ফজরের সুন্নাত নামাজের গুরুত্ব ও ফজিলত

Islam-Namaj.jpg

ওয়ান নিউজ ডেক্সঃ আল্লাহ তাআলা মানুষের জন্য পাঁচ ওয়াক্ত নামাজ ফরজ করেছেন। এ পাঁচ ওয়াক্ত নামাজের আগে এবং পরে প্রিয়নবি সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম ওয়াক্তভেদে ২ বা ৪ রাকাআত করে নামাজ আদায় করেছেন। যার গুরুত্ব ও ফজিলত অনেক বেশি।

প্রিয়নবি সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম ফজরের ২ রাকাআত ফরজ নামাজের আগে ২ রাকাআত সুন্নাত নামাজের অনেক গুরুত্বারোপ করেছেন। এ নামাজের বিশেষ ফজিলত বর্ণনা করেছেন। ফজরের ২ রাকআত সুন্নাত আদায়ের গুরুত্ব ও ফজিলত সম্পর্কে কয়েকটি হাদিস তুলে ধরা হলো-

>> হজরত আয়িশা রাদিয়াল্লাহু আনহা বর্ণনা করেন রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম জোহরের আগে ৪ রাকাআত এবং ফজরের আগে ২ রাকাআত (সুন্নাত) নামাজ কখনো ছেড়ে দিতেন না। (বুখারি)

এ সুন্নাত নামাজ আদায়ের ফজিলত হলো নামাজ আদায়কারীর জন্য জান্নাতে ঘর বানানো হয়। হাদিসে এসেছে-

>> হজরত উম্মে হাবিবাহ বিনতে আবু সুফিয়ান রাদিয়াল্লাহু আনহা বর্ণনা করেন আমি রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লামকে বলতে শুনেছি, যে মুসলমানই প্রতিদিন আল্লাহর সন্তুষ্টির জন্য বার রাকাআত (নফল) নামাজ আদায় করবে আল্লাহ তার জন্য জান্নাতে ঘর বানাবেন অথবা তার জন্য জান্নাতে ঘর বানানো হয়। (মুসলিম)

উল্লেখিত হাদিসে ১২ রাকাআত (নফল) নামাজের মধ্যে ফজরের ফরজ আগের ২ রাকাআতও অন্তর্ভূক্ত। এ প্রসঙ্গে হজরত আয়েশা রাদিয়াল্লাহু আনহা বর্ণনা করেন যে, ‘রাসুলে আকরাম সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম ফজরের ২ (রাকাআত) সুন্নাতের মোকাবেলায় অন্য কোনো নফলের উদ্যোগ গ্রহণ করতেন না। (বুখারি ও মুসলিম)

আল্লাহর বিধান পালনে ফরজ নামাজ আদায়ের পর ফজরের সুন্নাতের গুরুত্ব অত্যাধিক হওয়ায় প্রিয়নবি ২ রাকাআত সুন্নাত নামাজের গুরুত্বের পাশাপাশি অসামান্য ফজিলতও তুলে ধরেছেন। যা উম্মাহাতুল মুমিনিন হজরত আয়িশা সিদ্দিকা রাদিয়াল্লাহু আনহা হাদিসে বর্ণনা করেছেন।

রাসুলে আকরাম সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম বলেছেন, ‘ফজরের দুই রাকাআত সুন্নাত নামাজ দুনিয়া এবং এর মধ্যকার সব কিছুর চেয়েও উত্তম। (মুসলিম)

আল্লাহ তাআলা মুসলিম উম্মাহকে ফজরের ফরজ নামাজের আগে ২ রাকাআত সুন্নাত নামাজ আদায় করার তাওফিক দান করুন। ২ রাকাআত সুন্নাত আদায়ের মাধ্যমে হাদিসে ঘোষিত ফজিলত লাভের তাওফিক দান করুন। আমিন।

Top