আপডেটঃ
বনপা’র উদ্যোগে ‘মহাকাশে বাংলাদেশ’ শীর্ষক আলোচনা ও ইফতার মাহফিল ২৬ মেনাইক্ষ্যংছড়ির ঘুমধুমে পাহাড় ধ্বসে ৫ জনের মৃত্যু : ১ জন কে জীবিত উদ্ধারঅভিভাবকহীন মারুফা কর্ণফুলী থানায়রোহিঙ্গা শিশুদের সাথে সময় কাটালেন বলিউড অভিনেত্রী প্রিয়াঙ্কাতাসফিয়া হত্যায় ৩য় পক্ষের ইন্দন খতিয়ে দেখার দাবি বাবারকক্সবাজারে প্রিয়াঙ্কা, বিকেলে যাবেন রোহিঙ্গা ক্যাম্পেচৌফলদন্ডীর সন্তান হিসাবে ইয়াবা নির্মুলে দু একটা কথা আমাকে বলতে হবেব্যবসায়ী সেলিমের উপর হামলার প্রতিবাদে বিক্ষোভ ও মানববন্ধননকল ও ভেজাল প্রতিরোধে ঈদগাও বাজারে অভিযানরোহিঙ্গা ক্যাম্প পরিদর্শনে বাংলাদেশে প্রিয়াঙ্কা চোপড়ানামাজ পড়ার সময় যদি পেছনের সারি থেকে বাচ্চাদের হাসির আওয়াজ না আসে, তাহলে পরবর্তী প্রজন্মের ব্যাপারে ভয় করুন”প্রধানমন্ত্রীর ‘নির্বাচিত ১০০ ভাষণ’ সব সরকারি দফতরে রাখার নির্দেশএমপিওভুক্ত শিক্ষকদের দলীয় রাজনীতি নিষিদ্ধ হচ্ছেঈদগড়ে পুলিশের অভিযানে গাঁজাসহ ১ ব্যবসায়ী আটকরামু ক্রসিং হাইওয়ে থানা পুলিশের পৃথক অভিযান ২৫ হাজার পিস ইয়াবাসহ আটক চার

ইউরোপ আ:লীগ বিষয়ে কাউকে বিভ্রান্তি না হবার আহ্বান

Ctg-M-A-Goni.jpg

ওয়ান নিউজ ডেক্সঃ ইউরোপ আওয়ামী লীগ সাংগঠনিক কাজ করে থাকেন মুলত ইউরোপ আওয়ামী লীগ এর সা:সম্পাদক ও সর্বজনস্বীকৃত বর্ষিয়ান রাজনীতিবিদ এম ,এ,গনি।

সাম্প্রতিক সময়ে অনেকে এ বিষয়ে বিভ্রান্তি ছড়িয়ে প্রবাসী রাজনীতিতে পরিবেশ ঘোলা করতে চায় বলে অভিযোগ করেন ইউরোপ আ:লীগের নেতৃবৃন্দরা।

সংঘটন সুত্রে জানা যায়, দীর্ঘ ৪০ বছর ধরে ইউরোপ আওয়ামী লীগ এর রাজনীতির সাথে জড়িত আওয়ামী লীগের বর্ষিয়ান আস্থাভাজন রাজনীতিবিদ চট্রগ্রামের এম,এ গণি।

এমনকি দীর্ঘদিনের প্রবাসী রাজনীতির অভিজ্ঞতায় তিনি জানেন ও চিনেন প্রবাসী সবাইকে।

যদিও সম্প্রতি কিছু গুটিকয়েক মানুষের কাছে তিনি অপছন্দ। কেননা তিনি ইউরোপ এর বিভিন্ন দেশে মেয়াদ উত্তীর্ণ কমিটির সম্মেলন করার নির্দেশ প্রদান করেন দ্রুত। এতে অনেকে পদ হারানোর ইস্যুতে অস্থির।

অন্যদিকে সাংগঠনিক বিশৃঙ্খলায় যারা জড়িত তাদের সাংগঠনিক শাস্তি প্রদান করে ইউরোপ আওয়ামী লীগকে নতুন ধারায় শৃঙ্খলায় নিয়ে আসার আহ্বান জানালে একটি বিশেষ মহল অসন্তোষ বলে জানা যায়।

নির্ভরযোগ্য একটি বিশেষসুত্র আরো জানান,সর্ব ইউরোপিয়ন আ:লীগের সাঃসম্পাদক এম,এ গণি শুধুমাত্র মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ইউরোপ সফরে আসলে ঐ সমস্ত দেশে যান না।

তিনি অন্যান্য সময়ও সাংগঠনিক সফর করে দলকে বর্হিবিশ্বে সমুন্নত করতে কর্মীদের প্রতিনিয়ত নানা দিক নির্দেশনা দিয়ে উজ্জীবিত রাখেন চেষ্টা করেন।

এমনকি দলীয় স্বার্থে তিনি বিভিন্ন দেশের নেতাকর্মীদের অনৈতিক কাজে প্রশ্রয় দেন না বলে অনেকে বিরাগভাজন।

দায়িত্বগত ভাবে তিনি ছাড়া আর কেউ মেয়াদ উত্তীর্ন কমিটি গুলোর সম্মেলন এর নির্দেশ দিয়ে থাকলে সেটা মিথ্যা এবং বানোয়াট। তিনি নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছেন ।

এম,এ গণি মনে করেন, যাদের কাজ নেই তারা সমালোচনা করেন।

অনেকের মতে, তিনি কোন হাইব্রিড বা অন্যদলের এজেন্টদের প্রশ্রয় দেন না। প্রকৃত কর্মীদের হাতে সংগঠনের নেতৃত্ব নিশ্চিত করতে অন্তহীন চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন।

বঙ্গবন্ধুর আদর্শের ও জাতির জনকের দুইকন্যা শেখ হাসিনা ও শেখ রেহানার বিষয়ে তিনি আপোষহীন।

এ বিষয়ে এম,এ গণি জানান, কোন অপবাদ আর সমালোচনা তার কাজের গতিকে স্তব্ধ করতে পারবেনা।

Top