আপডেটঃ
যে দানে চরম শত্রু থেকে বন্ধু হলেন প্রিয়নবিআসছে শতাব্দীর দীর্ঘতম চন্দ্রগ্রহণ!ঈদে সাত পর্বের নাটকে ঊর্মিলাবাংলাদেশের যে কোনো সংকটে পাশে থাকবে ভারতহৃদয় জেতা ক্রোয়েশিয়া আজ ট্রফিও জিতুক!কক্সবাজার উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের বহুতল অফিস ভবনের নির্মাণ কাজের শুভ উদ্বোধনচট্টগ্রাম পানির ট্যাংক থেকে মা-মেয়ের লাশ উদ্ধারআওয়ামীলীগের প্রার্থী তালিকা প্রায় চূড়ান্ত, ৮৫টি সংসদীয় আসনে আসছে নতুন মুখবহিষ্কৃত এএসআই ইয়াবা সহ ডিবির হাতে গ্রেফতার:চট্টগ্রাম শাহ আমানত মার্কেটে আগুনক্ষমতা চিরস্থায়ী করার পাঁয়তারা করছে সরকার: ফখরুলভিসির বাসভবনে হামলাকারীদের গ্রেফতার করা হচ্ছে, মুক্তিযোদ্ধা কোটা থাকবে: প্রধানমন্ত্রীকার্ডের লেনদেনে আসছে ‘এনএফসি’ প্রযুক্তিফাইনালে ‘ফ্রান্সের বিপক্ষে প্রস্তুত ক্রোয়েশিয়াগ্রামীণ গল্পে প্রসূন

যেকোনো মুহূর্তে সৌদি-লেবানন যুদ্ধ বেঁধে যেতে পারে!

Soudia-Lebanan-war.jpg

ওয়ান নিউজ ডেক্স: সৌদি এবং লেবাননের মধ্যেকার উদ্বেগজনক পরিস্থিতি বিরাজ করছে। লেবাননের প্রধানমন্ত্রী সাদ হারিরির পদত্যাগের পর থেকেই এই দুই দেশের মধ্যে চরম উত্তেজনা চলছে৷ফলে যেকোন মুহূর্তে যুদ্ধ বেঁধে যেতে পারে বলে আশঙ্কা প্রকাশ করেছেন জাতিসংঘের মহাসচিব অ্যান্তেনি৷

তিনি জানান, দুই দেশের মধ্যে যুদ্ধ বাঁধলে তা এখন ভয়াবহ আকার নিতে পারে৷সৌদি আরব, লেবানন ও মধ্যপ্রাচ্যের বেশ কয়েকটি দেশের নেতাদের সঙ্গে তার নিবিড় যোগাযোগ রয়েছে৷ সেক্ষেত্রে এখানে যাতে কোনওভাবেই যুদ্ধের পরিস্থিতি সৃষ্টি না হয়৷ সেই বিষয়টি তিনি খতিয়ে দেখবেন৷ বহু দিন ধরেই লেবানন মোটামুটি দু’ভাগে বিভক্ত হয়ে গিয়েছিল।

এদের মধ্যে একটি ছিল ইরান সমর্থিত শিয়াপন্থী হিজবুল্লা গোষ্ঠী, অন্যটি সৌদি আরবের সমর্থন পাওয়া হারিরির সুন্নিপন্থী দল। এখন হিজবুল্লাই গোটা লেবাননের দখল নিয়ে বসে আছে বলে ইস্তফা দেওয়ার দিন সুর চড়িয়েছিলেন লেবাননের প্রাইম মিনিস্টার হারিরি। কূটনৈতিক মহলের দাবি, এর পরই সৌদির সঙ্গে সম্পর্কের অবনতি হতে শুরু করে৷ তবে, যদি সত্যিই যুদ্ধ বাঁধে সৌদি-ইরানের, তাতে লেবাননকেই ভুগতে হবে বলে মনে করছেন তাঁরা।

Top