ট্রাম্পকে পরামর্শ দিলেন ওবামা

Obama-Trump.jpg

ওয়ান নিউজ ডেক্সঃ মার্কিন প্রেডিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম টুইটারে নিয়মিতই বিভিন্ন বিষয়ে পোস্ট দিয়ে থাকেন। তার সমর্থকেরা যেমন সেই সবের প্রশংসা করে থাকে, তেমনই তার নিন্দা কিংবা সমালোচনা করার লোকেরও অভাব নেই। তবে কিছু কিছু পোস্টের ক্ষেত্রে এই সমালোচনার মাত্রাটা বেশ বেড়ে যায়।

সম্প্রতি যেমন যুক্তরাজ্যের উগ্রপন্থী দল ব্রিটেন ফার্স্টের তিনটি ভিডিও রি-টুইট করে তিনি নতুন করে সমালোচনার জন্ম দিয়েছেন। টুইটারে মুসলিম বিদ্বেষী পোস্ট করায় বরাবরের বন্ধুরাষ্ট্র ব্রিটেনের প্রধানমন্ত্রীসহ অনেক নেতারাও ট্রাম্পের সমালোচনা করেছেন।

এমন অবস্থায় সাবেক মার্কিন প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা ট্রাম্পকে পরামর্শ দিয়েছেন। ওবামা জানিয়েছেন, এরপর থেকে টুইটারে কোনো কিছু টুইট করার আগে খুব ভেবে চিন্তে ট্রাম্পের তা করা উচিৎ। ভারতের নয়া দিল্লিতে তথ্য প্রযুক্তি বিষয়ক এক অনুষ্ঠানে ওবামা বলেন, কথা বলার আগে যেমন ভেবেচিন্তে তা বলা উচিত, তেমনই টুইট করার ক্ষেত্রেও তা মেনে চলা বাঞ্ছনীয়।

প্রতিবেদনে বলা হয়, টুইটারে পুরোপুরি সক্রিয় থাকলেও ট্রাম্প এমন কিছু পোস্ট অতীতে করেছেন যা নিয়ে সমালোচনার মাত্রা তুঙ্গে ওঠে। ব্রিটেন ফার্স্টের ভিডিও’গুলো রি টুইট করে ট্রাম্প তেমনই সমালোচিত হয়েছেন।

টুইটার পোস্টটিতে অনেকেই মন্তব্য করেন যে, ব্রিটেনের উগ্রবাদী সংগঠনটি যেভাবে মুসলিমদের বিরুদ্ধে নানা প্রচার এবং ঘৃণা ছড়াচ্ছে তা খোদ তেরেসা সরকারও সমর্থন করে না। আর মার্কিন প্রেসিডেন্টের মতো গুরুত্বপূর্ণ পদে বসে সেই ঘৃণাকেই উস্কে দিচ্ছেন ডোনাল্ড ট্রাম্প।

সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম টুইটারে বারাক ওবামার তুলনায় ডোনাল্ড ট্রাম্প বেশি সক্রিয়। কিন্তু ফলোয়ারের সংখ্যার দিক থেকে ওবামার তুলনায় অনেকটাই পিছিয়ে রয়েছেন ট্রাম্প।

বর্তমানে সাবেক মার্কিন প্রেসিডেন্টের ব্যক্তিগত টুইটার অ্যাকাউন্টে ফলোয়ারের সংখ্যা ৯ কোটি ৭৪ লক্ষ। অপরদিকে, ট্রাম্পের অ্যাকাউন্টে ফলোয়ারের সংখ্যা অর্ধেকের কম, ৪ কোটি ৩৭ লাখ।

Top