসুস্থতাবোধ করায় আমার বাসায় তিনি বিশ্রাম নিচ্ছিলেন। তাঁর শ্বাসকষ্ট বেড়ে গেলে রাত সোয়া একটার সময় বাসা থেকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে আনা হয়।

হাসপাতালের কর্তব্যরত চিকিৎসক মো. আমিনুল ইসলাম বলেন, ‘হাসপাতালের জরুরী বিভাগে তাকে রাখা হয়। এ সময় হুজুরের শ্বাসকষ্ট হচ্ছিল। তাই তাঁকে অক্সিজেন, স্যালাইন ও ইনজেকশন দেওয়ার হয়। কিন্তু ইশারায় তিনি এসব খুলে ফেলার তাগাদা দেন। একপর্যায়ে তিনি উঠে বসতে চাইলে তাঁকে বসানো হয়। কিছুক্ষণ পর উত্তরমুখি হয়ে শোয়ে যান। এ সময় তাঁর শরীর নিস্তেজ হতে থাকে এবং তাঁকে অস্ফুষ্টস্বরে কিছু পড়তে দেখা যায়। রাত ২ টা ৪০ মিনিটের সময় তিনি ইন্তেকাল করেন’।

এদিকে, গভীর রাতে হাসপাতালে তাঁর অসংখ্য মুরীদ, শুভাকাঙ্খী ও অনুগ্রাহীরা হাসপাতালে ভীড় করেন। ভোররাত ৪টার সময় তাঁকে আলীকদম সরকারী স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স থেকে এ্যাম্বুলেসযোগে খুটাখালীতে নিয়ে যাওয়া হয়।

Top