আপডেটঃ
গুগলের পরিষেবা ব্যবহারে বিভ্রাটব্যারিস্টার মইনুল হোসেন ৬ মাসের জামিনসাহু সেজদার বিধান দেয়ার কারণ কী?ভোটের দিন ৩০ ডিসেম্বর (রোববার) সাধারণ ছুটিনির্বাচনের সুষ্ঠু পরিবেশ না থাকার অভিযোগ ভিত্তিহীন : সিইসিবিএনপি প্রার্থী কাজলের প্রচার কর্মী আজিজুল হককে অতর্কিতভাবে হামলানির্বাচনী ঘটনায় ভূট্টো ও মাবুদ চেয়ারম্যান সহ ৮০ জনকে আসামী করে দু’টি মামলাপার্থে জিতে ভারতের সাথে সিরিজ সমতায় অস্ট্রেলিয়ালাশ হলে নিরাপত্তা নিয়ে কী করব : কনকচাঁপাজামায়াতের ২৫ নেতার প্রার্থিতার রিট ৩ দিনের মধ্যে নিষ্পত্তির নির্দেশসিইসির সঙ্গে আইজিপি-ডিএমপি কমিশনারের বৈঠকপরপর দুই মেয়াদের বেশি প্রধানমন্ত্রী নয়‘২০৩০ সালের মধ্যে বাংলাদেশ হবে মধ্যম আয়ের দেশ’নির্বাচনকে কেন্দ্র করে আইন-শৃঙ্খলা রক্ষার দায়িত্ব পালনে বিজিবি মোতায়েনবিএনপির নির্বাচনী ইশতেহারে ১৭ অঙ্গীকার

পিবিআই রিমান্ডেও মুখ খোলেনি হান্নান,তবুও ভরসা পিবিআই

Ctg-PIB.jpg

জে,জাহেদ নিজস্ব প্রতিবেদকঃ

চার নারী ধর্ষণের ঘটনায় মুল পরিকল্পনাকারী খ্যাত কথিত হান্নান মেম্বারকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ৩ দিনের রিমান্ডে নিয়েছিলো চট্টগ্রাম পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন (পিবিআই)।

কিন্তু এখনো পর্যন্ত ধর্ষণের ঘটনার সাথে জড়িত মর্মে কোন কথাই স্বীকার করেনি হান্নান। এমন তথ্য জানিয়েছেন খোদ পিবিআইয়ের এক কর্মকর্তা।

এ নিয়ে ঘটনার রহস্য আরো ঘনিভূত হচ্ছে কেননা পিবিআই কতৃক গ্রেফতারকৃত তিনজনেই ভিন্ন ভিন্ন তথ্য দিয়ে যাচ্ছেন।

একদিকে মিজান মাতব্বর স্থানীয় একজন জড়িত বলে তথ্য দিয়েছিলেন । পরে নাম উঠে আসে হান্নান মেম্বারের কিন্তু তিনি কোন তথ্য প্রদান করেনি এখনো পর্যন্ত।

তদন্তকারী সঃস্থা ও ঘটনা সুত্রে জানা গেছে, অজ্ঞাত আরো এক ব্যক্তি ও রিক্সাচালক ইলিয়াছ এখনো ধরা ছোঁয়ার বাহিরে। যদিও আমরা এখনো পুরা ঘটনার স্বীকারোক্তিমূলক কাউকে পাচ্ছিনা। সবাই আত্বরক্ষামূলক তড়িগড়ি করা জবানবন্দি দিচ্ছেন।

পিবিআই যদিও বাহিরে থাকা অপরাধীদের গ্রেফতারে তৎপর রয়েছে। এখন পর্যন্ত ধর্ষণের ঘটনায় মোট ৭ জনকে গ্রেফতার দেখিয়েছে বিভিন্ন আইনশৃঙ্খলা বাহিনী। তবুও আসল ঘটনা এখনো কুয়াঁশায় রয়েছে।

অন্যদিকে পিবিআই আশাবাদী অতিদ্রুত ঘটনায় জড়িত মুল অপরাধীদের সনাক্তে তারা সফল হবেন।

গত ২৮ ডিসেম্বর চট্টগ্রাম মহানগর হাকিম আল ইমরান খান আসামী হান্নানকে ৩দিনের রিমান্ডের আদেশ দিয়েছিলেন। আগামী রবিবারে রিমান্ড শেষ হবে এবং জানা যায় হান্নানকে পুনরায় আদালতে হাজির করা হবে।

বিগত ১২ ডিসেম্বর গভীর রাতে কর্ণফুলীর বড়উঠান ইউনিয়নের শাহমিরপুর গ্রামে আলোচিত এই ধর্ষণের ঘটনাটি ঘটে।

উল্লেখ্য, রিমান্ডে থাকা আব্দুল হান্নানকে গত ২৭ ডিসেম্বর রাতে নগরীর কোতয়ালী মোড় থেকে গ্রেফতার করে পিবিআই।

এদিকে মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা পিবিআইয়ের পরিদর্শক সন্তোষ কুমার চাকমা জানান, পলাতক ২ জন আসামীকে গ্রেফতারের জন্য অভিযান অব্যাহত রয়েছে। দ্রুত মুল অপরাধীদের আইনের মুখামুখি করা হবে। এবং অতিশীঘ্রেই ভিকটিমদেরও আদালতে পাঠানো হবে জবানবন্দী প্রদানের জন্য।

কর্ণফুলী উপজেলায় এ ঘটনায় নানা শ্রেণীর মানুষের মাঝে নীরব ক্ষোভ বিরাজ করেছে। কেননা জনগণ চায় দ্রুত যেন মুল অপরাধীদের দৃষ্টান্তমুলক শাস্তি প্রদান করা হোক প্রচলিত আইনে।

সাধারণ মানুষ আস্থা ভরা চোখে তাঁকিয়ে রয়েছে মামলার তদন্তকারী সঃস্থা পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন (পিবিআই) এর উপর।

Top