আপডেটঃ
গর্জনিয়ায় সন্ত্রাসী কয়দায় নিরহ এক যুবক কে পেটালো প্রতিপক্ষকর্ণফুলীর জুলধায় পূজা মন্ডপ পরিদর্শনে আওয়ামীলীগ নেতৃবৃন্দউন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখতে আবারো নৌকায় ভোট দিনবর্ণাঢ্য আয়োজনে জাতির পিতার কনিষ্ঠ পুত্র শেখ রাসেলের ৫৪তম জন্মবার্ষিকী উদযাপনওয়াশিংটনের ‘বার্তা’ কাদেরকে জানালেন বার্নিকাটনভেম্বরের প্রথম সপ্তাহে সংসদ নির্বাচনের তফসিলঐক্যফ্রন্ট জয়ী হলে প্রধানমন্ত্রী হবেন কে, জানতে চান বিদেশি কূটনীতিকরাজনপ্রিয় সংগীতশিল্পী আইয়ুব বাচ্চু আর নেইদক্ষিন শার্শায় মাদকের নেশা ছড়িয়ে পড়ছে ভবিষ্যৎ নিয়ে আশঙ্কা সচেতন মহলেরশার্শায় ওয়ান সুটার গুলি সহ আটক ১লোকবল সংকটে বন্ধ হিলি রেল স্টেশন বিপাকে পড়ছেন পাসপোর্টধারী যাত্রী ও কলেজগামী শিক্ষার্থীরাকক্সবাজারের মানবতার শ্রেষ্ট মানব সেবক ড়াক্তার রেজাউল করিম মনছুরযেখানে সেখানে কান পরিষ্কার করবেন নাসাকিবের না থাকাটা আমার জন্য বাড়তি দায়িত্ব : মিরাজআন্তর্জাতিক ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ে ‘আইইই ডে’ পালিত

অন্যের যেসব জিনিস ব্যবহার করবেন না

Life-1.jpg

ওয়ান নিউজ ডেক্সঃ কোনো জিনিস ভাগাভাগি করে ব্যবহার করলে আন্তরিকতা বাড়ে- এমন ধারণা প্রচলিত রয়েছে। কারণ কোনো জিনিস অন্যের সঙ্গে শেয়ার করার মধ্যে স্বাস্থ্যগত বিষয়টি ওতপ্রোতভাবে জড়িত। স্বাস্থ্যগত দিক বিবেচনা রেখে কিছু জিনিস অন্যের সঙ্গে শেয়ার না করাই ভালো। এগুলো একান্ত নিজের রাখাই উত্তম।

 

প্রত্যেকটা মানুষের আলাদা কিছু ব্যবহারিক সামগ্রী থাকে। আপনি যে টুথব্রাশ প্রতিদিন ব্যবহার করেন, সেটা নিশ্চয়ই অন্য কেউ ব্যবহার করুক তা চাইবেন না। এটা মোটেও স্বাস্থ্যসম্মত নয়। একই কথা বলতে হয় রেজারের বেলায়। সেটাও একজনেরটা আরেকজন ব্যবহার করা মোটেও স্বাস্থ্যকর বা রুচিসম্মত না। অনেকটা এমনই কিছু সামগ্রী আছে যা অন্য কারো সাথে শেয়ার বা ভাগাভাগি করা উচিত না-

 

তোয়ালে
একজনের তোয়ালে আরেকজন ব্যবহার করা ঠিক না। কোনও সুইমিং ক্লাব বা স্পোর্টস ক্লাবে গেলে বিষয়টা অবশ্যই খেয়াল রাখতে হবে আপনাকে। এতে করে অন্যের দেহের ব্যাকটেরিয়া, ফাঙ্গাস বা চর্মরোগ ছড়িয়ে পড়ার আশংকা থেকে রেহাই পাবেন।

 

চিরুনি ও চুলের সামগ্রী
চিরুনি, হেয়ার ব্যান্ড, ক্লিপ এসবের মাধ্যমে মাথার উকুন ও খুসকি একজনের মাথা থেকে আরেকজনের মাথায় ছড়িয়ে পড়ে। তাই অন্য কারও চিরুনি বা চুলের সামগ্রী ব্যবহার করা উচিত না।

