আপডেটঃ
যে দানে চরম শত্রু থেকে বন্ধু হলেন প্রিয়নবিআসছে শতাব্দীর দীর্ঘতম চন্দ্রগ্রহণ!ঈদে সাত পর্বের নাটকে ঊর্মিলাবাংলাদেশের যে কোনো সংকটে পাশে থাকবে ভারতহৃদয় জেতা ক্রোয়েশিয়া আজ ট্রফিও জিতুক!কক্সবাজার উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের বহুতল অফিস ভবনের নির্মাণ কাজের শুভ উদ্বোধনচট্টগ্রাম পানির ট্যাংক থেকে মা-মেয়ের লাশ উদ্ধারআওয়ামীলীগের প্রার্থী তালিকা প্রায় চূড়ান্ত, ৮৫টি সংসদীয় আসনে আসছে নতুন মুখবহিষ্কৃত এএসআই ইয়াবা সহ ডিবির হাতে গ্রেফতার:চট্টগ্রাম শাহ আমানত মার্কেটে আগুনক্ষমতা চিরস্থায়ী করার পাঁয়তারা করছে সরকার: ফখরুলভিসির বাসভবনে হামলাকারীদের গ্রেফতার করা হচ্ছে, মুক্তিযোদ্ধা কোটা থাকবে: প্রধানমন্ত্রীকার্ডের লেনদেনে আসছে ‘এনএফসি’ প্রযুক্তিফাইনালে ‘ফ্রান্সের বিপক্ষে প্রস্তুত ক্রোয়েশিয়াগ্রামীণ গল্পে প্রসূন

পদত্যাগ করবেন না মুগাবে

mugabe.jpg

ওয়ান নিউজ ডেক্সঃ জিম্বাবুয়ের প্রেসিডেন্ট রবার্ট মুগাবে তার দেশের নিয়ন্ত্রণ নেয়া জেনারেলদের সঙ্গে সাক্ষাতের পর পদত্যাগ করতে অস্বীকার করেছেন।

তবে একাধিক সূত্র মনে করছে, মুগাবে তার নিষ্ক্রমনের বিষয়ে দর কষাকষি করতে ‘কালক্ষেপণ’ করছেন।

খবর এএফপির।

মুগাবের পর ক্ষমতাসীন জেডএএনইউ-পিএফ পার্টির নেতৃত্বে কে আসছে, তা নিয়ে দ্বন্দ্বের মধ্যেই বুধবার জিম্বাবুয়ের ক্ষমতার নিয়ন্ত্রণ নেয় সেনাবাহিনী। তখন থেকেই ৯৩ বছর বয়সী মুগাবে গৃহবন্দি রয়েছেন। বৃহস্পতিবার রাজধানী হারারেতে এ বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়।

মুগাবেকে আলোচনার জন্য তার ব্যাক্তিগত বাসভবন থেকে একটি মটর বহরে স্টেট হাউসে নিয়ে যাওয়া হয়। আঞ্চলিক ব্লক সাউদার্ন আফ্রিকান ডেভেলপ কমিউনিটি (এসএডিসি)’র দূতরা বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন।

সেনাবাহিনীর সঙ্গে ঘনিষ্ট নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক একটি সূত্র এএফপি’কে বলেন, ‘তাদের সাক্ষাৎ হয়েছে। তিনি পদত্যাগে অস্বীকৃতি জানাচ্ছেন। আমার ধারণা তিনি সময় ক্ষেপণের চেষ্টা করছেন।

রাষ্ট্রীয় টেলিভিশনে দেখানো হয়, নেভি ব্লু ব্লেজার ও ছাই রঙা ট্রাউজার পরা মুগাবে সেনা প্রধান কনস্টান্টিনো চিওয়েঙ্গার পাশে দাঁড়িয়ে আছেন।
তবে এ বিষয়ে এখন পর্যন্ত আনুষ্ঠানিক কোনো বক্তব্য পাওয়া যায়নি।

মুগাবের একচ্ছত্র আধিপত্যে থাকা জিম্বাবুয়েতে রাজনৈতিক সংকটের শুরুটা হয়েছিল গত সপ্তাহে। স্ত্রী গ্রেসকে ক্ষমতাসীন দলের নেতৃত্বে আনা ও পরে প্রেসিডেন্ট করার পথ সুগম করতে ভাইস প্রেসিডেন্ট এমারসন ন্যাংগাগোয়াকে বরখাস্ত করেন মুগাবে। আর এতে ক্ষুব্ধ হয়ে চূড়ান্ত পর্যায়ে ক্ষমতার দখল নেয় সেনাবাহিনী।

Top