আপডেটঃ
পৃথিবীজুড়ে এত টি-টোয়েন্টি লিগ!ডায়াবেটিসের সম্ভাবনা কমায় কফি!মনেহয় সেতু মন্ত্রী বিএনপি’রও নীতি নির্ধারকহাজী এম এ কালাম ডিগ্রী কলেজের ২০বছরের পুরনো বেদখলীয়  জমি  উদ্ধার  হয়েছে আজ।ডুলাহাজারায় থামছে না বনভূমির অবৈধ দখল বাণিজ্য!রোহিঙ্গা ক্যাম্পে অবহেলিত শিশুদের মাঝে শিক্ষা উপকরণ বিতরণ করলেন কেন্দ্রীয় ছাত্রনেতা এস,এম জাকির হোসাইন:রামুর কাউয়ারখোপ ইউনিয়নের উখিয়ারঘোনাতে  ৮ম শ্রেণীর মাদ্রাসা ছাত্রী অপহরণ। বিভিন্ন পদে নিয়োগ দেবে ইউএনডিপি৭ মার্চ স্মরণকালের সব রেকর্ড ভাঙবে আ’লীগলাইসেন্স পাওয়ার ১৫ মিনিটের মধ্যেই ফোর-জি চালু করবে গ্রামীণফোনপুরুষের অনুমতি ছাড়াই ব্যবসা করতে পারবেন সৌদি নারীরাসার্টিফায়েড কপি না পাওয়ায় ‘কারো’ ইশারা দেখছে বিএনপিযুক্তরাজ্যে কার্গো পরিবহনে বাংলাদেশের ওপর নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহারইরানে ৬৬ আরোহী নিয়ে যাত্রীবাহী উড়োজাহাজ বিধ্বস্তআগামীকাল বিকেলে প্রধানমন্ত্রীর সংবাদ সম্মেলন

ট্রাম্প আগুন নিয়ে খেলছেন: ফিলিস্তিনি প্রেসিডেন্ট

Filytin.jpg

ওয়ান নিউজ ডেক্সঃ জেরুজালেম ইস্যুতে একপেশে সিদ্ধান্ত নেয়ার পর মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের কড়া সমালোচনা করেছেন ফিলিস্তিনি প্রেসিডেন্ট মাহমুদ আব্বাস।

মাহমুদ আব্বাস হুঁশিয়ারি দিয়ে বলেন, ট্রাম্প আগুন নিয়ে খেলছেন। ফিলিস্তিনের সাধারণ জনগণ আপনার সিদ্ধান্ত প্রত্যাখ্যান করেছে।

তিনি এসময় জেরুজালেমকে স্বাধীন ফিলিস্তিন রাষ্ট্রের রাজধানী বলেও উল্লেখ করেন।

এদিকে বিশ্বনেতাদের এবং জাতিসংঘসহ বিভিন্ন সংস্থার আহ্বান অগ্রাহ্য করে একপেশে সিদ্ধান্তে জেরুজালেমকে ইসরাইলের রাজধানী ঘোষণায় মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র তার অবস্থান হারিয়েছে বলে উল্লেখ করেছে ফিলিস্তিনি কর্তৃপক্ষ।

তাদের মতে, ফিলিস্তিন-ইসরাইল শান্তি প্রক্রিয়ায় আর কোনো ভূমিকা রাখার অবস্থানে নেই যুক্তরাষ্ট্র। তারা মধ্যস্থতাকারীর অবস্থান হারিয়েছে।

জেরুজালেমকে রাজধানী এবং তেল আবিব থেকে সেখানে দূতাবাস সরানোর ঘোষণার মাধ্যমে ট্রাম্প ইসরাইলকে পুরস্কৃত করেছে বলে মন্তব্য করেছেন মাহমুদ আব্বাস। তিনি বলেন, এই পুরস্কার প্রদানের মাধ্যমে ফিলিস্তিনিদের ভূমি দখলকে বৈধতা দিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র। এতে শান্তি নয় সংঘাত বাড়বে।

এদিকে ট্রাম্পের ঘোষণার প্রতিবাদে তিন দিন বিক্ষোভ কর্মসূচি পালন সহ প্রতিবাদ অব্যাহত রাখবেন ফিলিস্তিনিরা।

১৯৪৮ সালে আরব-ইসরাইল যুদ্ধের পর জেরুজালেমের পশ্চিমাংশ দখল করে নেয়া হয়। পরে ১৯৬৭ সালে সিরিয়া, মিশর ও জর্ডানের সঙ্গে যুদ্ধের পর পূর্বাংশ দখল করে নেয় ইসরাইল।

দখলের পর থেকেই ঐতিহাসিকভাবে পবিত্র এ শহরটিতে নিজেদের পুরো কর্তৃত্ব খাটানোর চেষ্টা করছিল ইসরাইল। এই ইস্যুতে অসংখ্যবার ইসরাইলি ও ফিলিস্তিনি, ইহুদি, খ্রিস্টান ও মুসলিমদের পবিত্র ভূমিতে আগুন জ্বলতে দেখে গেছে।

১৯৯০, ১৯৯৬, ২০০০ সালে এবং সম্প্রতি ২০১৭ সালে আল-আকসা মসজিদে প্রবেশের ক্ষেত্রে ফিলিস্তিনিদের পরীক্ষা-নিরীক্ষার জন্য ইসরাইলি পুলিশের মেটাল ডিটেক্টর বাসানোর জেরে রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষ ঘটেছে।

Top