 

হেডফোন
অফিসে বা বন্ধুরা এক সাথে হলে অনেক সময়ই আমরা একজন আরেক জনের হেডফোন কানে দেই গান বা কোনো কিছু শুনতে। এটা ক্ষতিকর। কারণ প্রত্যেকের কানে বিশেষ কিছু ব্যাকটেরিয়া বসবাস করে। এতে করে একজনের কানের ব্যাকটেরিয়া আরেকজনের কানে গিয়ে ইনফেকশন হতে পারে।

 

ডিওডোরেন্ট রোল অন
যেসব ডিওডোরেন্ট রোল অন একজন বগলের নিচে বা শরীরে ব্যবহার করে, সেগুলো আরেকজন ব্যবহার করা অস্বাস্থ্যকর। কারণ এতে একজনের শরীরের ব্যাকটেরিয়া অন্যজনের শরীরে চলে যাওয়ার আশংকা থাকে।

 

নেইল ফাইলার
অন্যের ব্যবহার করা নেইল ফাইলারে (বিশেষ করে পার্লারে যেগুলো ব্যহার করা হয়) লুকিয়ে থাকতে পারে ছত্রাক, ফাঙ্গাস বা নানা রকম জীবাণু। এ সব জীবাণু বা ব্যাকটেরিয়া কিন্তু খুব সহজেই আপনার নখেও ছড়িয়ে যেতে পারে। তাই অন্যের ব্যবহৃত এটি ব্যবহার করবেন না।

 

অন্যের ব্যবহৃত সানগ্লাস বা চশমা
অন্যের সানগ্লাস বা চশমা ব্যবহার করা উচিত না। কারণ ফ্রেমের মধ্যে লুকিয়ে থাকে ‘অঞ্জনির’ মতো নানা অসুখের জীবাণু, যা অল্পতেই ছড়িয়ে যেতে পারে আপনার চোখে।

 

স্লিপার
গ্রামের বাড়ি থেকে বা অনেক দূর থেকে আপনার বাসায় কোনও অতিথি বেড়াতে আসলে তার সঙ্গে স্লিপার নিয়ে এসেছেন কি না, সেটা দেখাও জরুরি। বিশেষ করে বাথরুমে আলাদা স্লিপার থাকা চাই তার জন্য। কারণ স্লিপারের মাধ্যমে তার পায়ের বিভিন্ন ফাঙ্গাস আপনার পায়েও চলে আসতে পারে। তাই তাকে বাথরুমের জন্য এক জোড়া নতুন স্লিপার কিনে দিন।

 

লিপ গ্লস বা লিপস্টিক
মেয়েরা সাধারণত এক বান্ধবী আরেক বান্ধবীর লিপ গ্লস বা লিপস্টিক ব্যবহার করতে ভালোবাসে। এটা খুব বিপজ্জনক। কারণ এতে করে হার্পিসের মতো ভাইরাস জনিত চর্মরোগ একজনের কাছ থেকে আরেকজনের মাঝে ছড়িয়ে পড়তে পারে।

 

কসমেটিক্স
আইশ্যাডো, কাজল, ফেস পাউডারের মতো অন্য সব কসমেটিক্সও একে অপরেরটা ব্যবহার করা একেবারে অনুচিত। যদি বিয়ে বা কোনও অনুষ্ঠানে যাওয়ার আগে বিউটি সেলুনে যান, তাহলে খেয়াল রাখুন তারা সঠিক স্বাস্থ্যসম্মত প্রডাক্ট ব্যবহার করছে তো? কারণ আপনি জানেন না, আরেকজন কোন চর্মরোগ বয়ে বেড়াচ্ছে।

 

স্কিনকেয়ার
স্পঞ্জ, ব্রাশ, ম্যাসেজ রোলারের মতো স্কিনকেয়ার উপকরণ ব্যবহার করার ক্ষেত্রেও সাবধানতা অবলম্বন করা উচিত। অন্যের স্কিনকেয়ার উপকরণ ব্যবহার করবেন না। এতে করে আপনিও ব্যাকটেরিয়া আক্রান্ত হতে পারেন।

Top